টানা ৪ জয়ে নকআউট পর্বে বার্সা

  • স্পোর্টস ডেস্ক, বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
    Published: 2020-11-25 03:54:40 BdST

লা লিগায় ভুগলেও চ্যাম্পিয়ন্স লিগে অন্য চেহারায় দেখা যাচ্ছে বার্সেলোনাকে। লিওনেল মেসিসহ প্রথম পছন্দের বেশ কয়েকজনকে ছাড়াই তারা ধরে রাখলো জয়ের ধারা। দিনামো কিয়েভকে হারিয়ে শেষ ষোলোয় পৌঁছে গেছে রোনাল্ড কুমানের দল।

দিনামোর মাঠে মঙ্গলবার রাতে ‘জি’ গ্রুপের ম্যাচে ৪-০ গোলে জিতেছে বার্সেলোনা। মৌসুমে প্রথমবারের মতো শুরুর একাদশে নামা স্ট্রাইকার মার্টিন ব্রাথওয়েট করেন জোড়া গোল। একটি করে গোল করেন অঁতোয়ান গ্রিজমান ও সের্জিনো দেস্ত।

লা লিগায় আতলেতিকো মাদ্রিদের বিপক্ষে হেরে যাওয়া দল থেকে সাতটি পরিবর্তন আনেন কুমান। প্রায় দ্বিতীয় সারির দল নিয়েও আক্রমণাত্মক ফুটবল খেলে বার্সেলোনা। তবে প্রথমার্ধে ৭৩ শতাংশ সময় বল পায়ে রাখলেও পরিষ্কার কোনো সুযোগ তৈরি করতে পারেনি তারা।

বেশিরভাগ সময় ২১ জন খেলোয়াড় ছিলেন এক অর্ধে। পুরোপুরি রক্ষণাত্মক ফুটবল খেলা দিনামোর রক্ষণ ভাঙার সৃজনশীলতা দেখাতে পারেননি ফিলিপে কৌতিনিয়ো, পেদ্রি, ফ্রান্সিসকো ত্রিনকাওরা। 

২৮তম মিনিটে ডি-বক্সের বাইরে থেকে চেষ্টা করেন কৌতিনিয়ো। তার বাঁকানো শট একটুর জন্য লক্ষ্যে থাকেনি। সাত মিনিট পর ত্রিনকাওয়ের শট ফেরান গোলরক্ষক। স্ট্রাইকার ব্রাথওয়েট ছোটাছুটি করেছেন বেশ, কিন্তু তাকে ফাইনাল পাস দিতে পারেননি কেউই। 

কাম্প নউয়ে প্রতি-আক্রমণে বার্সেলোনাকে কাঁপিয়ে দিয়েছিল দিনামো। ঘরের মাঠে তাদের প্রতি-আক্রমণগুলো ছিল ধারহীন। বেশিরভাগই রুখে দিয়েছে নতুন চেহারার রক্ষণ। জেরার্দ পিকে, সের্হিও রবের্তো,  জর্দি আলবাদের অনুপস্থিতি বুঝতেই দেননি অস্কার মিনগেসা, জুনিয়র ফিরপো ও দেস্ত।

যোগ করা সময়ে দারুণ একটি সুযোগ এসেছিল কার্লোস দে পেনার সামনে। তার শট ঝাঁপিয়ে ফেরান এই ম্যাচে বার্সেলোনাকে নেতৃত্ব দেওয়া গোলরক্ষক মার্ক-আন্ড্রে টের স্টেগেন।

দ্বিতীয়ার্ধে শুরু থেকে আক্রমণাত্মক ফুটবল খেলে দিনামো। প্রথম পাঁচ মিনিটে দুটি ভালো সুযোগও তৈরি করে তারা। কিন্তু ফরোয়ার্ডদের ব্যর্থতায় টের স্টেগেনকে সেভাবে পরীক্ষায় ফেলতে পারেনি দলটি।

৫২তম মিনিটে নিজেদের প্রথম ভালো সুযোগ এগিয়ে যায় বার্সেলোনা। ডি-বক্সে পেদ্রির পাস পেয়ে ব্রাথওয়েট বাড়ান দেস্তকে। কিছুটা এগিয়ে ডান পায়ের শটে জাল খুঁজে নেন তিনি। বার্সেলোনার হয়ে যুক্তরাষ্ট্রের ডিফেন্ডারের এটা প্রথম গোল।

পাঁচ মিনিট পর ব্যবধান দ্বিগুণ করেন ব্রাথওয়েট। কর্নার থেকে মিনগেসার হেড দূরের পোস্টে পেয়ে স্লাইড করে জালে পাঠান এই ডেনিশ ফরোয়ার্ড। চলতি মৌসুমে বার্সেলোনার হয়ে এটা তার প্রথম গোল।

৭০তম মিনিটে সফল স্পট কিকে ব্যবধান আরও বাড়ান ব্রাথওয়েট। তাকেই দেনিস পোপভ ধাক্কা দেওয়ায় পেনাল্টি পেয়েছিল বার্সেলোনা।

একের পর এক আক্রমণ করে যাওয়া সফরকারীরা চতুর্থ গোলটি পায় যোগ করা সময়ে। জর্দি আলবার কাছ থেকে বল পেয়ে বাঁ পায়ের শটে জাল খুঁজে নেন গ্রিজমান। আসরে এটাই ফরাসি এই ফরোয়ার্ডের প্রথম গোল।

টানা চার জয়ে ১২ পয়েন্ট নিয়ে গ্রুপের শীর্ষে রয়েছে বার্সেলোনা। সমান ম্যাচে দিনামোর পয়েন্ট ১।

গ্রুপের অন্য ম্যাচে ফেরেন্সভারোসকে হারিয়ে শেষ ষোলো নিশ্চিত করেছে ইউভেন্তুসও। চার ম্যাচে তিন জয়ে ইতালিয়ান চ্যাম্পিয়নদের পয়েন্ট ৯। তলানিতে থাকা ফেরেন্সভারোসের পয়েন্ট ১।


ট্যাগ:  চ্যাম্পিয়ন্স লিগ  বার্সেলোনা  ব্রাথওয়েট  গ্রিজমান  দেস্ত