ভালেন্সিয়ার মাঠে বার্সেলোনার হার

  • স্পোর্টস ডেস্ক, বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
    Published: 2020-01-25 22:56:11 BdST

bdnews24

হঠাৎ করে যেন খেই হারিয়েছে বার্সেলোনা। রক্ষণ নড়বড়ে, আক্রমণে নেই ধার। প্রথমার্ধে খুঁজেই পাওয়া গেল না স্প্যানিশ চ্যাম্পিয়নদের। দ্বিতীয়ার্ধে খেলায় একটু উন্নতি হলেও ভালেন্সিয়ার বিপক্ষে হার এড়াতে পারেনি কিকে সেতিয়েনের দল। 

লা লিগার ম্যাচে শনিবার ২-০ গোলে জিতেছে ভালেন্সিয়া। গোলশূন্য প্রথমার্ধের পর আত্মঘাতী গোলে এগিয়ে যায় স্বাগতিকরা। পরে ব্যবধান বাড়ান মাক্সি গোমেস।

সবশেষ ছয় ম্যাচে বার্সেলোনার জয় কেবল দুটি। ড্র করেছে তিনটিতে, এবার তো হেরেই গেল।

প্রতিপক্ষের মাঠে শুরুতেই পিছিয়ে পড়তে পারত বার্সেলোনা। নবম মিনিটে বাঁদিকে ঝাঁপিয়ে গোমেসের পেনাল্টি শট ঠেকিয়ে দেন মার্ক-আন্ড্রে টের স্টেগেন। হোসে গায়াকে ডিফেন্ডার জেরার্দ পিকে ফাউল করায় পেনাল্টি পেয়েছিল ভালেন্সিয়া।

প্রথমার্ধে বিবর্ণ বার্সেলোনা পিছিয়ে যায়নি মূলত টের স্টেগেনের দারুণ দক্ষতায়। পেনাল্টি বাঁচানোর পর আরও দুইবার দলকে রক্ষা করেন জার্মান এই গোলকিপার।

২৯তম মিনিটে গোমেসের শট টের স্টেগেনের গ্লাভস ছুঁয়ে পোস্টে লেগে ফিরে। খানিক পর কেভিন গামেইরোর শট ঝাঁপিয়ে কোনোমতে ব্যর্থ করে দেন বার্সেলোনা গোলকিপার।

৩৫তম মিনিটে লক্ষ্যে প্রথম শট নিতে পারে বার্সেলোনা। লিওনেল মেসির দুর্বল শট সহজেই ফেরান ভালেন্সিয়া গোলকিপার।

দ্বিতীয়ার্ধে প্রথম মিনিটেই আক্রমণে যায় বার্সেলোনা। পরের মিনিটে গোমেসের শট জর্দি আলবার গায়ে লেগে দিক পাল্টে জড়ায় জালে।

৫৬তম মিনিটে দুর্দান্ত এক স্লাইডে মেসিকে জালের দেখা পেতে দেননি গাব্রিয়েল পাউলিস্তা। তিন মিনিট পর বার্সেলোনা অধিনায়কের কোনাকুনি শট একটুর জন্য লক্ষ্যে থাকেনি। ৬৯তম মিনিটে বিপজ্জনক জায়গা থেকে হেড লক্ষ্যে রাখতে পারেননি মেসি।

প্রতি-আক্রমণে ৭৭তম মিনিটে ব্যবধান দ্বিগুণ করে ভালেন্সিয়া। তোরেসের বাড়ানো বল ধরে কোনাকুনি শটে জাল খুঁজে নেন অরক্ষিত গোমেস। কোনো সুযোগই ছিল না টের স্টেগেনের। 

২১ ম্যাচে ৪৩ পয়েন্ট নিয়ে এখনও পয়েন্ট তালিকার শীর্ষে আছে বার্সেলোনা। এক ম্যাচ কম খেলা রিয়াল মাদ্রিদেরও পয়েন্ট ৪৩।

বার্সেলোনাকে হারিয়ে ৩৪ পয়েন্ট নিয়ে পাঁচ নম্বরে ওঠে এসেছে ভালেন্সিয়া।


ট্যাগ:  স্প্যানিশ ফুটবল  বার্সেলোনা  লা লিগা  ভালেন্সিয়া