পছন্দের খবর জেনে নিন সঙ্গে সঙ্গে

বেতন কমিয়ে আরও ৫ বছর বার্সায় মেসি?

  • স্পোর্টস ডেস্ক, বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
    Published: 2021-07-14 20:22:54 BdST

bdnews24

লিওনেল মেসির চুক্তি এই মুহূর্তে ফুটবল দুনিয়ার সবচেয়ে আলোচিত বিষয়গুলোর একটি। বার্সেলোনা সমর্থকরা আপাতত স্বস্তি পেতে পারেন। স্প্যানিশ সংবাদমাধ্যমের খবর, চুক্তি নবায়নের বিষয়ে কাতালান ক্লাবটির সঙ্গে সমঝোতায় পৌঁছেছেন আর্জেন্টাইন তারকা।

বার্সেলোনা ভিত্তিক দৈনিক ক্রীড়া পত্রিকা স্পোর্তের বুধবারের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, লা লিগার দলটির সঙ্গে পাঁচ বছরের চুক্তিতে সই করতে যাচ্ছেন মেসি। এজন্য ৫০ শতাংশ বেতন কম নিতে রাজি ৩৪ বছর বয়সী ফরোয়ার্ড।

কাতালান পত্রিকা এল’এস্পোর্তিওর বরাত দিয়ে মার্কার প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, বুধবার সমঝোতায় পৌঁছেছে দুই পক্ষ। আনুষ্ঠানিক ঘোষণা আসবে শিগগিরই। সেটা হতে পারে শুক্রবারের মধ্যেই।

বার্সেলোনার সঙ্গে চুক্তি শেষে জুনের ৩০ তারিখের পর ‘ফ্রি এজেন্ট’ হয়ে যান মেসি। গত বছর থেকেই তার চুক্তি নবায়ন নিয়ে দুই পক্ষের মধ্যে আলোচনা চলছে। দ্বিতীয় মেয়াদে ক্লাবটির সভাপতির দায়িত্ব নেওয়া হুয়ান লাপোর্তা শুরু থেকে বলে আসছেন, মেসিকে ক্লাবে ধরে রাখার ব্যাপারে তারা আশাবাদী।

ছয়বারের বর্ষসেরা এই ফুটবলারের চুক্তি নবায়নের ক্ষেত্রে বার্সেলোনার জন্য বড় বাধা হয়ে আসে লা লিগার নিয়ম কানুনের শর্ত। প্রতিটি ক্লাবের জন্য তাদের বেধে দেওয়া বেতন বার্সেলোনা অতিক্রম করায় মেসির চুক্তি নিয়ে তৈরি হয় জটিলতা। বিষয়টি নিয়ে তাই কদিন ধরে লিগ কর্তৃপক্ষের সঙ্গে আলোচনা করছিল বার্সেলোনা।

সবকিছু ঠিকঠাক চললে নতুন মৌসুমে আবারও হয়তো বার্সেলোনার জার্সিতেই দেখা যাবে মেসিকে। কদিন আগে কোপা আমেরিকা জিতে দেশের হয়ে বড় কোনো শিরোপার আক্ষেপ ঘোচানো এই তারকা বর্তমানে ছুটিতে আছেন। 

কিশোর বয়সে ২০০০ সালে বার্সেলোনায় পাড়ি জমিয়েছিলেন মেসি। যুব দলে রাঙিয়ে ২০০৪ সালে তার অভিষেক হয় মূল দলে। এরপর শুধুই সামনে ছুটে চলা। গত এক যুগের বেশি সময় ধরে ক্লাবটির সাফল্যের নায়ক তিনি। এখানে চারটি চ্যাম্পিয়ন্স লিগ ও ১০টি লা লিগাসহ জিতেছেন রেকর্ড ৩৫টি শিরোপা।

২০১৯-২০ মৌসুম শেষে গত বছরের অগাস্টে হঠাৎ করে চুক্তির একটি ধারা কার্যকর করে ফ্রি ট্রান্সফারে বার্সেলোনা ছাড়ার ঘোষণা দিয়েছিলেন মেসি। কিন্তু ক্লাব তাতে রাজি না হওয়ায় অনিচ্ছাসত্ত্বেও চুক্তির শেষ পর্যন্ত থেকে যাওয়ার সিদ্ধান্ত নেন বার্সেলোনার সর্বোচ্চ গোলদাতা।