গ্রানাদাকে হারিয়ে শিরোপা থেকে ২ পয়েন্ট দূরে রিয়াল

  • স্পোর্টস ডেস্ক, বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
    Published: 2020-07-14 03:57:49 BdST

ম্যাচের শুরুতেই চমৎকার দুটি গোল করা রিয়াল মাদ্রিদ খেই হারালো দ্বিতীয়ার্ধে। সেই সুযোগে একের পর এক আক্রমণে ভীতি ছড়ালো গ্রানাদা। শিরোপাপ্রত্যাশীদের রুখে দেওয়ার সম্ভাবনাও জাগিয়েছিল তারা। শেষ পর্যন্ত অবশ্য কাঙ্ক্ষিত জয়ে লিগ শিরোপার খুব কাছে পৌঁছে গেছে জিনেদিন জিদানের দল।

প্রতিপক্ষের মাঠে সোমবার রাতে লা লিগার ম্যাচটি ২-১ গোলে জিতেছে রিয়াল। ফেরলঁদ মঁদির গোলে দলটি এগিয়ে যাওয়ার পর ব্যবধান দ্বিগুণ করেন করিম বেনজেমা। স্বাগতিকদের একমাত্র গোলদাতা দারউইন মাচিস।

কষ্টের জয়ে বার্সেলোনা থেকে আবারও ৪ পয়েন্টে এগিয়ে গেল রিয়াল। ৩৬ ম্যাচে তাদের পয়েন্ট হলো ৮৩। দুইয়ে থাকা গত দুবারের চ্যাম্পিয়নদের পয়েন্ট ৭৯।

শেষ দুই রাউন্ডে আর ২ পয়েন্ট পেলে অন্য কোনো হিসেব ছাড়াই দুই বছর পর লিগ শিরোপা ঘরে তুলবে রিয়াল।

অনাকাঙ্ক্ষিত বিরতির পর পুনরায় শুরু হওয়া লিগে দারুণ ছন্দে এগিয়ে চলা রিয়াল ১৬ মিনিটের মধ্যে ২-০ গোলে এগিয়ে যায়।

দশম মিনিটে একক নৈপুণ্যে দলকে এগিয়ে নেন মঁদি। বাঁ দিক দিয়ে এক পা দু-পা করে অনেকটা এগিয়ে ডি-বক্সের সামনে গিয়ে আচমকা লম্বা করে বল বাড়িয়ে দারুণ ক্ষিপ্রতায় ছুটে যান তিনি। দুরূহ কোণ থেকে জোরালো শটে পোস্ট ঘেঁষে ঠিকানা খুঁজে নেন ফরাসি এই লেফট-ব্যাক।

গত বছরের জুনে লিওঁ থেকে বের্নাবেউয়ে যোগ দেওয়া মঁদির রিয়ালের হয়ে এটা প্রথম গোল।

ছয় মিনিট পর আরেকটি দারুণ গোলে ব্যবধান দ্বিগুণ করে শিরোপার পথে ছুটে চলা দলটি। ডান দিক থেকে লুকা মদ্রিচের বাড়ানো ক্রস ধরে ডি-বক্সে ঢুকে এক ঝটকায় সঙ্গে লেগে থাকা ডিফেন্ডারের বাধা এড়িয়ে জোরালো উঁচু শটে গোলটি করেন বেনজেমা। আসরে ফরাসি ফরোয়ার্ডের এটি ১৯তম গোল।

৩৬তম মিনিটে পাল্টা আক্রমণে রিয়াল গোলরক্ষক থিবো কোর্তোয়ার পরীক্ষা নেন দোমিঙ্গোস দুয়ার্তে। পর্তুগিজ এই ডিফেন্ডারের হেড বাঁ দিকে ঝাঁপিয়ে ঠেকান বেলজিয়াম গোলরক্ষক। বিরতির খানিক আগে বেনজেমার আরেকটি দারুণ শট কর্নারের বিনিময়ে ঠেকিয়ে ব্যবধান বাড়তে দেননি গ্রানাদা গোলরক্ষক রুই সিলভা।

দ্বিতীয়ার্ধের পঞ্চম মিনিটে ব্যবধান কমিয়ে লড়াই জমিয়ে তোলে গ্রানাদা। মাঝমাঠে কাসেমিরোর হারানো বল ধরে মিডফিল্ডার এররেরা দ্রুত এগিয়ে বাড়ান মাচিসকে। ডি-বক্সে ঢুকে বাঁ দিক দিয়ে নিচু শটে কোর্তোয়ার পায়ের ফাঁক দিয়ে বল জালে পাঠান ভেনেজুয়েলার এই ফরোয়ার্ড।

৫০৭ মিনিট পর গোল হজম করলেন কোর্তোয়া। পাঁচ ম্যাচ পর বল ঢুকল রিয়ালের জালে।

গোল পেয়ে যেন নতুন উদ্যমে জেগে ওঠে গ্রানাদা। পরের ১৫ মিনিটে বেশ কয়েকটি ভালো আক্রমণ করে তারা। সেই ঝাপটা সামলাতে ভালোই বেগ পেতে হয় রিয়ালের।

৮৫তম মিনিটে স্প্যানিশ ফরোয়ার্ড আন্তোনিনের হাফ-ভলি কোর্তোয়া ঝাঁপিয়ে ঠেকালেও বিপদমুক্ত করতে পারেননি। সতীর্থের পা ঘুরে ডি-বক্সে বল পেয়ে যান নাইজেরিয়ার মিডফিল্ডার রেমন আজিজ। তার শট গোললাইন থেকে ফিরিয়ে মূল্যবান ৩ পয়েন্ট নিশ্চিত করেন রিয়াল অধিনায়ক সের্হিও রামোস।

করোনাভাইরাস বিরতির পর ‘নতুন রূপে’ ফেরা লিগে ৯ ম্যাচ খেলে সবকটিতেই জিতল রিয়াল। জয়ের ধারা ধরে রাখতে পারলে আগামী বৃহস্পতিবার ঘরের মাঠে শিরোপা জয়ের আনন্দে ভাসবে জিদান ও তার দল। সেদিন ভিয়ারিয়ালের মুখোমুখি হবে সবশেষ ২০১৭ সালে লিগ জেতা মাদ্রিদের দলটি।


ট্যাগ:  স্প্যানিশ ফুটবল  রিয়াল মাদ্রিদ  বেনজেমা  লা লিগা