পছন্দের খবর জেনে নিন সঙ্গে সঙ্গে

রিয়াল-বার্সা-ইউভেন্তুসের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা, পিছু হটল উয়েফা

  • স্পোর্টস ডেস্ক, বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
    Published: 2021-06-10 01:06:57 BdST

bdnews24

এক পক্ষ শুরু করেছিল শাস্তিমূলক ব্যবস্থা নেওয়ার প্রক্রিয়া, আরেক পক্ষ জানিয়ে দিয়েছিল তাদের অনড় অবস্থান। আপাতত পিছু হটল উয়েফা। বহুল আলোচিত ইউরোপিয়ান সুপার লিগ চালুর প্রচেষ্টায় রিয়াল মাদ্রিদ, বার্সেলোনা ও ইউভেন্তুসের বিরুদ্ধে শাস্তিমূলক ব্যবস্থা নেওয়ার কার্যক্রম স্থগিত করেছে সংস্থাটির স্বাধীন আপিল বিভাগ।

ক্লাবগুলোর বিরুদ্ধে তদন্ত শেষে শাস্তিমূলক ব্যবস্থা নেওয়ার প্রক্রিয়া শুরুর ঘোষণা গত ২৫ মে দিয়েছিল উয়েফা। বুধবার রাতে ইউরোপিয়ান ফুটবলের নিয়ন্তা সংস্থাটি এক বিবৃতিতে তা স্থগিত করার কথা জানায়।

“পরবর্তী নির্দেশ না দেওয়া পর্যন্ত উয়েফা আপিল বিভাগ এই কার্যক্রম স্থগিত করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে।”

গত ১৮ এপ্রিল সুপার লিগ আবির্ভাবের দুই দিন পরই অনেক আলোচিত-সমালোচিত এই টুর্নামেন্টের পক্ষে মত দেয় স্পেনের একটি বাণিজ্যিক আদালত। রায়ে বলা হয়, ফিফা ও উয়েফা ইউরোপের শীর্ষস্থানীয় ১২টি ক্লাবের সুপার লিগ গঠন রোধ করতে পারে না।

ফিফা ও উয়েফা যদি ক্লাবগুলোকে বিচ্ছিন্ন সুপার লিগ তৈরিতে বাধা সৃষ্টি করে ইইউ কম্পিটিশন আইন ভঙ্গ করে, তাহলে এ বিষয়ে ব্যবস্থা নিতে ইউরোপিয়ান কোর্ট অব জাস্টিসকে অনুরোধ করেছিল মাদ্রিদের আদালত।

মাদ্রিদের আদালতের সেই অনুরোধের প্রেক্ষিতে সুইস আদালতের আদেশেই মূলত শাস্তিমূলক ব্যবস্থা নেওয়ার কার্যক্রম স্থগিত করল উয়েফা।

গত এপ্রিলে উয়েফা চ্যাম্পিয়ন্স লিগের প্রতিদ্বন্দ্বী হিসেবে আবির্ভুত হয় সুপার লিগ। তাতে ইউরোপের ১২টি শীর্ষ ক্লাব যোগ দেওয়ার ঘোষণা দিলে ঝড় ওঠে ফুটবল বিশ্বে। সমালোচনায় মুখর হয় ফুটবল বিশেষজ্ঞ থেকে শুরু করে ক্লাবগুলোর সমর্থকরাও। সঙ্গে নিষেধাজ্ঞার হুমকি তো ছিলই।

প্রবল চাপের মুখে ৪৮ ঘণ্টার মধ্যে সরে দাঁড়ায় ইংল্যান্ডের ৬ ক্লাব। পর দিন সেই কাতারে যোগ দেয় ইন্টার মিলান ও আতলেতিকো মাদ্রিদ। তাতে প্রকল্পটি কার্যত মুখ থুবড়ে পড়ে। পরবর্তীতে নিজেদের নাম প্রত্যাহার করে নেয় এসি মিলানও।

টুর্নামেন্টটি থেকে নাম প্রত্যাহার করে নেওয়া ৯ ক্লাবকে পুরনো অবস্থায় ফেরার অঙ্গীকারনামা ‘ক্লাব কমিটমেন্ট ডিক্লারেশন’ এ স্বাক্ষর করিয়েছে উয়েফা। সেই সঙ্গে ওই দলগুলোকে ‘আর্থিক জরিমানা’ করা হয়েছে। একই সঙ্গে চুক্তিপত্রে রাখা হয়েছে, পরবর্তীতে এমন কোনো ভুল করলে বড় শাস্তির শর্ত।

এরই মধ্যে ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগ ও ইংল্যান্ডের ফুটবল অ্যাসোসিয়েশন জরিমানা করেছে ইউরোপিয়ান সুপার লিগে অংশ নিতে চাওয়া দেশটির ছয় ক্লাবকে। 

তবে এখনও সুপার লিগ নিয়ে অনড় অবস্থানে রয়েছে বিতর্কিত লিগটি প্রতিষ্ঠায় অগ্রণী ভূমিকা পালন করা রিয়াল, বার্সেলোনা ও ইউভেন্তুস।