পছন্দের খবর জেনে নিন সঙ্গে সঙ্গে

অতীতের খরা বা সাফল্য, কিছুই নেই তিতের ভাবনায়

  • স্পোর্টস ডেস্ক, বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
    Published: 2021-07-10 08:57:50 BdST

bdnews24

অতীত নিয়ে তিনি মাথা ঘামাচ্ছেন না মোটেও। কোপা আমেরিকায় আর্জেন্টিনার শিরোপা খরা কিংবা ব্রাজিলের গত আসরের সাফল্য-এসব নিয়েও তার ভাবনা নেই তেমন একটা। মারাকানার ফাইনাল সামনে রেখে ব্রাজিল কোচ জানালেন, অতীত পথ দেখাবে না কোনোভাবে। সাফল্য আসবে কেবল কঠোর পরিশ্রমের হাত ধরে।

রিও দে জেনেইরোর ঐতিহাসিক মারাকানা স্টেডিয়ামে বাংলাদেশ সময় রোববার ভোর ৬টায় শিরোপা লড়াইয়ে নামবে ব্রাজিল ও আর্জেন্টিনা। মুকুট ধরে রাখার মিশনে তিতের দল। লিওনেল স্কালোনির দল লড়বে ১৯৯৩ সালের পর এ মুকুট ফিরে পাওয়ার আশায়।

লাতিন ফুটবলের শ্রেষ্ঠত্বের মঞ্চে আর্জেন্টিনার চলা ২৮ বছরের শিরোপা খরা, দলটির তারকা ফরোয়ার্ড লিওনেল মেসির জাতীয় দলের হয়ে অর্জনের খাতা শূন্য, যথারীতি এবারও আলোচনায়। সংবাদ সম্মেলনে প্রতিপক্ষ দলের এই অতীত নিয়েও প্রশ্নের মুখোমুখি হলেন তিতে। তিনি উত্তরও দিলেন নিজেদের অতীত সাফল্যের প্রসঙ্গ টেনে।

“অতীত অতীতই। অতীতের দিকে তাকিয়ে সামনের নির্দেশনা মেলে না। কোপা আমেরিকার গত দুই আসরে (চলতি আসর সহ) আমরা অপরাজিত; আমাদের পরিসংখ্যান তুলনামূলকভাবে ভালো, কিন্তু এগুলোকে খুব বেশি তাৎপর্যপূর্ণ হিসেবে দেখি না আমি।”

ব্রাজিল প্রেসিডেন্ট জাইর বোলসোনারো ফাইনাল সামনে রেখে বলেছেন, তার প্রত্যাশা আর্জেন্টিনার বিপক্ষে ৫-০ গোলে জিতবে ব্রাজিল। প্রেসিডেন্টের ওই প্রত্যাশাকে মনস্তাত্ত্বিক খেলা হিসাবে দেখছেন তিতে।

“কয়েক দিন ধরে আমরা একটা মনস্তাত্ত্বিক লড়াইয়ের মধ্যে দিয়ে যাচ্ছি। আমাদের কাজটা গণমাধ্যম ও সমর্থকদের চেয়ে ভিন্ন। এটা প্রস্তুতি নেওয়া, অনুশীলন করা এবং মনোযোগ ধরে রাখার সঙ্গে সম্পর্কিত এবং আমরা আমাদের মূল কাজগুলোর দিকে মনোনিবেশ করছি।”

“এটা কখনও প্ররোচনামূলক। কখনও এটা প্রহসন, কখনও এটা ইতিহাস এবং কখনও ক্লাব পর্যায়ে খেলোয়াড়রা কে কার বিপক্ষে কত ম্যাচ খেলল, সেটা নিয়েও এ কথাগুলো হয়। কিন্তু এগুলো মূল কথা নয়। মূল কথা হচ্ছে, দিনের পর দিন কঠোর পরিশ্রম করা এবং ভালো একটা ম্যাচ খেলার জন্য প্রস্তুতি নেওয়া।”

আর্জেন্টিনার বিপক্ষে মহারণে ব্রাজিল নিষেধাজ্ঞার কারণে পাচ্ছে না ম্যানচেস্টার সিটির ফরোয়ার্ড গাব্রিয়েল জেসুসকে। ফুলব্যাক আলেক্স সান্দ্রো ফিটনেস টেস্ট উতড়াতে পারেননি। চোটের কারণে ফাইনালে খেলা নিয়ে অনিশ্চয়তা আছে আর্জেন্টিনার ডিফেন্ডার ক্রিস্তিয়ান রোমেরার।

ব্রাজিল-আর্জেন্টিনা দ্বৈরথের ভেতরে চলবে দুই তারকা ফরোয়ার্ড লিওনেল মেসি ও নেইমারের লড়াইও। স্বাভাবিকভাবে মেসিকে আটকাতে পরিকল্পনা থাকবে তিতের। তবে সংবাদ সম্মেলনে সে পরিকল্পনার প্রশ্নে কৌশলী উত্তরই দিয়েছেন ব্রাজিল কোচ।

“মেসিকে পাহারায় রাখার উপায় আমি জানি, কিন্তু সেটা আপনাদের বলব না। আমরা তাদেরকে নিষ্ক্রিয় করব না, তাদের খেলার জায়গা সংকুচিত করে দিব।”