২০ নভেম্বর ২০১৯, ৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৬

মেসি-সুয়ারেস-গ্রিজমানের গোলে শীর্ষে বার্সা

  • স্পোর্টস ডেস্ক, বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
    Published: 2019-10-19 18:52:58 BdST

একক নৈপুণ্যে শুরুটা করলেন অঁতোয়ান গ্রিজমান। দ্বিতীয়ার্ধে আক্রমণত্রয়ীর দারুণ বোঝাপড়ায় জালের দেখা পেলেন লিওনেল মেসি ও লুইস সুয়ারেস। এইবারকে উড়িয়ে লা লিগার পয়েন্ট তালিকায় শীর্ষে উঠলো বার্সেলোনা।

এইবারের মাঠে শনিবার লিগে ৩-০ গোলে জিতেছে এরনেস্তো ভালভেরদের দল। মুকুট ধরে রাখার মিশনে বার্সেলোনার এটি টানা চতুর্থ ও আসরে মোট ষষ্ঠ জয়। টানা তৃতীয় ম্যাচে জাল অক্ষত রাখলো দলটি।

গত মৌসুমে লিগের শেষ রাউন্ডে বার্সেলোনাকে ঘরের মাঠে পেয়ে ২-২ এ রুখে দিয়েছিল এইবার।

গ্রিজমানের দারুণ গোলে ম্যাচের ত্রয়োদশ মিনিটে এগিয়ে যায় বার্সেলোনা। নিজেদের সীমানা থেকে স্বদেশি ডিফেন্ডার ক্লেমোঁ লংলের উঁচু করে বাড়ানো থ্রু বল প্রথম টোকায় ডি-বক্সে বাড়িয়ে, দ্বিতীয় টোকায় নিয়ন্ত্রণে নিয়ে জোরালো শটে কাছের পোস্ট দিয়ে ঠিকানা খুঁজে নেন ফরাসি ফরোয়ার্ড। বল গোলরক্ষকের পায়ে লেগে পোস্টের ভিতরের কানা ছুঁয়ে জালে জড়ায়।

ছবি: বার্সেলোনা টুইটার

ছবি: বার্সেলোনা টুইটার

গত জুলাইয়ে কাম্প নউয়ে আসা গ্রিজমানের এটি নতুন ঠিকানায় চতুর্থ গোল।

৩১তম মিনিটে একজনকে ফাঁকি দিয়ে ডি-বক্সে ঢুকে গোলরক্ষককেও প্রায় কাটিয়ে ফেলেছিলেন মেসি। তবে হাত বাড়িয়ে তার পা থেকে বল সরিয়ে দেন সার্ব গোলরক্ষক মার্ক দিমিত্রোভিচ। ওই আক্রমণেই আরেক দফা বল নিয়ে বাঁদিক দিয়ে ডি-বক্সে ঢুকে পড়েন আর্জেন্টাইন তারকা, এবার এক ডিফেন্ডারের স্লাইড ট্যাকলে পড়ে যান বার্সেলোনা অধিনায়ক।

দ্বিতীয়ার্ধের একাদশ মিনিটে ডানদিক থেকে ফ্রেংকি ডি ইয়ংয়ের পাস ডি-বক্সে ফাঁকায় পেয়ে সুয়ারেসের নেওয়া শট ঝাঁপিয়ে ঠেকান গোলরক্ষক। দুই মিনিট পর গোছানো আক্রমণে ব্যবধান দ্বিগুণ করে বার্সেলোনা।

ডি-বক্সে সুয়ারেসের থেকে বল পেয়ে ছোট করে বাঁ দিকে বাড়ান গ্রিজমান। ঠান্ডা মাথায় কোনাকুনি শটে গোলরক্ষককে পরাস্ত করেন অরক্ষিত মেসি।

ছবি: বার্সেলোনা টুইটার

ছবি: বার্সেলোনা টুইটার

গতবারের পিচিচি ট্রফি ও ইউরোপিয়ান গোল্ডেন শু জয়ীর চলতি মৌসুমে এটি দ্বিতীয় গোল। এইবারের বিপক্ষে লিগে ১০ ম্যাচে তার গোল হলো ১৬টি।

আট মিনিট পর আবারও বার্সেলোনার আক্রমণত্রয়ীর ঝলক এবং স্কোরলাইন ৩-০।

মাঝমাঠের আগে থেকে গ্রিজমানের থ্রু বল ধরে ডি-বক্সে ঢুকে গোলরক্ষককে একা পেয়েছিলেন মেসি। তবে আরও নিশ্চিত হতে শট না নিয়ে বাঁদিকে সুয়ারেসকে পাস দেন তিনি। প্রথম ছোঁয়ায় কোনাকুনি শটে স্কোরলাইনে নাম লেখান উরুগুয়ের স্ট্রাইকার। আসরে এটা তার পঞ্চম গোল।

৮৫তম মিনিটে ব্যবধান আরও বাড়তে পারতো। তবে মেসির পাস ডি-বক্সে পেয়ে সুয়ারেসের নেওয়া শট অল্পের জন্য লক্ষ্যভ্রষ্ট হয়।

৯ ম্যাচে ছয় জয় ও এক ড্রয়ে শীর্ষে ওঠা বার্সেলোনার পয়েন্ট ১৯। দিনের পরের ম্যাচে মায়োর্কার মাঠে জিতলে অবশ্য শীর্ষে ফিরবে রিয়াল মাদ্রিদ।


ট্যাগ:  স্প্যানিশ ফুটবল  বার্সেলোনা  সুয়ারেস  গ্রিজমান  মেসি  লা লিগা