পছন্দের খবর জেনে নিন সঙ্গে সঙ্গে

সাফ চ্যাম্পিয়নশিপ হচ্ছে না বাংলাদেশে!

  • ক্রীড়া প্রতিবেদক, বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
    Published: 2021-07-23 17:31:37 BdST

bdnews24

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্ম শতবার্ষিকী উপলক্ষে এবারের সাফ ফুটবল চ্যাম্পিয়নশিপ হওয়ার কথা ছিল বাংলাদেশে। কিন্তু করোনাভাইরাস পরিস্থিতির কারণে বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশন (বাফুফে) আয়োজনে আর আগ্রহ দেখাচ্ছে না!

আগামী ৩০ অগাস্টে বাংলাদেশে সাফ চ্যাম্পিয়নশিপ মাঠে গড়ানোর কথা ছিল। কিন্তু চলতি মাসের শুরুর দিক থেকে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ বাড়তে থাকে। ফলে প্রতিযোগিতার ভবিষ্যৎ পড়ে যায় প্রশ্নের মুখে।

শেষ পর্যন্ত অগাস্টে সাফ আয়োজন সম্ভব কিনা, বাফুফের কাছ থেকে এ ব্যাপারে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত জানতে চেয়েছিল সাফ কর্তৃপক্ষ। বাফুফে ‘না’ করে দিয়েছে বলে বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমকে নিশ্চিত করেছেন সাফের সাধারণ সম্পাদক আনোয়ারুল হক হেলাল।

“বাফুফে আমাদের জানিয়ে দিয়েছে, কোভিড-১৯ পরিস্থিতি খারাপ বলে তারা আয়োজন করতে পারবে না। এ কারণে আজ সবার সঙ্গে ভার্চুয়ালি আলোচনা করলাম। সব দেশই চায়, এ বছরই সাফ ফুটবল চ্যাম্পিয়নশিপটা হোক। আগামী অক্টোবরের শুরুর দিকে কিছুটা ফাঁকা সময় আছে। ওই সময়েই আমরা আয়োজন করতে চাই।”

“তিনটি দেশ ভারত, নেপাল ও মালদ্বীপ আগ্রহ দেখিয়েছে। মালদ্বীপ অবশ্য শ্রীলঙ্কাকে সঙ্গে নিয়ে করতে চায়। কিন্তু কোভিড-১৯ পরিস্থিতির কারণে আমরা দুই দেশে এটা হওয়া নিয়ে আগ্রহ দেখাইনি। এখন ভারত ও নেপাল তাদের প্রস্তাবনা দেওয়ার পর সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে।”

ভারত আয়োজক হলে খেলা হতে পারে কলকাতায়। তবে আয়োজক হওয়ার দৌড়ে নেপাল কিছুটা এগিয়ে আছে বলে ইঙ্গিত দিলেন হেলাল।

“প্রতিযোগিতাটি আয়োজন করার বিষয়ে আগে থেকেই নেপালের ওরা তাদের সরকারের সঙ্গে কিছুটা আলাপ-আলোচনা এগিয়ে রেখেছে। তবে, এখনই নিশ্চিত করে বলা যাচ্ছে না, কে শেষ পর্যন্ত আয়োজক হবে। আমরা জুলাই পর্যন্ত সময় বেঁধে দিয়েছি। এর মধ্যে সবার প্রস্তাবনা দেখে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে।”

প্রতিযোগিতাটির ২০১৮ সালের আয়োজকও ছিল বাংলাদেশ। সাধারণত এক দেশে দুটি আসর পর পর দুবার হয় না। কিন্তু বঙ্গবন্ধুর জন্ম শতবার্ষিকী উপলক্ষে ২০২০ সালের আসরটি আয়োজন করতে চেয়েছিল বাংলাদেশ। আয়োজক স্বত্বও পেয়েছিল বাফুফে।

গত বছর প্রতিযোগিতাটি মাঠে গড়ানোর কথা ছিল। কিন্তু করোনাভাইরাসের থাবা বৈশ্বিক মহামারীতে রূপ নেওয়ায় এক বছর পিছিয়ে দেওয়া হয়েছিল।