২১ আগস্ট ২০১৯, ৬ ভাদ্র ১৪২৬

মিলানকে হারিয়ে শিরোপার খুব কাছে ইউভেন্তুস

  • স্পোর্টস ডেস্ক, বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
    Published: 2019-04-06 23:58:42 BdST

এসি মিলানের বিপক্ষে পিছিয়ে পড়ার পর দারুণভাবে ঘুরে দাঁড়ালো ইউভেন্তুস। পাওলো দিবালার গোলে সমতায় ফেরার পর পার্থক্য গড়ে দিলেন তরুণ ফরোয়ার্ড মইজে কেন। লিগ শিরোপা ধরে রাখার আরও কাছে পৌঁছে গেল মাস্সিমিলিয়ানো আল্লেগ্রির দল।

ইউভেন্তুস স্টেডিয়ামে শনিবার স্থানীয় সময় বিকালে ২-১ গোলে জিতে স্বাগতিকরা। নভেম্বরে লিগের প্রথম পর্বে মিলানের মাঠে ২-০ গোলে জিতেছিল প্রতিযোগিতার গত সাতবারের চ্যাম্পিয়নরা।

রোববার জেনোয়ার কাছে নাপোলি হারলেই টানা অষ্টমবারের মতো সেরি আ শিরোপা ঘরে তুলবে তুরিনের ক্লাবটি।

এই নিয়ে লিগে টানা পাঁচ ম্যাচ রোনালদোকে ছাড়া খেলল ইউভেন্তুস। গত মাসের আন্তর্জাতিক বিরতিতে সার্বিয়ার বিপক্ষে ইউরো বাছাইপর্বের ম্যাচে ডান পায়ে চোট পান পর্তুগিজ ফরোয়ার্ড।

প্রথমার্ধে বল দখলে এগিয়ে থাকা মিলান ৩৯তম মিনিটে এগিয়ে যায়। সতীর্থের ছোট পাস ডি-বক্সের মুখে পেয়ে ভিতরে ঢুকেই ডান পায়ের নিচু শটে গোলটি করেন পোলিশ ফরোয়ার্ড পিওনতেক।

এরই সঙ্গে ২১ গোল নিয়ে সাম্পদোরিয়ার ফরোয়ার্ড ফাবিও কুয়াইয়েরেল্লার সঙ্গে যৌথভাবে গোলদাতার তালিকায় শীর্ষে উঠলেন তিনি।

বিরতির ঠিক আগে সমতায় ফেরার সেরা সুযোগটি পায় স্বাগতিকরা। কিন্তু মারিও মানজুকিচের বাইসাইকেল কিক ঝাঁপিয়ে কর্নারের বিনিময়ে ঠেকান গোলরক্ষক পেপে রেইনা।

দ্বিতীয়ার্ধের ষষ্ঠ মিনিটে দ্বিতীয় গোল খাওয়া থেকে বেঁচে যায় ইউভেন্তুস। ডি-বক্সের বাইরে থেকে পিওনতেকের শট ঝাঁপিয়ে কর্নারের বিনিময়ে ঠেকান পোলিশ গোলরক্ষক ভয়চেখ স্ট্যাসনি।

দিবালার সফল স্পট কিকে ৬০তম মিনিটে সমতায় ফেরে স্বাগতিকরা। ডি-বক্সে আর্জেন্টাইন এই ফরোয়ার্ড ফাউলের শিকার হলেই পেনাল্টিটি পায় তারা।

আর ৮১তম মিনিটে জয়সূচক গোলটি করেন কেন। মিরালেম পিয়ানিচের বাড়ানো বল ধরে কোনাকুনি শটে পোস্ট ঘেঁষে জাল খুঁজে নেন ১৯ বছর বয়সী এই ফরোয়ার্ড।

লিগে এই নিয়ে টানা তিন ম্যাচে গোল করলেন কেন। এরই সঙ্গে এই শতাব্দীতে পল পগবার পর দ্বিতীয় টিনএজার হিসেবে সেরি আর এক মৌসুমে ইউভেন্তুসের হয়ে পাঁচ গোল করার কীর্তি গড়লেন প্রতিভাবান ইতালিয়ান এই ফরোয়ার্ড।

সেরি আয় ঘরের মাঠে এসি মিলানের বিপক্ষে এই প্রথম টানা আট ম্যাচে জিতল ইউভেন্তুস। এর আগে ১৯৩১ থেকে ১৯৩৭ সালের মধ্যে টানা সাত ম্যাচ জিতেছিল তারা। 

৩১ ম্যাচে ২৭ জয় ও তিন ড্রয়ে শীর্ষে থাকা ইউভেন্তুসের পয়েন্ট ৮৪। ২১ পয়েন্ট কম নিয়ে দ্বিতীয় স্থানে আছে এক ম্যাচ কম খেলা নাপোলি।


ট্যাগ:  দিবালা  ইউভেন্তুস  ইতালিয়ান ফুটবল  এসি মিলান