দরপতন পুঁজিবাজারে

  • নিজস্ব প্রতিবেদক বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
    Published: 2020-02-25 17:53:02 BdST

দরপতন হয়েছে বাংলাদেশের পুঁজিবাজারে। কমেছে বেশিরভাগ কোম্পানির শেয়ারের দর।

সপ্তাহের তৃতীয় দিন মঙ্গলবার প্রধান বাজার ঢাকা এক্সচেঞ্জের (ডিএসই) প্রধান সূচক ডিএসইএক্স ২৯ দশমিক ৬৯ পয়েন্ট কমে অবস্থান করছে ৪ হাজার ৬২১ দশমিক ১৯ পয়েন্টে।

অপর বাজার চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জে (সিএসই) প্রধান সূচক সিএএসপিআই ১১৫ দশমিক ১০ পয়েন্ট কমে অবস্থান করছে ১৪ হাজার ১৪৮ দশমিক ৯৩ পয়েন্টে।

এ নিয়ে টানা চার কর্মদিবস সূচকের পতন হয়েছে দুই বাজারে।

জানুয়ারিতে বড় ধসের পর পুঁজিবাজার জাগাতে গত ১০ ফেব্রুয়ারি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশনায় দীর্ঘ মেয়াদী পরিকল্পনার আওতায় ব্যাংকগুলোকে ‘বিশেষ তহবিল’ গঠনের সুযোগ দেওয়ার পর থেকেই বাজার ঘুরে দাঁড়াতে শুরু করে।

টানা কয়েক দিন লেনদেনের পাশাপাশি সূচকও বাড়ে। কিন্তু গত সপ্তাহের শেষ দিন বৃহস্পতিবার থেকে বাজারে লেনদেন ও সূচক কমছে।

চলতি সপ্তাহের তিন দিনের লেনদেনে তিন দিনই পড়েছে সূচক।  সবমিলিয়ে টানা চার কর্মদিবসে ডিএসইএক্স ১৪০ পয়েন্টের মতো কমেছে।

তবে মঙ্গলবার ডিএসইতে লেনদেন খানিকটা বাড়লেও সিএসইতে কমেছে। ডিএসইতে ৬২৯ কোটি ৬৮ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে। সোমবার লেনদেনের অংক ছিল ৬০০ কোটি ৫৬ লাখ টাকা।

সিএসইতে ২১ কোটি ৮৪ লাখ টাকার শেয়ার হাতবদল হয়েছে। সোমবার লেনদেনের পরিমাণ ছিল ২৫ কোটি ৯৮ লাখ টাকা।

মঙ্গলবার ডিএসইতে অন্য দুই সূচকের মধ্যে ডিএসইএস বা শরীয়াহ সূচক ৩ দশমিক ৬৩ পয়েন্ট কমে অবস্থান করছে ১ হাজার ৬৯ পয়েন্টে। আর ডিএস৩০ সূচক ২০ দশমিক ২৪ পয়েন্ট কমে অবস্থান করছে ১ হাজার ৫৫০ পয়েন্টে।

লেনদেনে অংশ নিয়েছে ৩৫৫টি কোম্পানি ও মিউচ্যুয়াল ফান্ড। এর মধ্যে দর বেড়েছে ১৭৯টির।কমেছে ১২৫টির। আর অপরিবর্তিত রয়েছে ৫১টি কোম্পানির শেয়ার দর।

অন্যদিকে সিএসইতে লেনদেন হয়েছে ২৫৩টি কোম্পানির শেয়ার ও মিউচ্যুয়াল ফান্ড। এর মধ্যে দর বেড়েছে ১১৯টির, কমেছে ১০০টির এবং অপরিবর্তিত রয়েছে ৩৪টির দর।