২৫ আগস্ট ২০১৯, ১০ ভাদ্র ১৪২৬

লাওসের বিপক্ষে ম্যাচের দলে ফিরলেন মামুনুল

  • ক্রীড়া প্রতিবেদক, বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
    Published: 2019-05-23 21:13:26 BdST

bdnews24
ফাইল ছবি

গত মার্চে কম্বোডিয়ার বিপক্ষে প্রীতি ম্যাচের দলে চোটের কারণে ছিলেন না মামুনুল ইসলাম। ২০২২ সালের কাতার বিশ্বকাপ প্রাক বাছাইয়ের প্রথম পর্বে লাওসের বিপক্ষে ম্যাচের চূড়ান্ত দলে নির্ভরযোগ্য এই মিডফিল্ডারকে রেখেছেন বাংলাদেশ কোচ জেমি ডে।

আগামী ৬ জুন লাওসের মাঠে প্রথম পর্বের ম্যাচ খেলবে বাংলাদেশ। এ উপলক্ষ্যে বৃহস্পতিবার বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশনে সংবাদ সম্মেলনে চূড়ান্ত দল ঘোষণা করেন ডে।

চোটের কারণে ২৩ জনের চূড়ান্ত দলে জায়গা পাননি কম্বোডিয়ার বিপক্ষে ম্যাচের দলে থাকা তপু বর্মন, আতিকুর রহমান ফাহাদ ও শহীদুল আলম সোহেল। পারফরম্যান্স ভালো না হওয়ায় বাদ পড়েছেন সোহেল রানা, রুবেল মিয়া ও মঞ্জুর রহমান মানিক।

এএফসি কাপে চেন্নাইন এফসির বিপক্ষে দারুণ গোল করা আবাহনীর মিডফিল্ডার মামুনুল ছাড়াও ইমন বাবু, নাসিরউদ্দিন চৌধূরী ও মাজহারুল ইসলাম ফিরেছেন জাতীয় দলে। লাওস ম্যাচে মামুনুলের অভিজ্ঞতা কাজে লাগবে বলে আশা করছেন ডে।

“আমার কাছে মনে হয়, মামুনুল এ দেশের সেরা খেলোয়াড়দের একজন। কিছুদিন আগে দুর্দান্ত একটা গোল করেছে সে। তাছাড়া ও কিছুটা ওজনও কমিয়েছে। তার মতো অভিজ্ঞ খেলোয়াড় দলে প্রয়োজন। কারণ তারা জানে এ ধরনের ম্যাচে কিভাবে পরিস্থিতি সামাল দিতে হয়। সেটা মাঠে হোক কিংবা মাঠের বাইরে। ও খেলোয়াড়ের চেয়েও এই দলের জন্য বেশি কিছু।”

লাওস ম্যাচের প্রস্তুতি সারতে আগামী শুক্রবার থাইল্যান্ডে যাবে বাংলাদেশ। ২৮ মে ও ১ জুন স্থানীয় দলের সঙ্গে দুটি প্রস্তুতি ম্যাচ খেলার পর ৩ জুন লাওসে যাবে দল। লাওসে ভালো কিছু পাওয়ার আশাবাদ জানালেন ডে।

“যে তালিকাটা দেখতে পাচ্ছেন তাদের সম্পর্কে আমার ভালো ধারণা আছে। সামনে আমাদের থাইল্যান্ডে ক্যাম্পটা খুবই গুরুত্বপূর্ণ। কারণ লাওসের সঙ্গে দু’টি গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচ আমাদের খেলতে হবে। এই ম্যাচগুলোতে আমাদের জিততেই হবে বাছাইপর্বে যেতে হলে। আমি সামনের দিকে তাকিয়ে আছি।”

“থাইল্যান্ডে ছেলেদের সঙ্গে সপ্তাহ দুই কাজ করার পর আমরা লাওস যাব। শেষ কয়েকটি টুর্নামেন্টে ছেলেরা অনেক ভালো খেলেছে। আমি চাই এভাবেই দুই লেগের কোয়ালিফায়ারটা তারা ভালোভাবে উতরে যাবে।”

চোটের কারণে তপু, ফাহাদের অনুপস্থিতি দলের বাকিরা পূরণ করে দিবে বলেও আশাবাদী ডে।

“তাদের হারানোটা অবশ্যই ক্ষতি। তবে তাদের ইনজুরি অন্যদের জন্যও একটা সুযোগ, যারা এখনও নিজেদের প্রমাণ করার সুযোগ পায়নি। রাফি, ইয়াসিন ও বাদশা আছে, যারা লিগে ভালো করছে। জনি, জামাল, মামুনুল আছে ফাহাদের শূণ্যস্থান পূরণ করতে।”

বাংলাদেশ দল: আশরাফুল ইসলাম রানা, আনিসুর রহমান জিকো, মাজহারুল ইসলাম হীমেল, টুটুল হোসেন বাদশা, নাসিরউদ্দিন চৌধুরী, ইয়াসিন খান, সুশান্ত ত্রিপুরা, বিশ্বনাথ ঘোষ, রিয়াদুল হাসান রাফি, রহমত মিয়া, জামাল ভুইয়া, মাশুক মিয়া জনি, মামুনুল ইসলাম, ইমন মাহমুদ, সোহেল রানা, মোহাম্মদ ইব্রাহিম, আরিফুর রহমান, বিপলু আহমেদ, রবিউল হাসান, মতিন মিয়া, নাবিব নেওয়াজ জীবন, মাহবুবুর রহমান সুফিল ও তৌহিদুল আলাম সবুজ।


ট্যাগ:  ফুটবল  বাংলাদেশ