পছন্দের খবর জেনে নিন সঙ্গে সঙ্গে

ব্যাংকের শেয়ার বাড়াল লেনদেন

  • নিজস্ব প্রতিবেদক বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
    Published: 2021-11-21 20:07:09 BdST

bdnews24

ঊর্ধ্বমুখী ব্যাংকের শেয়ারে ভর করে প্রধান পুঁজিবাজার ডিএসইতে লেনদেন বাড়ার পাশাপাশি সূচকের বড় পতনও ঠেকেছে।

সপ্তাহের প্রথম দিন রোববার আগের কয়েক দিনের ধারা বজায় রেখে ব্যাংকের শেয়ারের দর বাড়তে দেখা গেছে দিনের শুরু থেকেই।

দিনের শেষ পর্যন্ত তালিকাভুক্ত ৩২টি ব্যাংকের মধ্যে ২৭টির দাম বেড়েছে, কমেছে চারটির এবং অপরিবর্তিত ছিল একটির দাম। লেনদেনেও আধিপত্য ছিল এ খাতের শেয়ারের।

রোববার এ বাজারে মোট লেনদেনের ৪৪ শতাংশ ছিল ব্যাংকের শেয়ারের দখলে।

এ খাতে বিনিয়োগকারীদের এমন আগ্রহে ভাটা পড়েছে অন্য খাতে। এতে বাকি সব খাতের বেশির ভাগ শেয়ারের দাম কমেছে। দুই শতাধিক শেয়ারের দর কমায় দিনের বড় অংশেই ডিএসইর প্রধান সূচক ডিএসইএক্স ছিল নিম্নমুখী।

বাজার পর্যবেক্ষণে দেখা গেছে, বড় মূলধনি খাত হিসেবে বিবেচিত ব্যাংকের শেয়ারের দর না বাড়লে সূচকে আরও বড় পতন হতে পারত। চারটি ছাড়া ব্যাংক খাতের সব শেয়ারের দাম বাড়ায় দিন শেষে ডিএসইএক্স সূচক কমেছে ৬ পয়েন্ট।

লেনদেন বৃদ্ধিতে ব্যাংকের ভূমিকার বিষয়ে বাংলাদেশ মার্চেন্ট ব্যাংকার্স অ্যাসোসিয়েশনের সাবেক সভাপতি মোহাম্মদ এ হাফিজ মনে করেন এতদিন ব্যাংকের শেয়ারদর অনেক নিচে নেমেছিল। এখন বিনিয়োগকারীরা আগ্রহ দেখাচ্ছেন।

এদিন সূচক কমেছে অপর পুঁজিবাজার সিএসইতেও। এ বাজারের প্রধান সূচক সিএএসপিআই ৩ দশমিক ৮২ পয়েন্ট কমে অবস্থান করছে ২০ হাজার ৭১৯ দশমিক ৩০ পয়েন্টে।

রোববার ডিএসইতে সূচক কমলেও লেনদেন আগের দিনের তুলনায় ২২ দশমিক ২৬ শতাংশ বা ৩২৫ কোটি ২৪ লাখ টাকা বেড়েছে।

মোট এক হাজার ৭৮৬ কোটি ২৭ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়, যা আগের কর্মদিবসে ছিল এক হাজার ৪৬১ কোটি ৪ লাখ টাকা।

লেনদেনের এ পরিমাণ গত ৪০ দিনের মধ্যে বেশি। এর আগে এর চেয়ে বেশি এক হাজার ৯৫৩ কোটি টাকা লেনদেন হয় গত ১৩ অক্টোবর।

ব্যাংকের মুনাফা: ৯ মাসে বেড়েছে ২৬টির, কমেছে ৬টির  

চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জেও (সিএসই) লেনদেন আগের দিনের তুলনায় ৩৪ দশমিক ৩০ শতাংশ বা ১৮ কোটি ৩৫ লাখ টাকা বেড়েছে।

এদিন মোট ৭১ কোটি ৮৫ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে, যা আগের দিন ছিল ৫৩ কোটি ৫০ লাখ টাকা।

ডিএসইতে দিন শেষে প্রধান সূচক ডিএসইএক্স আগের দিন থেকে ৬ দশমিক ১৫ পয়েন্ট বা দশমিক শূন্য ৯ শতাংশ কমে ৭ হাজার ৮৫ দশমিক ৬৭ পয়েন্টে অবস্থান করছে।

এদিন এ বাজারে ৬৪ শতাংশ কোম্পানির শেয়ারের দাম কমেছে। এর বিপরীতে ৩২ শতাংশের দাম বেড়েছে এবং অপরিবর্তিত রয়েছে ৪ শতাংশ কোম্পানির শেয়ারের দাম।

লেনদেন হওয়া ৩৫৯টি কোম্পানির শেয়ার ও মিউচুয়াল ফান্ডের ইউনিটের মধ্যে দর বেড়েছে ১১৪টির ও কমেছে ২৩০টির। অপরিবর্তিত রয়েছে ১৫টির দর।

ঢাকার অন্য দুই সূচকের মধ্যে ডিএসইএস বা শরীয়াহ সূচক ৫ দশমিক শূন্য ৫ পয়েন্ট কমে অবস্থান করছে ১ হাজার ৪৭৫     দশমিক ২৭ পয়েন্টে।

ডিএস৩০ সূচক ১১ দশমিক ১০ পয়েন্ট কমে অবস্থান করছে ২ হাজার ৬৮৩ দশমিক ৮৪ পয়েন্টে।

লেনদেনের শীর্ষ ১০টি কোম্পানি

বেক্সিমকো লিঃ, আইএফআইসি ব্যাংক, ওয়ান ব্যাংক, ফার্স্ট সিকিউরিটিজ ব্যাংক, এনআরবিসি ব্যাংক, ডেল্টা লাইফ ইন্স্যুরেন্স, প্রিমিয়ার ব্যাংক, মার্কেন্টাইল ব্যাংক, ডাচ্-বাংলা ব্যাংক ও জেনেক্স ইনফোসিস।

দাম বাড়ার তালিকায় শীর্ষ ১০টি

একমি পেস্টিসাইড, সেনা কল্যাণ ইন্স্যুরেন্স, ফার্স্ট সিকিউরিটি ব্যাংক, স্ট্যান্ডার্ড ব্যাংক, ওয়ান ব্যাংক, এসআইবিএল, মিউচুয়াল ট্রাস্ট ব্যাংক, প্রিমিয়ার ব্যাংক, এক্সিম ব্যাংক ও ইন্টারন্যাশনাল লিজিং অ্যান্ড ফাইন্যান্স সার্ভিসেস।

বেশি দর হারানো ১০টি কোম্পানি

এসিআই, আরামিট লিঃ, মনোস্পুল পেপার, মিথুন নিটিং, আর্গন ডেনিমস, পেপার প্রসেসিং, আলিফ ম্যানুঃ, জিলবাংলা সুগার, সাফকো স্পিনিং ও গোল্ডেন সন।

অপর পুঁজিবাজার সিএসইতে ২৭৮টি কোম্পানির শেয়ার ও মিউচুয়াল ফান্ড কেনাবেচা হয়েছে। এর মধ্যে দর বেড়েছে ৯৫টির, কমেছে ১৭৫টির ও অপরিবর্তিত রয়েছে ৮টির দর।