প্রথমবারেই প্রিমিয়ার লিগ চ্যাম্পিয়ন বসুন্ধরা কিংস

  • ক্রীড়া প্রতিবেদক, বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
    Published: 2019-07-25 18:03:40 BdST

bdnews24

অবশেষে অপেক্ষা ফুরাল বসুন্ধরা কিংসের। মোহামেডান স্পোর্টিংয়ের সঙ্গে ড্র করে বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগে নিজেদের অভিষেক আসরেই বাজিমাত করেছে নবাগত দলটি। দুই ম্যাচ বাকি থাকতে জিতে নিয়েছে শিরোপা।

নীলফামারীর শেখ কামাল স্টেডিয়ামে আগের দিন বৃষ্টি ও বজ্রপাতের কারণে দুই দলের মধ্যে লিগের দ্বিতীয় পর্বের ম্যাচ মিনিট তিনেক চলার পর স্থগিত হয়ে যায়। বৃহস্পতিবার বাকি সময়ের খেলা ১-১ ড্র হয়। প্রথম পর্বে মোহামেডানকে ৪-১ গোলে উড়িয়ে দিয়েছিল বসুন্ধরা।

আগের দিন চট্টগ্রাম আবাহনীর সঙ্গে আবাহনী লিমিটেড ড্র করায় বসুন্ধরার সামনে সমীকরণ আরও সহজ হয়ে যায়। শিরোপা জিততে তিন ম্যাচে দরকার ছিল ১ পয়েন্টের। শুরুতে পিছিয়ে পড়লেও পরে ঘুরে দাঁড়িয়ে প্রয়োজনীয় পয়েন্ট তুলে নেয় বাংলাদেশ চ্যাম্পিয়নশিপ লিগে সেরা হয়ে এবারই লিগে উঠে আসা দলটি।

এবারের লিগে বসুন্ধরার হোম ভেন্যু শেখ কামাল স্টেডিয়ামে ঝিরঝির বৃষ্টি উপেক্ষা করে আসা সমর্থকদের মন প্রথমার্ধে ভরাতে পারেনি বসুন্ধরা। লক্ষ্যভ্রষ্ট শটে, দূরপাল্লার প্রচেষ্টায় হতাশ করতে থাকেন মার্কোস দি সিলভা, দেনিয়েল কলিনদ্রেস সোলেরারা।

চতুর্দশ মিনিটে এগিয়ে যায় লিগের শেষ দিকে ছন্দ ফিরে পাওয়া মোহামেডান। তকলিস আহমেদের শট গোলরক্ষক ফেরালেও বিপদমুক্ত করতে পারেননি। ফাঁকায় থাকা মালির ফরোয়ার্ড সুলেমানে দিয়াবাতে অনায়াসে জাল খুঁজে নেন। ৩৫তম মিনিটে জাহিদ হাসান এমিলির ক্রসে তকলিসের দুর্বল হেডে ব্যবধান দ্বিগুণ হয়নি।

৪১তম মিনিটে সমতার স্বস্তি ফেরে বসুন্ধরার শিবিরে। সোলেরার কর্নারে ছোট ডি-বক্সের মধ্যে থেকে হেডে লক্ষ্যভেদ করেন দি সিলভা। প্রথমার্ধের যোগ করা সময়ে ব্রাজিলিয়ান এই ফরোয়ার্ডের আরেকটি প্রচেষ্টা জমে যায় গোলরক্ষকের গ্লাভসে।

কর্দমাক্ত মাঠে দুই দলের দ্বিতীয়ার্ধের খেলায় আক্রমণের ধার তেমন একটা ছিল না। শেষ পর্যন্ত প্রথমার্ধের স্কোরলাইন ধরে রেখে শিরোপা উৎসবে মাতে বসুন্ধরা।

২০০৭ সালে প্রিমিয়ার লিগ শুরু হওয়ার পর এই প্রথম ঢাকার বাইরে শিরোপা উৎসব হলো। শিরোপা জয়ের পথে এর আগে টানা ১৪ ম্যাচ জয়ের রেকর্ড গড়ে বসুন্ধরা।

২২ ম্যাচে ১৯ জয়, দুই ড্র ও হারে ৫৯ পয়েন্ট বসুন্ধরার; দলটির হাতে আরও দুই ম্যাচ আছে পয়েন্ট আরও বাড়িয়ে নেওয়ার জন্য। ২৩ ম্যাচে ৫৫ পয়েন্ট নিয়ে দ্বিতীয় স্থানে আছে গতবারের চ্যাম্পিয়ন আবাহনী।

চলতি লিগে এ পর্যন্ত বসুন্ধরাকে একমাত্র হারের স্বাদ দেয় শেখ রাসেল ক্রীড়া চক্র। দলটির প্রথম ড্র ছিল টিম বিজেএমসির সঙ্গে, গত ফেব্রুয়ারিতে।

২০১৬ সালে পাইওনিয়ার লিগ দিয়ে ঘরোয়া ফুটবলে যাত্রা শুরু করা বসুন্ধরা প্রথমবারই তৃতীয় বিভাগে খেলার সুযোগ পেয়ে যায়। তবে তাদের আবেদনের প্রেক্ষিতে বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশন দ্বিতীয় স্তরের টুর্নামেন্ট চ্যাম্পিয়নশিপ লিগের ২০১৭ সালের আসরে খেলার সুযোগ দেয়। সেখানে সেরা হয়ে লিগে উঠে আসে বসুন্ধরা গ্রুপের দলটি।

রোল অব অনার:

২০১৮-১৯: বসুন্ধরা কিংস

২০১৭-১৮: আবাহনী লিমিটেড

২০১৬: আবাহনী লিমিটেড

২০১৪-১৫: শেখ জামাল

২০১৩-১৪: শেখ জামাল

২০১২-১৩: শেখ রাসেল

২০১২: আবাহনী লিমিটেড

২০১০-১১: শেখ জামাল

২০০৯-১০: আবাহনী লিমিটেড

২০০৮-০৯: আবাহনী লিমিটেড

২০০৭: আবাহনী লিমিটেড

# ২০০৭ সাল থেকে বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগ চালুর পর থেকে


ট্যাগ:  বসুন্ধরা কিংস  ফুটবল  মোহামেডান