২৫ মার্চ ২০১৯, ১১ চৈত্র ১৪২৫

পাকিস্তানের বিপক্ষে মেয়েদের আধিপত্যে খুশি কোচ

  • ক্রীড়া প্রতিবেদক, বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
    Published: 2018-08-10 01:02:00 BdST

bdnews24

শুরু থেকে শেষ পর্যন্ত পাকিস্তানের ওপর ছড়ি ঘুরিয়েছেন শামসুন্নাহার-মারিয়া-মনিকারা। ম্যাচে শিষ্যদের আধিপত্য দেখে দারুণ খুশি কোচ গোলাম রব্বানী ছোটন।

ভুটানের রাজধানী থিম্পুর চাংমিলিথাং স্টেডিয়ামে বৃহস্পতিবার সাফ অনূর্ধ্ব-১৫ মহিলা ফুটবল চ্যাম্পিয়নশিপের গ্রুপ পর্বের ম্যাচে পাকিস্তানকে ১৪-০ গোলে উড়িয়ে দেয় বাংলাদেশ। প্রথমার্ধে ৬ গোল করা শামসুন্নাহার-মনিকারা দ্বিতীয়ার্ধে করে ৮ গোল।

দলের দাপুটে জয়ে মিডফিল্ডার শামসুন্নাহার ৪টি, তহুরা খাতুন, সাজেদা খাতুন ও আনাই মোগিনি দুটি করে গোল করেন। ডিফেন্ডার শামসুন্নাহার, মনিকা চাকমা, মারিয়া মাণ্ডা ও আঁখি খাতুন করেন একটি করে।

প্রতিযোগিতার বর্তমান চ্যাম্পিয়ন হিসেবে দাপুটে শুরু পেয়ে দারুণ খুশি কোচ রব্বানী। মেয়েদের খেলার উচ্ছ্বসিত প্রশংসা করেন তিনি।

“পাকিস্তানের বিপক্ষে আমাদের খেলোয়াড়েরা চমৎকার খেলেছে। তারা পুরো ৯০ মিনিট আধিপত্য করেছে। আমি আমাদের খেলার ধরণে খুশি এবং মেয়েরা ম্যাচে তাদের সর্বোচ্চটা দিয়েছে। দেশে সাত মাসের অনুশীলনে এই ফল এসেছে। “

চার গোল করে অবদান রাখতে পেরে দারুণ খুশি মিডফিল্ডার শাসমুন্নাহার। দলকে শিরোপা এনে দিতে চান এবারও।

“বড় ব্যবধানে ম্যাচ জেতায় এবং চার গোল করতে পেরে আমি ভীষণ খুশি। কোচ এবং পল স্মলিকে আমাদের অনুশীলনে যেটা শিখিয়েছেন, তার জন্য তাদেরকে ধন্যবাদ। আমি তাদের নির্দেশনা অনুযায়ী খেলেছি। হংকংয়ে আমি যেটা করতে পেরেছিলাম, সেভাবে এখানেও দলকে চ্যাম্পিয়ন করাতে চাই।”

জয়ী বাংলাদেশকে অভিনন্দন জানাতে ভোলেননি পাকিস্তানের কোচ মোহাম্মদ রশিদ।

“ম্যাচটা জেতায় বাংলাদেশের মেয়েদের অভিনন্দন। তারা গতিতে, দক্ষতায় অনেক ভালো। টেকনিক্যালি এবং ট্যাকটিক্যালি খুবই অভিজ্ঞ। পাকিস্তান নতুন দল এবং এখানে এসেছে শুধু শেখার জন্য।”


ট্যাগ:  বাংলাদেশ  অনূর্ধ্ব-১৫ ফুটবল  মহিলা ফুটবল