চেলসির কষ্টের জয়

  • স্পোর্টস ডেস্ক, বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
    Published: 2021-01-17 01:34:09 BdST

অধিকাংশ সময় বল দখলে রাখার পাশাপাশি আক্রমণে আধিপত্য করেও মিলছিল না সাফল্য। আবারও পয়েন্ট হারানোর শঙ্কায় পড়েছিল চেলসি। তবে শেষ দিকে ব্যবধান গড়ে দিলেন ম্যাসন মাউন্ট। ফুলহ্যামকে হারিয়ে ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগে জয়ের পথে ফিরল ফ্র্যাঙ্ক ল্যাম্পার্ডের দল।

প্রতিপক্ষের মাঠে শনিবারের ম্যাচটি ১-০ ব্যবধানে জিতেছে চেলসি। দ্বিতীয়ার্ধের পুরোটা একজন কম নিয়ে খেলে স্বাগতিক দল।

আসরে তিন ম্যাচ পর জয়ের স্বাদ পেল সবশেষ ২০১৬-১৭ মৌসুমে লিগ জেতা চেলসি। আগের তিন রাউন্ডের দুটিতে তারা হেরেছিল, মাঝে করে ড্র।

শেষ ছয় রাউন্ডের চারটিতে হারা চেলসি ২৩তম মিনিটে এগিয়ে যেতে পারতো। ডি-বক্সের বাইরে থেকে হাকিম জিয়াশের জোরালো শট বাঁ দিকে ঝাঁপিয়ে ঠেকান গোলরক্ষক আলফুঁস আরিওলা।

দুই মিনিট পর ভাগ্যের ফেরে গোল পায়নি সফরকারীরা। ছয় গজ বক্সের সামনে থেকে মাউন্টের শট ফেরে ক্রসবারে লেগে। পরের মিনিটে কর্নারে আন্টোনিও রুডিগারের হেড ডান দিকে ঝাঁপিয়ে এক হাতে ফেরান আরিওলা।

৪২তম মিনিটে প্রথমার্ধের সবচেয়ে ভালো সুযোগটা পান ফুলহ্যামের ইভান কাভালেইরো। সতীর্থের পাস ছয় গজ বক্সের সামনে ফাঁকায় পেয়েও অবিশ্বাস্যভাবে বাইরে দিয়ে মারেন এই পর্তুগিজ ফরোয়ার্ড।

বিরতির আগে বড় এক ধাক্কা খায় স্বাগতিকরা। চেলসির ডিফেন্ডার সেসার আসপিলিকুয়েতাকে ফাউল করে সরাসরি লাল কার্ড দেখেন যুক্তরাষ্ট্রের ডিফেন্ডার অ্যান্তনি রবিনসন।

৭৮তম মিনিটে জয়সূচক গোলটি করেন মাউন্ট। বেন চিলওয়েলের ক্রস গোলরক্ষক ফেরানোর পর ডি-বক্সে বল পেয়ে জোরালো শটে ঠিকানা খুঁজে নেন এই ইংলিশ মিডফিল্ডার। যোগ করা সময়ে গোলরক্ষককে একা পেয়েও বাইরে মেরে হতাশ করেন টিমো ভেরনার।

১৮ ম্যাচে আট জয় ও পাঁচ ড্রয়ে ২৯ পয়েন্ট নিয়ে সাত নম্বরে উঠেছে চেলসি। এক ম্যাচ কম খেলে ১২ পয়েন্ট নিয়ে ১৮তম স্থানে আছে ফুলহ্যাম।

১৭ ম্যাচে ৩৬ পয়েন্ট নিয়ে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড শীর্ষে, ৩৩ পয়েন্ট নিয়ে লিভারপুল দুইয়ে আছে। এক ম্যাচ কম খেলে ৩২ পয়েন্ট নিয়ে তিনে আছে ম্যানচেস্টার সিটি।


ট্যাগ:  ইংলিশ ফুটবল  ইপিএল  চেলসি