পছন্দের খবর জেনে নিন সঙ্গে সঙ্গে

পরিসংখ্যানে ওয়েম্বলির ফাইনাল

  • স্পোর্টস ডেস্ক, বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
    Published: 2021-07-12 17:10:05 BdST

bdnews24

ইউরোপিয়ান চ্যাম্পিয়নশিপের ফাইনালে সবচেয়ে দ্রুততম গোল, সবচেয়ে বেশি বয়সে গোল, হ্যারি কেইনের দ্বিতীয়বারের মতো ম্যাচে গোলে কোনো শট নিতে না পারা-এমন বেশ কিছু নতুন পরিসংখ্যান যোগ করেছে ইতালি ও ইংল্যান্ডের শিরোপা লড়াই। যেখানে টাইব্রেকারে জিতে ১৫ বছর পর মেজর টুর্নামেন্ট জয়ের স্বাদ পেয়েছে ইতালি।

লন্ডনের ওয়েম্বলি স্টেডিয়ামে ফাইনালে টাইব্রেকারে ৩-২ গোলে জিতে দ্বিতীয়বারের মতো ইউরোপ সেরার মুকুট পরেছে ইতালি।

ম্যাচটিতে ব্যক্তিগত ও দলগত কিছু পরিসংখ্যান তুলে ধরা হলো বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম-এর পাঠকদের জন্য।

>> দ্বিতীয়বারের মতো ইউরোপিয়ান চ্যাম্পিয়নশিপে শিরোপার স্বাদ পেল ইতালি, ৫৩ বছরে প্রথম (১৯৬৮ সালে পর); টুর্নামেন্টের ইতিহাসে কোনো দেশের দুটি শিরোপার মাঝে এটিই এখন দীর্ঘতম ব্যবধান, আগেরটি ছিল স্পেনের ৪৪ বছরের ব্যবধান (১৯৬৪ থেকে ২০০৮ সাল)।

>> মেজর টুর্নামেন্টে (বিশ্বকাপ, ইউরো) পেনাল্টি শুটআউটে ইংল্যান্ডের জয়ের হার কেবল ২২ শতাংশ (৯ বারে জয় ২টি), তিনবারের বেশি পেনাল্টি শুটআউটে গিয়ে ইউরোপের দলগুলোর মধ্যে জয়ের হারের দিক থেকে এটিই সর্বনিম্ন।

>> ফাইনালের আগে আসরে কোনো ম্যাচে প্রথমে গোল হজম করেনি ইতালি। ইংল্যান্ডের বিপক্ষে সমতা টানার আগে তারা পিছিয়ে ছিল ৬৫ মিনিট, ফাইনালের আগ পর্যন্ত সব মিলিয়ে ৩৩ ম্যাচের অজেয় যাত্রায় এর চেয়েও ২১ মিনিট কম সময় তারা পিছিয়ে ছিল (৪৪ মিনিট)।

>> ওয়েম্বলিতে ২০১৬ সালের নভেম্বরে স্পেনের (৩৪.৩%) বিপক্ষে ম্যাচের পর রোববারের ফাইনালেই সবচেয়ে কম সময় বল দখলে রাখতে পেরেছে ইংল্যান্ড (৩৪.৪%)।

>> গ্যারেথ সাউথগেট টানা ৩৭ ম্যাচে শুরুর একাদশে অন্তত একটি করে হলেও পরিবর্তন এনেছেন। সব মিলিয়ে এই সময়ে শুরুর একাদশে পরিবর্তন করেছেন ২০০টি। সবশেষ তিনি অপরিবর্তিত একাদশ মাঠে নামিয়েছিলেন ২০১৮ বিশ্বকাপের সেমি-ফাইনালে।

>> এক মিনিট ৫৭ সেকেন্ডে করা ইংলিশ ডিফেন্ডার লুক শর করা গোলটি (ইংল্যান্ডের হয়ে তার প্রথম গোল) মহাদেশীয় প্রতিযোগিতাটির ফাইনালের দ্রুততম। একই সঙ্গে এটি টুর্নামেন্টের ইতিহাসে ইংল্যান্ডের দ্রুততম গোল এবং ইতালির সবচেয়ে কম সময়ে গোল হজমের রেকর্ড।

>> ৩৪ বছর ৭১ দিন বয়সে ইতালির লিওনার্দো বোনুচ্চি ইউরোর ফাইনালে সবচেয়ে বেশি বয়সে গোল করেন। আর মেজর টুর্নামেন্টে (বিশ্বকাপ, ইউরো) ইউরোপিয়ান কোনো দলের হয়ে সবচেয়ে বেশি বয়সে গোলের তালিকায় বোনুচ্চি এখন দুইয়ে। প্রথমে আছেন সুইডেনের নিলস লিদহোল্ম, ব্রাজিলের বিপক্ষে ১৯৫৮ বিশ্বকাপে ৩৫ বছর ২৬৪ দিন বয়সে গোল করেছিলেন তিনি।

>> ইতালির বিপক্ষে ম্যাচে ইংল্যান্ড অধিনায়ক হ্যারি কেইন গোলে কোনো শটই নিতে পারেননি, কোনো সুযোগও তৈরি করতে পারেননি, যা দেশের হয়ে তার ৬১তম ম্যাচে এমন দ্বিতীয় ঘটনা। ২০১৮ সালে সুইজারল্যান্ডের বিপক্ষে প্রীতি ম্যাচে গোলে শট নেওয়া কিংবা গোলের সুযোগ তৈরি করতে পারেননি তিনি।