পছন্দের খবর জেনে নিন সঙ্গে সঙ্গে

‘বার্সেলোনার শেষ সুযোগ, যেন ফাইনাল’

  • স্পোর্টস ডেস্ক, বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
    Published: 2021-12-07 16:47:06 BdST

bdnews24

এক বছরের একটু বেশি সময় আগে যাদের বিপক্ষে হজম করতে হয়েছিল আট গোল। চ্যাম্পিয়ন্স লিগে এবারের প্রথম দেখায়ও যাদের বিপক্ষে মেলেনি কোনো আশার আলো। সেই বায়ার্ন মিউনিখের বিপক্ষেই বাঁচা-মরার লড়াইয়ে নামতে যাচ্ছে বার্সেলোনা। খুব কঠিন পরীক্ষায় নামার আগে কাতালান দলটির ফরোয়ার্ড মেমফিস ডিপাই অবশ্য আশাবাদী। বললেন, ম্যাচটিকে তারা ফাইনালের মতো দেখছেন।

ইউরোপ সেরা প্রতিযোগিতার গ্রুপ পর্বের শেষ রাউন্ডে বুধবার প্রতিপক্ষের মাঠে খেলবে বার্সেলোনা। হেরে গেলেই বাজতে পারে বিদায় ঘণ্টা, নয়তো তাকিয়ে থাকতে হবে অন্য ম্যাচের দিকে। যেখানে দিনামো কিয়েভের বিপক্ষে বেনফিকা পয়েন্ট হারালে বার্সেলোনা নিজেদের ম্যাচে হারলেও পরের রাউন্ডে উঠবে।

‘ই’ গ্রুপে পাঁচ ম্যাচের সবকটি জিতে ১৫ পয়েন্ট নিয়ে গ্রুপের শীর্ষস্থান আগেই নিশ্চিত করেছে বায়ার্ন। ৭ পয়েন্ট নিয়ে দুইয়ে আছে বার্সেলোনা। ৫ পয়েন্ট নিয়ে তিন নম্বরে বেনফিকা।

বুন্ডেসলিগা ও চ্যাম্পিয়ন্স লিগে চলতি মৌসুমে জার্মান চ্যাম্পিয়নদের যে ফর্ম, তাতে দলটিকে তাদেরই মাঠে হারানো দিকহারা বার্সেলোনার জন্য অনেক কঠিন। এমনকি ড্র করাটাও তাদের জন্য মোটেও সহজ হবে না। জার্মান চ্যাম্পিয়নদের বিপক্ষে মুখোমুখি লড়াইয়েও স্প্যানিশ দলটির জন্য নেই কোনো ইতিবাচক দিক; সবশেষ দুই ম্যাচের প্রথমটিতে ২০১৯-২০ আসরের কোয়ার্টার-ফাইনালে বার্সেলোনা হেরেছিল ৮-২ গোলে আর এবার গ্রুপের প্রথম দেখায় ঘরের মাঠে তারা হারে ৩-০ ব্যবধানে।

তবে হাল ছাড়তে রাজি নন মেমফিস। সোমবার ক্লাবের ওয়েবসাইটে ডাচ তারকা সর্বশক্তি দিয়ে লড়াইয়ের প্রতিশ্রুতি দিলেন।

“নকআউট পর্বে যাওয়ার এটাই আমাদের শেষ সুযোগ, এটা অনেকটা ফাইনালের মত। কাঙ্ক্ষিত ফলাফল পেতে নিজেদের সবটুকু দেওয়ার জন্য আমাদের মানসিকভাবে প্রস্তুত থাকতে হবে।”

চ্যাম্পিয়ন্স লিগে বার্সেলোনা সবশেষ গ্রুপ পর্বের বৈতরণী পার হতে ব্যর্থ হয়েছিল ২০০০-০১ মৌসুমে, সেবার গ্রুপে তাদের পেছনে ফেলে শেষ ষোলোতে জায়গা করে নিয়েছিল এসি মিলান ও লিডস ইউনাইটেড।

মৌসুমের শুরু থেকেই ছন্দহারা বার্সেলোনার সবশেষ ম্যাচের ফল ভালো নয়। লা লিগায় গত শনিবার ঘরের মাটিতে রিয়াল বেতিসের কাছে ১-০ গোলে হারে কাতালান দলটি। ক্লাবটির কোচ হিসেবে দায়িত্ব নেওয়ার পর এটি শাভি এরনান্দেসের প্রথম হার।