ব্যর্থতার দায় কাঁধে নিয়ে লড়াইয়ের প্রতিশ্রুতি ইউভেন্তুস কোচের

  • স্পোর্টস ডেস্ক, বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
    Published: 2021-05-10 17:15:21 BdST

সেরি আর শিরোপা হাতছাড়া হয়েছে আগেই, এসি মিলানের বিপক্ষে হেরে শঙ্কা জেগেছে চ্যাম্পিয়ন্স লিগে খেলা নিয়েও। সব মিলিয়ে ভীষণ কঠিন পরিস্থিতিতে পড়েছে ইউভেন্তুস। দলের এই বাজে অবস্থার জন্য নিজের কাঁধে দায় নিলেন আন্দ্রেয়া পিরলো। একই সঙ্গে  ইতালিয়ান এই কোচ দিলেন শেষ পর্যন্ত লড়াই করে যাওয়ার প্রতিশ্রুতি। 

নিজেদের মাঠে রোববার মিলানের বিপক্ষে ৩-০ গোলে হারা ইউভেন্তুস ৩৫ ম্যাচে ৬৯ পয়েন্ট নিয়ে পঞ্চম স্থানে নেমে গেছে। ১ পয়েন্ট বেশি নিয়ে চতুর্থ স্থানে নাপোলি। ৭২ করে পয়েন্ট নিয়ে যথাক্রমে দ্বিতীয় ও তৃতীয় স্থানে আছে আতালান্তা ও এসি মিলান। আগেই শিরোপা জিতে নেওয়া ইন্টার মিলানের পয়েন্ট ৮৫।

মিলানের বিপক্ষে শুরুতে বলের নিয়ন্ত্রণে আধিপত্য করলেও গোল পায়নি ইউভেন্তুস। ৩০তম মিনিটে জর্জো কিয়েল্লিনি ফাঁকা পোস্টে হেড রাখতে পারেননি। এরপর ব্রাহিম দিয়াসের গোলে পিছিয়ে পড়ে তারা। পরে আরও দুই গোল হজম করে ছিটকে যায় ম্যাচ থেকে। স্কাই স্পোর্ত ইতালিয়াকে পিরলো জানান, কেন এমন হলো বোঝার জন্য খেলোয়াড়দের সঙ্গে ঠাণ্ডা মাথায় কথা বলবেন তিনি।

“গতকালই বলেছিলাম, এ সপ্তাহে দলকে ভালো দেখাচ্ছে। সঠিক মানসিকতা এবং মনোযোগ নিয়ে অনুশীলন করেছিলাম। দল সতেজ ছিল এবং আশা দেখিয়েছিল, মাঠে ভালো করবে।”

“আমরা শুরুটাও ভালো করলাম, কিন্তু (পরে) পথ হারালাম এবং এই (হার) ফলটা পেলাম। এটা এখন ব্যাখ্যা করা কঠিন। অনেক কৌশল কাজ করেনি। এমন গুরুত্বপূর্ণ একটি ম্যাচ হারের অর্থ হচ্ছে, অনেক বিষয় কাজ করেনি। আমার এগুলো মূল্যায়ন করতে হবে এবং ঠাণ্ডা মাথায় ছেলেদের সঙ্গে কথা বলতে হবে।”

এই পরিস্থিতিতে সরে দাঁড়াবেন কিনা বা ছাঁটাই হতে পারেন কিনা, এমন প্রশ্নের মুখেও পড়েছেন পিরলো। ‘না’ সূচক উত্তরই দিয়েছেন খেলোয়াড়ী জীবনে মিলান ও ইউভেন্তুস দুটোতেই খেলা এই কোচ।

“না, আমি সরে দাঁড়াব না। কঠিন পরিস্থিতির মধ্যে খুব উৎসাহ নিয়ে আমি এই দায়িত্ব নিয়েছিলাম। আমি এই দলের দায়িত্বে আছি। এখনও তিনটি ম্যাচ বাকি আছে, যতক্ষণ সুযোগ দেওয়া হবে, আমি কাজ চালিয়ে যাব।”

এসি মিলানের বিপক্ষে ম্যাচে নিষ্প্রভ ছিলেন ক্রিস্তিয়ানো রোনালদো

এসি মিলানের বিপক্ষে ম্যাচে নিষ্প্রভ ছিলেন ক্রিস্তিয়ানো রোনালদো

“আমার মাথায় ভিন্ন একটা পরিকল্পনা ছিল এবং ভেবেছিলাম দায়িত্বে থাকার সময়ে ভিন্ন একটা গ্রুপ পাব। কিছু ধ্যান-ধারণা নিয়ে কাজ করেছিলাম কিন্তু দলের বৈশিষ্টের সঙ্গে মানিয়ে নিতে বাধ্য হয়ে আমাকে বদলে যেতে হয়েছিল এবং মানিয়ে নিতে হয়েছিল।”

ইউভেন্তুসের সাবেক কোচ মাওরিসিও সাররি গত মৌসুমে একই কথা বলেছিলেন। তবে কি দলের খেলোয়াড়রা পরিবর্তন বিরোধী? পিরলো অবশ্য তা মনে করেন না।

“না, এই দলটা পরিবর্তন বিরোধী নয়। এই খেলোয়াড়দের থেকে সেরাটা বের করে আনতে না পারাটা আমার ব্যর্থতা এবং অবশ্যই আমারই বদলানোর প্রয়োজন। যদি কিছু ঠিকঠাকভাবে না হয়, আমি দায় নিই। দারুণ সব খেলোয়াড় নিয়ে এই দলটা গড়া, পরিষ্কারভাবেই কিছু বিষয় কাজ করেনি (মিলান ম্যাচে)।”

“আমাদের প্রস্তুতি ভালো ছিল; কিন্তু একই সময়ে কিছু খেলোয়াড় শতভাগ দিতে পারেনি। যখন দুই বা তিনজন খেলোয়াড় এই ধরনের ম্যাচে সংগ্রাম করে, তখন তা পুরো দলের পারফরম্যান্সকে নিচে নামিয়ে দেয়।”


ট্যাগ:  পিরলো  ইউভেন্তুস  সেরি আ