পছন্দের খবর জেনে নিন সঙ্গে সঙ্গে

রোমের সিটি নির্বাচনে দুই বাংলাদেশি বংশোদ্ভুত নারী

  • হাসান মাহমুদ, ইতালির রোম থেকে, বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
    Published: 2021-09-23 18:55:54 BdST

bdnews24
লায়লা শাহ্‌ (বামে) এবং জুমানা মাহমুদ (ডানে)

অক্টোবরের শুরুতে অনুষ্ঠিতব্য রোম সিটি কর্পোরেশনের নির্বাচনে দাঁড়িয়েছেন দুই বাংলাদেশি বংশোদ্ভুত তরুণী, যাদের প্রচার নিয়ে ইতালি প্রবাসী বাংলাদেশি কমিউনিটির মধ্যে তৈরি হয়েছে উৎসাহ ও উদ্দীপনা।  

প্রবাসীদের মধ্যে আলোচনার শীর্ষে থাকা ওই দুই বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত ইতালিয় নাগরিক হলেন- লায়লা শাহ্ এবং জুমানা মাহমুদ।

আগামী ৩ ও ৪ অক্টোবর এ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে।

রাজধানীর রোমে ৫ ও ১২ নম্বর মিউনিসিপিওতে প্রার্থী হয়েছেন বাংলাদেশ মহিলা সমাজ কল্যাণ সমিতি, ইতালির সভাপতি লায়লা শাহ্। ৭ নম্বর মিউনিসিপিও ও কমিউনের কাউন্সিলর পদে প্রার্থী হয়েছেন সময় টিভির ইতালি প্রতিনিধি জুমানা মাহমুদ।

তারা নিজ নিজ দলের ব্যানারে প্রচারণায় ব্যস্ত সময় কাটাচ্ছেন। নির্বাচনী প্রচারণায় দুইজনই প্রবাসী বাংলাদেশিদের সেবা করার অঙ্গীকার ব্যক্ত করছেন।

ভোট নিয়ে লায়লা শাহ্ বলেন, “আমি নির্বাচিত হলে প্রবাসী বাংলাদেশিসহ সবার সমস্যা সমাধানে কাজ করে যেতে চাই। মূলধারার রাজনীতিতে থেকে এটা সম্ভব।”

ইতালির তরভেরগাতা বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রকৌশল বিভাগের ছাত্রী জুমানা মাহমুদ জানান, এখানে প্রবাসী বাংলাদেশীদের সমস্যার কথা তিনি সরকারের কাছে তুলে ধরতেই এ নির্বাচনে অংশ নিয়েছেন।

তিনি বলেন, “নতুন প্রজন্মের নারীদের মূলধারার রাজনীতিতে এগিয়ে আসা উচিত এবং আমরা ইতালির রাজনীতিতে একটি স্থান করে নিতে চাই।”

প্রবাসীদের মধ্যে আলোচনায় কেন্দ্রবিন্দুতে থাকা এ দুই বাংলাদেশির ভোটে জয়ের ব্যাপারে আশাবাদী ইতালি প্রবাসীরা।

লায়লা শাহ্‌কে কেবল ৫ এবং ১২ নম্বর মিউনিসিপিওর বাসিন্দারাই ভোট দিতে পারবেন। তবে জুমানা মাহমুদকে ৭ নম্বর মিউনিসিপিওর বাসিন্দা ছাড়াও যেকোনও মিউনিসিপিও থেকে কমিউনের ভোটার কাউন্সিলর পদে ব্লু রংয়ের ব্যালটে ভোট দিতে পারবেন।

এবারের রোমের সিটি নির্বাচনে সর্বাধিক ২২ জন মেয়র পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। এছাড়া কমিউনের ৪৮টি কাউন্সিলর পদের জন্য প্রায় এক হাজার ৮০০ প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন।

প্রবাস পাতায় আপনিও লিখতে পারেন। প্রবাস জীবনে আপনার ভ্রমণ,আড্ডা,আনন্দ বেদনার গল্প,ছোট ছোট অনুভূতি,দেশের স্মৃতিচারণ,রাজনৈতিক ও সাংস্কৃতিক খবর আমাদের দিতে পারেন। লেখা পাঠানোর ঠিকানা probash@bdnews24.com। সাথে ছবি দিতে ভুলবেন না যেন!