রাশিয়ায় বন্ধ হতে পারে টেলিগ্রাম অ্যাপ

  • প্রযুক্তি ডেস্ক, বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
    Published: 2017-06-23 19:53:29 BdST

bdnews24
ছবি- রয়টার্স

মেসেজিং অ্যাপ টেলিগ্রামের বিরুদ্ধে রুশ আইন লঙ্ঘনের অভিযোগ আনা হয়েছে। শুক্রবার এই অভিযোগ এনেছে দেশটির টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রক সংস্থা রসকোমনাদজর।

টেলিগ্রামের পরিচালক প্রতিষ্ঠানের সম্পর্কে পর্যবেক্ষকদের তথ্য না দিলে অ্যাপটি বন্ধ করে দেওয়া হতে পারে বলেও জানিয়েছে সংস্থাটি, বলা হয়েছে রয়টার্স-এর প্রতিবেদনে।

রসকোমনাদজর প্রধান আলেক্সান্ডার জারভ সংস্থাটির ওয়েবসাইটে প্রকাশিত এক চিঠিতে বলেন, তাদের কাছে প্রয়োজনীয় তথ্য সরবরাহের জন্য টেলিগ্রামের সময় ফুরিয়ে আসছে।

চলতি বছর জানুয়ারিতে এক প্রতিবেদনে ডোনাল্ড ট্রাম্পের সঙ্গে রাশিয়ার সম্পৃক্ততার কথা প্রকাশ করা হয়। এতে গোয়েন্দা সংস্থার দ্বারা নিশ্চিত করা সম্ভব না হলেও ট্রাম্প এবং রাশিয়ার মধ্যে ‘টেলিগ্রাম’ অ্যাপ ব্যবহার করা নিয়ে প্রশ্ন তোলা হয়।

প্রতিবেদনে উল্লেখ করা হয় টেলিগ্রাম অ্যাপকে আর নিরাপদ নাও বলা যেতে পারে। মূলত এন্ড-টু-এন্ড এনক্রিপশনের জন্যই জনপ্রিয় এই অ্যাপটি। রাশিয়ার অভ্যন্তরীণ রাজনৈতিক আর বিরোধী দলীয় কর্মীদের মধ্যে বহুল ব্যবহৃত অ্যাপ হওয়ায় রাশিয়ান সিক্রেট সার্ভিস এফএসবি-এর সাইবার পর্যবেক্ষকদের লক্ষ্যবস্তুতে পরিণত হয়েছে টেলিগ্রাম।

প্রতিবেদনে আশংকা প্রকাশ করে বলা হয় এফএসবি এরই মধ্যে টেলিগ্রাম-এর কমিউনিকেশন সফটওয়্যার সফলভাবে ক্র্যাক করতে সক্ষম হয়েছে। তাই এখন আর ব্যবহারের জন্য নিরাপদ নয় টেলিগ্রাম। প্রতিবেদনে মূলত টেলিগ্রাম ব্যবহারকারীদের জন্য সতর্কবার্তাই প্রকাশ করা হয়েছে।

২০১৬ সালের এপ্রিল মাসে এক ঘটনায় দেখা গেছে এফএসবি এজেন্টরা এসএমএস-এ পাঠানো লগ-ইন তথ্য হাতিয়ে তা ব্যবহার করে বিভিন্ন ব্যক্তির ব্যক্তিগত অ্যাকাউন্ট হ্যাকিংয়ের চেষ্টা করেছেন। পরবর্তীতে ইরানে একইরকম আরেকটি ঘটনা প্রকাশ করা হয় ।

টেলিগ্রামের এনক্রিপশন প্রোটোকলে কোনো বাগ না থাকলেও এমন ঘটনা ঘটায় ব্যবহারকারীরা ঝুঁকির মধ্যে রয়েছে বলে ভাবছেন অনেকেই।


ট্যাগ:  রাশিয়া  টেলিগ্রাম