পছন্দের খবর জেনে নিন সঙ্গে সঙ্গে

অস্ট্রেলিয়ান ওপেন থেকে রাডুকানুর বিদায়

  • স্পোর্টস ডেস্ক, বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
    Published: 2022-01-20 18:37:26 BdST

শুরুটা দারুণ হয়েছিল এমা রাডুকানুর। এরপরই বিপত্তি। হাতের সমস্যায় নিতে হয় সেবাশুশ্রূষা। টেপ পেচিয়ে তবু চালিয়ে যান লড়াই। প্রথম সেট হারের পর ঘুরে দাঁড়ান দারুণভাবে। কিন্তু শেষ পর্যন্ত পেরে ওঠেননি তিনি। ইউএস ওপেন চ্যাম্পিয়ন ব্রিটিশ তারকার অস্ট্রেলিয়ান ওপেন যাত্রা থেমে গেল দ্বিতীয় রাউন্ডে।

মেলবোর্নের মার্গারেট কোর্ট অ্যারেনায় বৃহস্পতিবার রাডুকানুকে ৬-৪, ৪-৬, ৬-৩ গেমে হারিয়েছেন মন্টিনেগ্রোর দানকা কোভিনিচ। প্রথমবারের মতো কোনো গ্র্যান্ড স্ল্যামের শেষ বত্রিশে জায়গা করে নিয়েছেন ২৭ বছর বয়সী এই খেলোয়াড়।

প্রথম সেটে একটা সময় ৩-০ তে এগিয়ে ছিলেন রাডুকানু। এরপরই হাতের সমস্যায় চিকিৎসা নিতে হয় ১৯ বছর বয়সী এই খেলোয়াড়কে। ঘুরে দাঁড়িয়ে দ্বিতীয় সেট জিতলেও শেষ সেটে আর পেরে ওঠেননি তিনি।

জয়ের পর দানকা কোভিনিচের উল্লাস

জয়ের পর দানকা কোভিনিচের উল্লাস

রাডুকানুর বিপক্ষে জিতে উচ্ছ্বসিত বিশ্ব র‍্যাঙ্কিংয়ে ৯৮ নম্বরে থাকা কোভিনিচ। প্রশংসা করলেন প্রতিপক্ষেরও।

“এমার সঙ্গে এখানে খেলা এবং অনেক বছর পর প্রথমবারের মতো গ্র্যান্ড স্ল্যামের তৃতীয় রাউন্ডে ওঠা দারুণ অভিজ্ঞতা।”

“এমার দারুণ সব ফলাফল আছে। এত কম বয়সে সে গ্র্যান্ড স্ল্যাম জিতেছে। সে দারুণ প্রতিভাবান। এই পর্যায়ে খেলতে পেরে আমি খুব খুশি।”

টেনিসের ইতিহাসে বাছাইপর্ব পেরিয়ে প্রথম খেলোয়াড় হিসেবে গত সেপ্টেম্বরে ইউএস ওপেন জয়ের অনন্য কীর্তি গড়েন রাডুকানু। ১৭ দিনের মধ্যে বাছাইপর্বের তিনটিসহ মোট ১০ ম্যাচ জিতে চ্যাম্পিয়ন হন তিনি।

এরপর মাঝে সময় ভালো যাচ্ছিল না তার। ইন্ডিয়ান ওয়েলস ও অস্ট্রিয়ার একটি ইভেন্টে বিদায় নেন দ্বিতীয় রাউন্ড থেকে। রোমানিয়ার ট্রান্সিলভানিয়া ওপেন থেকে বাদ পড়েন কোয়ার্টার-ফাইনালে হেরে।

প্রথম সেটের সময় হাতের সমস্যায় চিকিৎসা নিতে হয় রাডুকানুকে

প্রথম সেটের সময় হাতের সমস্যায় চিকিৎসা নিতে হয় রাডুকানুকে

করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হওয়ার পর গত ডিসেম্বরে আবুধাবিতে মুবাদালা ওয়ার্ল্ড টেনিস চ্যাম্পিয়নশিপ প্রদর্শনী ইভেন্ট থেকে সরে দাঁড়ান রাডুকানু। খেলেননি ‘মেলবোর্ন সামার সেট’ নামে অস্ট্রেলিয়ান ওপেনের প্রস্তুতিমূলক টুর্নামেন্টেও।

কদিন আগে এই বছরে নিজের প্রথম ম্যাচে সিডনি টেনিস ক্ল্যাসিকের প্রথম রাউন্ডে মাত্র ৫৫ মিনিটে কাজাখস্তানের এলেনা রিবাকিনার বিপক্ষে তিনি হারেন ৬-০, ৬-১ গেমে।

মাঝের সব ব্যর্থতা ও ধাক্কা পেছনে ফেলে অস্ট্রেলিয়ান ওপেন অভিষেকে শুরুটা অবশ্য দারুণ করেন রাডুকানু। প্রথম রাউন্ডে যুক্তরাষ্ট্রের স্লোয়ান স্টিভেন্সের বিপক্ষে প্রথম সেট জেতেন মাত্র ১৭ মিনিটে। দ্বিতীয় সেটে হারলেও ঘুরে দাঁড়িয়ে ম্যাচটি জেতেন ৬-০, ২-৬, ৬-১ গেমে। সেই পারফরম্যান্স দ্বিতীয় রাউন্ডে অবশ্য টেনে নিতে পারলেন না তিনি।

একই দিনে পুরুষ এককে সরাসরি সেটে হেরে দ্বিতীয় রাউন্ড থেকে বিদায় নিয়েছেন আরেক ব্রিটিশ তারকা অ্যান্ডি মারে। তাকে ৬-৪, ৬-৪, ৬-৪ গেমে হারিয়েছেন জাপানের কোয়ালিফায়ার তারো দানিয়েল।