পছন্দের খবর জেনে নিন সঙ্গে সঙ্গে

রিয়ালে পঞ্চম শিরোপা জিতে গর্বিত আনচেলত্তি

  • স্পোর্টস ডেস্ক, বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
    Published: 2022-01-17 17:03:58 BdST

bdnews24
স্প্যানিশ সুপার কাপের শিরোপা হাতে কার্লো আনচেলত্তি। ছবি: রিয়াল মাদ্রিদ।

কোচিং ক্যারিয়ারে অসংখ্য শিরোপা জিতলেও মাঝে লম্বা একটা সময় কোনো সেরার স্বাদ পাননি কার্লো আনচেলত্তি। প্রায় সাড়ে চার বছর বিরতির পর ঘুঁচল সেই অপেক্ষা। রিয়াল মাদ্রিদের হয়ে স্প্যানিশ সুপার কাপ জয়ের পর তাই স্বাভাবিকভাবে একটু বেশিই খুশি আনচেলত্তি। বললেন, মাদ্রিদের দলটিকে কোচিং করিয়ে এবং এখানে আবারও শিরোপা জিততে পেরে তিনি গর্বিত।

সৌদি আরবের রিয়াদে রোববার ফাইনালে আথলেতিক বিলবাওকে ২-০ গোলে হারিয়ে শিরোপা উল্লাসে মাতে রিয়াল। প্রথমার্ধে লুকা মদ্রিচ দলকে এগিয়ে নেওয়ার পর দ্বিতীয়ার্ধে ব্যবধান দ্বিগুণ করেন করিম বেনজেমা।

এই নিয়ে ১২ বার স্প্যানিশ সুপার কাপ জিতল রিয়াল। রেকর্ড ১৩ বার জিতেছে বার্সেলোনা।

এর আগে আনচেলত্তি সবশেষ শিরোপা জিতেছিলেন ২০১৭ সালে, বায়ার্ন মিউনিখের হয়ে উঁচিয়ে ধরেছিলেন জার্মান সুপার কাপ। এই ইতালিয়ান কোচ অবশ্য শিরোপা দিয়ে তার কাজের বিচার করতে চান না।

“হ্যাঁ, আমি অনেক শিরোপা জিতেছি, কিন্তু আমার সবশেষ শিরোপা জয়ের পর অনেক দিন হয়ে গিয়েছিল।”

“(শিরোপা) জয়ের মাঝে একজনের ভালো কাজ প্রতিফলিত হয়। মানুষের দৃষ্টিতে এর মানে, আমি ভালো কাজ করেছি যদিও এটি সবসময় সত্য নয়। আমি মনে করি, এভারটন ও নাপোলিতেও ভালো কাজ করেছি, কিন্তু আমি সেখানে (শিরোপা) জিততে পারিনি।”

রিয়ালে প্রথম মেয়াদে ২০১৩ থেকে ২০১৫ সাল পর্যন্ত দায়িত্বে ছিলেন আনচেলত্তি। তার হাত ধরেই ২০১৩-১৪ মৌসুমের চ্যাম্পিয়ন্স লিগের শিরোপা জিতেছিল মাদ্রিদের দলটি। ওই অধ্যায়ে দলটির হয়ে তিনি জেতেন কোপা দেল রে, ইউরোপিয়ান সুপার কাপ ও ক্লাব বিশ্বকাপ। এরপর ট্রফিশূন্য ২০১৪-১৫ মৌসুমের পর ২০১৫ সালের মে মাসে তাকে অব্যাহতি দিয়েছিল স্পেনের সফলতম ক্লাবটি।

রিয়ালের ইতিহাসে প্রথম কোচ হিসেবে ছয়টি মেজর শিরোপার সবকটি জয়ের কীর্তি গড়ার জন্য আনচেলত্তির প্রয়োজন কেবল লা লিগা জয়। মৌসুমের শুরু থেকে ধরে রাখা পারফরম্যান্স শেষ পর্যন্ত রাখতে পারলে এবারই রেকর্ডটি গড়ে ফেলতে পারেন আনচেলত্তি। লিগে ২১ ম্যাচে ৪৯ পয়েন্ট নিয়ে শীর্ষে আছে তার দল। এক ম্যাচ কম খেলা সেভিয়া ৪৪ পয়েন্ট নিয়ে আছে দুইয়ে।

ইউভেন্তুস, এসি মিলান, চেলসি, পিএসজি ও বায়ার্ন মিউনিখের মতো বড় ক্লাবে দায়িত্ব পালন করা আনচেলত্তির কাছে রিয়ালকে কোচিং করানোটা অসাধারণ কিছু।

“এই দলকে কোচিং করানোর সুযোগ পেয়ে আমি ভাগ্যবান এবং গর্বিত। (শিরোপা) জয়ে কেউই কখনও ক্লান্ত হয় না। এটি সুন্দর একটা দৃশ্য; খেলোয়াড়দের আনন্দিত ও উদযাপন করতে দেখাটা আমি অনেক উপভোগ করি।”

লা লিগা ছাড়াও এই মৌসুমে রিয়াল এখনও লড়াইয়ে আছে চ্যাম্পিয়ন্স লিগ ও কোপা দেল রেতে। ইউরোপ সেরার মঞ্চে শেষ ষোলোয় আগামী মাসে তাদের প্রতিপক্ষ ফরাসি জায়ান্ট পিএসজি। আর কোপা দেল রের শেষ ষোলোয় আগামী বৃহস্পতিবার এলচের বিপক্ষে মাঠে নামবে ইউরোপের সফলতম দলটি।

একটি শিরোপা জিতেই আত্মতুষ্টিতে না ভুগে বাকি প্রতিযোগিতার দিকে মনোযোগ দিতে চান আনচেলত্তি।

“আমাদের উদযাপন করার সময় নেই, কয়েক দিনের মধ্যে আরেকটি প্রতিযোগিতার খেলা আছে।”