লেস্টারে ধরাশায়ী ম্যানচেস্টার সিটি

  • স্পোর্টস ডেস্ক, বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
    Published: 2020-09-27 23:26:47 BdST

লিগ শিরোপা পুনরুদ্ধারের অভিযানে ঘরের মাঠে প্রথম খেলতে নেমে বড় হারের তিক্ত স্বাদ পেয়েছে ম্যানচেস্টার সিটি। শুরুতে পিছিয়ে পড়েও জেমি ভার্ডির হ্যাটট্রিকে অসাধারণ এক জয় নিয়ে ফিরেছে লেস্টার সিটি।

ইতিহাদ স্টেডিয়ামে স্থানীয় সময় রোববার বিকেলে হওয়া প্রিমিয়ার লিগের ম্যাচটি ৫-২ গোলে জেতে ২০১৫-১৬ মৌসুমের চ্যাম্পিয়নরা।

২০০৩ সালের ফেব্রুয়ারির পর এই প্রথম ঘরের মাঠে পাঁচ গোল খেল সিটি। সেবার আর্সেনালের বিপক্ষে ৫-১ গোলে হেরেছিল তারা। আর পেপ গুয়ার্দিওলা তার কোচিং ক্যারিয়ারে ৬৮৬ ম্যাচে এই প্রথম পাঁচ গোল হজম করলেন।

উলভারহ্যাম্পটন ওয়ানডারার্সের মাঠে ৩-১ গোলের জয় দিয়ে লিগ শুরু করা সিটি ঘরের মাঠে খেলতে নেমে চতুর্থ মিনিটেই পায় গোলের দেখা। দারুণ এক গোলে দলকে এগিয়ে নেন মৌসুমে প্রথম লিগ ম্যাচ খেলতে নামা রিয়াদ মাহরেজ। কেভিন ডে ব্রুইনের কর্নার ঠিকমতো ক্লিয়ার করতে পারেনি লেস্টারের খেলোয়াড়রা। ডি-বক্সের ভেতর থেকে মাহরেজের ডান পায়ের বুলেট গতির শট পোস্টের ভেতরের দিকে লেগে জালে জড়ায়।

প্রথম আধা ঘণ্টায় ব্যবধান বাড়ানোর আরও দুটি সুযোগ এসেছিল সিটির সামনে। তবে গোলরক্ষক বরাবর শট মারেন রাহিম স্টার্লিং ও ফের্নান্দিনিয়ো। সুযোগ হাতছাড়া করেন লেস্টারের জেমস জাস্টিনও।

৩৫তম মিনিটে ডে ব্রুইনের ফ্রি-কিক থেকে রদ্রি হেডে বল জালে পাঠালেও অফসাইডের কারণে গোল পায়নি সিটি।

এরপরই ভার্ডির সফল স্পট-কিকে ম্যাচে ফেরে লেস্টার। ডি-বক্সে ইংলিশ এই ফরোয়ার্ডকে সিটির ডিফেন্ডার কাইল ওয়াকার পেছন থেকে ফাউল করলে পেনাল্টির বাঁশি বাজিয়েছিলেন রেফারি।

প্রথমার্ধে ৭৩ শতাংশ বল দখলে রেখে আক্রমণে আধিপত্য করলেও আর জালের দেখা পায়নি সিটি।

উল্টো দ্বিতীয়ার্ধে চার মিনিটের মধ্যে দুই গোল খেয়ে বসে স্বাগতিকরা। ৫৪তম মিনিটে ডান দিক থেকে সতীর্থের বাড়ানো বল খুব কাছ থেকে জালে পাঠিয়ে দলকে এগিয়ে নেন ভার্ডি।

একটু পর আরেকটি সফল স্পট-কিকে হ্যাটট্রিক পূরণ করেন তিনি। নিজেই ফাউলের শিকার হয়েছিলেন ভার্ডি।   

৬৫তম মিনিটে ভাগ্যের ফেরে গোলবঞ্চিত হয় সিটি। দ্বিতীয়ার্ধে বদলি নামা লিয়াম ডেলাপের হেড লাগে পোস্টে।

৭৭তম মিনিটে দারুণ এক গোলে ব্যবধান আরও বাড়ান জেমস ম্যাডিনসন। ডি-বক্সের বাইরে থেকে জোরালো শটে ঠিকানা খুঁজে নেন এই ইংলিশ মিডফিল্ডার।

৮৪তম মিনিটে ব্যবধান কমান নাথান আকে। আর নির্ধারিত সময়ের দুই মিনিট বাকি থাকতে পেনাল্টি থেকে গোল করে সফরকারীদের বড় জয় নিশ্চিত করেন তিয়েলেমান্স।

তিন ম্যাচে তিন জয়ে ৯ পয়েন্ট নিয়ে শীর্ষে আছে লেস্টার। ৩ পয়েন্ট নিয়ে ১৩তম স্থানে আছে সিটি।

দিনের আরেক ম্যাচে শেফিল্ড ইউনাইটেডের মাঠে ১-০ গোলে জেতা লিডস ইউনাইটেড ৬ পয়েন্ট নিয়ে ছয় নম্বরে আছে। নিউক্যাসল ইউনাইটেডের সঙ্গে ১-১ ড্র করে ৪ পয়েন্ট নিয়ে সাতে আছে টটেনহ্যাম হটস্পার।


ট্যাগ:  ইংলিশ ফুটবল  মাহরেজ  ইপিএল  ম্যানচেস্টার সিটি  ভার্ডি