কোন মার্কায় কোন দল

  • নিজস্ব প্রতিবেদক, বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
    Published: 2018-12-25 10:47:04 BdST

bdnews24

বাংলাদেশে নিবন্ধিত ৩৯টি রাজনৈতিক দলের নিজস্ব প্রতীক থাকলেও একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে জোটের মেরুকরণে দেশের প্রায় অর্ধেক রাজনৈতিক দল স্পষ্ট দুই শিবিরে বিভক্ত হয়ে পড়েছে।

জোটগতভাবে নির্বাচনে ২০টি দল নিজেদের প্রতীক ছেড়ে ভোট করছে প্রধান দুই দলের মার্কা নৌকা আর ধানের শীষ নিয়ে।

জোটবদ্ধ হয়ে ভোট করার ক্ষেত্রে অভিন্ন প্রতীক ব্যবহারের সুযোগ দেওয়া হয়েছে বাংলাদেশের নির্বাচনী আইনে। তবে আর কোনো সংসদ নির্বাচনে দুই মার্কার ভিত্তিতে এতটা স্পষ্ট বিভক্তি দেখা যায়নি।

এবার আওয়ামী লীগের নৌকা প্রতীক নিয়ে নির্বাচনে লড়ার ইচ্ছার কথা জানিয়েছিল তাদের জোটসঙ্গী ১০টি দল। শেষ পর্যন্ত

ভোটের আগে ১১টি দল নৌকা প্রতীকে ভোট করতে চাইলেও প্রতীক বরাদ্দের সময় আরও পাঁচটি দলকে নৌকা ব্যবহার করতে দেওয়া হয়েছে।

৩০০টি আসনের মধ্যে ২৭২ আসনে নৌকা প্রতীকের প্রার্থী আছেন। আওয়ামী লীগের ২৫৮ জনের পাশাপাশি ওয়ার্কার্স পার্টির পাঁচ, জাসদের তিন, তরিকত ফেডারেশনের দুই, বাংলাদেশ জাসদের এক ও বিকল্পধারার তিনজন নৌকা প্রতীকে ভোট করছেন।

জোটের অন্য শরিক জাতীয় পার্টির (জেপি) দুইজন দলীয় প্রতীক ‘বাই সাইকেল’ নিয়ে ভোটে আছেন।

আওয়ামী লীগ তাদের জোটের বড় শরিক জাতীয় পার্টির লাঙ্গলের জন্য ২৬টি আসন ছেড়ে দিলেও এর বাইরে প্রায় দেড়শ আসনে লাঙ্গল প্রতীকের প্রার্থী রয়েছে।

বিএনপির সঙ্গে আরও ১০টি নিবন্ধিত রাজনৈতিক দল ধানের শীষে ভোট করার কথা জানিয়েছিল। তবে প্রতীক বরাদ্দের পর তা দাঁড়িয়েছে আট দলে।

নির্বাচন কমিশনে বিএনপি যে চিঠি দিয়েছিল, সেখানে সব মিলিয়ে ২৯৮টি আসনে ধানের শীষ প্রতীকের প্রার্থী থাকার কথা বলা হয়েছিল। এর মধ্যে বিএনপির প্রার্থী সংখ্যা ছিল ২৪২ জন। তবে আদালতের আদেশে তাদের কয়েকজনের প্রার্থিতা বাতিল হয়ে গেছে।

২০ দলীয় জোট শরিকদের মধ্যে এলডিপিকে পাঁচটি, খেলাফত মজলিশকে দুটি, জমিয়তে উলামায়ে ইসলামকে তিনটি, জাতীয় পার্টিকে (কাজী জাফর) দুটি, বিজেপিকে একটি, কল্যাণ পার্টিকে একটি, এনপিপিকে একটি, লেবার পার্টিকে একটি, পিপিবিকে একটি করে আসন ছেড়ে দিয়েছে বিএনপি।

বিএনপির ২০ দলীয় জোটের এই শরিকরা ১৭টি আসনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবে। এদের মধ্যে এলডিপির চার নেতা ধানের শীষ প্রতীক নিলেও দলটির চেয়ারম্যান অলি আহমদ চট্টগ্রাম-১৪ আসনে ভোট করবেন নিজের দলের প্রতীকে।

নিবন্ধিত রাজনৈতিক দলের বাইরে জামায়াত ও নাগরিক ঐক্যের প্রার্থীরা ধানের শীষ প্রতীকে লড়ছেন।

প্রধান দুই জোটের বাইরে গণতান্ত্রিক বাম জোটের দল বাংলাদেশের কমিউনিস্ট পার্টির (সিপিবি) কাস্তে, বাংলাদেশের সমাজতান্ত্রিক দলের (বাসদ) মই এবং বাংলাদেশের বিপ্লবী ওয়ার্কার্স পার্টির কোদাল প্রতীক নিয়ে একাদশ সংসদ নির্বাচন করছেন মোট ১৩১ জন।

এছাড়া ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ হাতপাখা, বিএনএফ টেলিভিশন, বাংলাদেশ খেলাফত আন্দোলন বটগাছ, ইসলামী ঐক্যজোট মিনার, প্রগতিশীল গণতান্ত্রিক দল বাঘ, জাকের পার্টি গোলাপ ফুল, বিকল্প ধারার কয়েকজন প্রার্থী কুলা প্রতীক নিয়ে ভোটের প্রচারে আছেন।

এছাড়া স্বতন্ত্র প্রার্থীরা লটারির মাধ্যমে নিজেদের প্রতীক পেয়েছেন।

দলভিত্তিক প্রার্থী সংখ্যা বনাম প্রতীক ভিত্তিক প্রার্থী সংখ্যা

ক্রমিক

নিবন্ধিত দলের নাম

সংরক্ষিত প্রতীক

মনোনীত প্রার্থীর সংখ্যা

প্রতীক

প্রতীকের বিপরীতে প্রার্থীর সংখ্যা

১       

লিবারেল ডেমোক্রেটিক পার্টি-এলডিপি

ছাতা

ছাতা

২      

জাতীয় পার্টি - জেপি

বাইসাইকেল

১১

বাইসাইকেল

১১

৩      

বাংলাদেশের সাম্যবাদী দল (এম.এল)

চাকা

চাকা

৪       

কৃষক শ্রমিক জনতা লীগ

গামছা

গামছা

৫      

বাংলাদেশের কমিউনিস্ট পার্টি

কাস্তে

৭৪

কাস্তে

৭৪

৬      

বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ

নৌকা

২৬১

নৌকা

২৭৪

৭      

বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল-বি.এন.পি

ধানের শীষ

২৭২

ধানের শীষ

২৯৭

৮      

গণতন্ত্রী পার্টি

কবুতর

কবুতর

৯      

বাংলাদেশ ন্যাশনাল আওয়ামী পার্টি

কুঁড়েঘর

কুঁড়েঘর

১০   

বাংলাদেশের ওয়ার্কার্স পার্টি

হাতুড়ী

হাতুড়ী

১১    

বিকল্প ধারা বাংলাদেশ

কুলা

২৫

কুলা

২২

১২   

জাতীয় পার্টি

লাঙ্গল

১৭৬

লাঙ্গল

১৭৬

১৩  

জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দল-জাসদ

মশাল

১২

মশাল

১৪   

জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দল-জেএসডি

তারা

১৯

তারা

১৫

১৫   

জাকের পার্টি

গোলাপ ফুল

৯০

গোলাপ ফুল

৯০

১৬   

বাংলাদেশের সমাজতান্ত্রিক দল-বাসদ

মই

৪৫

মই

৪৫

১৭   

বাংলাদেশ জাতীয় পার্টি-বিজেপি

গরুর গাড়ী

গরুর গাড়ী

১৮   

বাংলাদেশ তরিকত ফেডারেশন

ফুলের মালা

১৭

ফুলের মালা

১৬

১৯   

বাংলাদেশ খেলাফত আন্দোলন

বটগাছ

২৩

বটগাছ

২৩

২০   

বাংলাদেশ মুসলিম লীগ

হারিকেন

৪৮

হারিকেন

৪৮

২১   

ন্যাশনাল পিপলস্‌ পার্টি (এনপিপি)

আম

৭৯

আম

৭৯

২২  

জমিয়তে উলামায়ে ইসলাম বাংলাদেশ

খেজুর গাছ

খেজুর গাছ

২৩  

গণফোরাম

উদীয়মান সূর্য

২৭

উদীয়মান সূর্য

২০

২৪   

গণফ্রন্ট

মাছ

১৩

মাছ

১৩

২৫  

প্রগতিশীল গণতান্ত্রিক দল (পিডিপি)

বাঘ

১৪

বাঘ

১৪

২৬  

বাংলাদেশ ন্যাশনাল আওয়ামী পার্টি-বাংলাদেশ ন্যাপ

গাভী

গাভী

২৭  

বাংলাদেশ জাতীয় পার্টি

কাঁঠাল

১১

কাঁঠাল

১১

                                                 ২৮

ইসলামিক ফ্রন্ট বাংলাদেশ

চেয়ার

১৮

চেয়ার

১৮

২৯  

বাংলাদেশ কল্যাণ পার্টি

হাতঘড়ি

হাতঘড়ি

৩০  

ইসলামী ঐক্যজোট

মিনার

২৪

মিনার

২৪

৩১  

বাংলাদেশ খেলাফত মজলিস

রিক্সা

রিক্সা

৩২  

ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ

হাতপাখা

২৯৮

হাতপাখা

২৯৮

৩৩ 

বাংলাদেশ ইসলামী ফ্রন্ট

মোমবাতি

২৫

মোমবাতি

২৫

৩৪  

জাতীয় গণতান্ত্রিক পার্টি-জাগপা

হুক্কা

হুক্কা

৩৫  

বাংলাদেশের বিপ্লবী ওয়ার্কার্স পার্টি

কোদাল

২৮

কোদাল

২৮

৩৬ 

খেলাফত মজলিস

দেওয়াল ঘড়ি

১২

দেওয়াল ঘড়ি

১০

৩৭  

বাংলাদেশ মুসলিম লীগ-বিএমএল

হাত (পাঞ্জা)

হাত (পাঞ্জা)

৩৮  

বাংলাদেশ সাংস্কৃতিক মুক্তিজোট

ছড়ি

ছড়ি

৩৯  

বাংলাদেশ ন্যাশনালিস্ট ফ্রন্ট-বিএনএফ

টেলিভিশন

৫৭

টেলিভিশন

৫৭