দুঃখ ও গর্বের মিশ্র অনুভূতি আতালান্তা কোচের

  • স্পোর্টস ডেস্ক, বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
    Published: 2020-08-13 16:14:20 BdST

bdnews24

শেষ দিকে গোল হজম করে চ্যাম্পিয়ন্স লিগে থেমেছে স্বপ্নযাত্রা। স্বাভাবিকভাবেই হতাশ আতালান্তা কোচ জান পিয়েরো গাসপেরিনি। তবে শিষ্যদের দারুণ খেলা, পিএসজিকে কাঁপিয়ে দেওয়ার গর্বও অনুভব করছেন তিনি।

চ্যাম্পিয়ন্স লিগের কোয়ার্টার-ফাইনালে গত বুধবার শুরুতে এগিয়ে গেলেও শেষ দিকে দুই গোল হজম করে পিএসজির কাছে ২-১ ব্যবধানে হারে আতালান্তা।

২৬তম মিনিটে মারিও পালাসিচের গোল এগিয়ে নেয় আতালান্তাকে। দ্বিতীয়ার্ধের শেষ মিনিটে মার্কিনিয়োসের লক্ষ্যভেদে সমতায় ফেরা পিএসজি জয়ের বন্দরে পৌঁছে যায় এরিক মাক্সিম চুপো-মেটিংয়ের যোগ করা সময়ের গোল। শেষ দিকে স্বপ্ন গুঁড়িয়ে যাওয়ায় ভীষণ হতাশ আতালান্তা কোচ।

“খুব খারাপ লাগছে। মনে হচ্ছিল, আমরা কাঙিক্ষত লক্ষ্যে প্রায় পৌঁছে গেছি। সেটা করতে পারলে দারুণ একটা অর্জন হতো।”

“তবে এখনও আমাদের এই স্মৃতিটুকু আছে যে, চ্যাম্পিয়ন্স লিগে ইউরোপের কিছু বড় দলের বিপক্ষে লড়াইয়ে একটা দল হিসেবে আমরা বেড়ে উঠেছি এবং এজন্য আমি কেবল আমার ছেলেদেরকে ধন্যবাদই জানাতে পারি।”

শুরুতে বেঞ্চে থাকা দলের অন্যতম ফরোয়ার্ড কিলিয়ান এমবাপেকে ৬০তম মিনিটে বদলি নামায় পিএসজি। এমবাপের খেলা গুরুত্বপূর্ণ ছিল বলেও মনে করেন গাসপেরিনি।

“ম্যাচ শেষের খুব বেশি সময় বাকি ছিল না এবং মনে হচ্ছিল আমরা পেরেছি। কিন্তু যখন টেকনিক্যাল ও অ্যাথলেটিক পর্যায়ে আপনি বিশ্বের কিছু শক্তিশালী দলের বিপক্ষে খেলবেন, তখন এটা কঠিন হয়ে যায়।”

“এমবাপের মাঠে নামাটা ছিল ফল নির্ণায়ক। কিন্তু আমরা যা করতে চেয়েছিলাম করেছি, তাদের সঙ্গে সমানে সমান লড়াই করেছি…এর চেয়ে বেশি কিছু করা কঠিন।”

চ্যাম্পিয়ন্স লিগের পরের মৌসুমে আরও শক্তিশালী হয়ে ফেরার আশাবাদও জানিয়েছেন আতালান্তা কোচ।

“আমরা খুশি এবং পরের বছর আমরা উন্নতির লক্ষ্যে পুনরায় শুরু করব। বোঝাতে চাইছি, আমরা নিজেদের খেলার উন্নতি করব।”


ট্যাগ:  চ্যাম্পিয়ন্স লিগ  আতালান্তা  পিএসজি