নারীদের চার যুগের অপেক্ষার অবসানের ম্যাচে ইরানের গোল উৎসব

  • স্পোর্টস ডেস্ক, বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
    Published: 2019-10-11 00:30:13 BdST

চার যুগের বেশি সময় পর মাঠে বসে পুরুষদের ফুটবল দেখলেন ইরানের নারীরা। গোল উৎসবে উপলক্ষ্য রাঙালেন দেশটির খেলোয়াড়রা। বিশ্বকাপ বাছাই পর্বে একপেশে ম্যাচে উড়িয়ে দিলেন কম্বোডিয়াকে। 

আজাদি স্টেডিয়ামে বৃহস্পতিবার ১৪-০ গোলে জিতেছে ইরান। আন্তর্জাতিক ফুটবলে এটাই কম্বোডিয়ার সবচেয়ে বড় হার।

১৯৭৯ সালে ইরানে ইসলামী বিপ্লবের পর থেকে মাঠে বসে পুরুষদের ফুটবল দেখতে পারছিলেন না দেশটির নারীরা। এই ম্যাচ দিয়ে তাদের জন্য খুলে গেল স্টেডিয়ামের দুয়ার। তিন হাজারের বেশি নারী খেলা দেখেন তাদের জন্য নির্দিষ্ট করে রাখা একটি গ্যালারিতে বসে।

গোটা ব্যাপারটি যেন ঠিকঠাক হয় তার তদারকির জন্য উপস্থিত ছিল বিশ্ব ফুটবলের নিয়ন্ত্রক সংস্থা ফিফার প্রতিনিধি দল। মাঠে বসে খেলা দেখার সুযোগ পেয়ে উদ্বেল ছিলেন ইরানের নারীরা।

এশিয়ার ফুটবল পরাশক্তি ইরানের ফুটবল পাগল দর্শকরা অধীর আগ্রহে এই ম্যাচের অপেক্ষায় ছিলেন। পতাকা শোভিত ছিল গ্যালারি। ভুজুজেলার শব্দে উচ্চকিত হয়েছে স্টেডিয়াম। দলের রঙ লাল, সবুজ আর সাদায় সেজেছিল গ্যালারি। তেহরানে ছিল উৎসব মুখর পরিবেশ। সেটা আরও রাঙিয়ে চার গোল করেন স্ট্রাইকার করিম আনসারইফরাদ। হ্যাটট্রিক করেন সরদার আজমাউন।

পঞ্চম মিনিটে মার্ক উইলমটসের দলকে এগিয়ে নেন আহমাদ নুরুল্লাহি। এরপর একে একে গোল উৎসবে যোগ দেন তার সতীর্থরা। দুই অর্ধে সমান সাতটি করে গোল করে স্বাগতিকরা।

দাপুটে ফুটবল খেলে ফল নিয়ে শঙ্কা শুরুতেই উড়িয়ে দেয় ইরান। তবে গ্যালারিতে ছিল আবেগের বন্যা। দেশটির নারীদের জন্য এটা কেবলই শুরু, সব বন্ধুদের নিয়ে গ্যালারিতে বসে নিয়মিত খেলা দেখতে চান তারা।


ট্যাগ:  ইরান  বিশ্বকাপ বাছাই  আন্তর্জাতিক ফুটবল