পছন্দের খবর জেনে নিন সঙ্গে সঙ্গে

‘কোর্তোয়ার নৈপুণ্যেই আমরা গোল হজম করিনি’

  • স্পোর্টস ডেস্ক, বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
    Published: 2021-09-16 17:28:19 BdST

প্রথমার্ধে আক্রমণের পসরা সাজিয়ে রিয়াল মাদ্রিদকে চেপে ধরে ইন্টার মিলান, তবে দুর্দান্ত কিছু সেভ করে জাল অক্ষত রাখেন থিবো কোর্তোয়া। ম্যাচ শেষে বেলজিয়ান এই গোলরক্ষককে তাই প্রশংসায় ভাসালেন কোচ কার্লো আনচেলত্তি।

সান সিরোয় বুধবার রাতে ইতালিয়ান দলটিকে ১-০ গোলে হারিয়ে চ্যাম্পিয়ন্স লিগ অভিযান শুরু করে রিয়াল। শেষ দিকে ব্যবধান গড়ে দেওয়া গোলটি করেন রদ্রিগো।

প্রথমার্ধে ইন্টারের আক্রমণে একরকম কোণঠাসা হয়ে পড়েছিল রিয়াল। এই সময় গোলের উদ্দেশে স্বাগতিকরা ১৪টি শট নেয়, যার চারটি ছিল লক্ষ্যে।

নবম মিনিটে এদিন জেকোর শট পা বাড়িয়ে ঠেকান কোর্তোয়া। ১০ মিনিট পর ঠেকিয়ে দেন লাউতারো মার্তিনেসের হেড। বিরতির তিন মিনিট আগে জেকোর আরেকটি শট রুখে দেন তিনি। দ্বিতীয়ার্ধের শুরুতেও জেকোর জোরালো হেড দারুণ ক্ষিপ্রতায় ঝাঁপিয়ে দলকে বাঁচান ২৯ বছর বয়সী গোলরক্ষক।

প্রথমার্ধে জাল অক্ষত রাখায় পুরো কৃতিত্ব কোর্তোয়াকে দিলেন আনচেলত্তি।

“জয়টা খুব গুরুত্বপূর্ণ। প্রথমার্ধের চেয়ে দ্বিতীয়ার্ধে আমরা ভালো খেলেছি। কোর্তোয়ার কারণেই প্রথমার্ধে আমরা গোল হজম করিনি।”

“প্রথমার্ধে কোর্তায়াই আমাদের রক্ষা করেছে। দুই-তিনটি বিশ্বমানের সেভ করেছে সে, তবে রক্ষণে আমরা অতটা খারাপ করিনি। এই জায়গায় আমরা কয়েকবার বলের নিয়ন্ত্রণ হারিয়েছি। তবে অন্যান্য দিক থেকে সবাই বেশ ভালোই খেলেছে। তারা রক্ষণে মনোযোগ দিয়েছিল, কারণ তারা (ইন্টার) সত্যিই শক্তিশালী। কিন্তু আমরা ভালো করেছি।”

নির্ধারিত সময়ের এক মিনিট বাকি থাকতে ভলিতে জয়সূচক গোলটি করেন দ্বিতীয়ার্ধে বদলি নামা রদ্রিগো। ২০ বছর বয়সী এই ব্রাজিলিয়ান ফরোয়ার্ডের খেলায় খুশি রিয়াল কোচ।

“রদ্রিগোর সঙ্গে এরই মধ্যে আমি কথা বলেছি…সে কত মিনিট খেলল সেটা গুরুত্বপূর্ণ নয়, সে কেমন খেলে সেটা গুরুত্বপূর্ণ। আজ রাতে সে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করেছে, শুধু গোল করে নয়, যেভাবে সে দলকে সাহায্য করেছে এর জন্যও। সে রক্ষণেও সাহায্য করেছে।”

“তার খেলায় আমি সন্তুষ্ট...সে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করতে পারে। কখনও কখনও সে ম্যাচের শুরু থেকেও খেলতে পারে।”

রদ্রিগোর গোলে সহায়তা করেন আরেক বদলি কামাভিঙ্গা। গত রোববার লা লিগায় সেল্তা ভিগোর বিপক্ষে গোল করে অভিষেক রাঙান তরুণ এই ফরাসি মিডফিল্ডার। এবার চ্যাম্পিয়ন্স লিগে প্রথম ম্যাচে করলেন অ্যাসিস্ট। তাকে নিয়ে অনেক আশা আনচেলত্তির।

“সে এমন একজন, যে রিয়াল মাদ্রিদে খেলতে পারে, ঠিক সে কারণেই আমরা তাকে দলে টেনেছি। সে খুব তরুণ, কিন্তু অনেক মানসম্পন্ন। ভালো করার দারুণ সম্ভাবনা তার আছে। রক্ষণাত্মক দৃষ্টিকোণ থেকে তাকে উন্নতি করতে হবে এবং ভবিষ্যতে সে তা করবে।”