হুয়াওয়ে কর্মকর্তা টুইট করেছিলেন আইফোন থেকে!

  • প্রযুক্তি ডেস্ক, বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
    Published: 2019-01-05 13:31:04 BdST

bdnews24
ছবি- রয়টার্স

প্রতিষ্ঠানের অফিসিয়াল টুইটার অ্যাকাউন্ট থেকে ইংরেজি নতুন বছরের শুভেচ্ছা পাঠাতে আইফোন ব্যবহার করেছিলেন দুই কর্মী। এই ‘অপরাধের’ কারণে তাদের পদ নামিয়ে দেওয়া হয়েছে, সেইসঙ্গে কাটা হয়েছে বেতনও।

এ আবার কেমন অপরাধ? এমন প্রশ্ন মনে আসতেই পারে। কিন্তু তারা যে স্মার্টফোন জায়ান্ট হুয়াওয়ের কর্মী। চীনা বাজারে এই হুয়াওয়ে আর আইফোন নির্মাতা প্রতিষ্ঠান অ্যাপল জোর প্রতিদ্বন্দ্বী। এ ছাড়াও যুক্তরাষ্ট্রে হুয়াওয়ে’র স্মার্টফোন বিক্রিতে নিষেধাজ্ঞা আসার পর মার্কিন প্রতিষ্ঠানটির সঙ্গে হুয়াওয়ে’র এই প্রতিদ্বন্দীতা আরও বেড়েছে বলা চলে।

হুয়াওয়ে’র কর্পোরেট জ্যেষ্ঠ ভাইস প্রেসিডেন্ট চেন লিফাংয়ের পক্ষ থেকে দেওয়া একটি মেমো দেখতে পেয়েছে রয়টার্স আর ব্লুমবার্গ । এতে লিফাংয়ের পক্ষ থেকে বলা হয়, এই ঘটনায় হুয়াওয়ের “ব্র্যান্ড মর্যাদা ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছে”। যে দুই কর্মী এ কাজ করেছেন তাদের দুজনের পদ নামিয়ে দেওয়ার সঙ্গে তাদের বেতন থেকে পাঁচ হাজার ইওয়ান কাটা হয়েছে। ৩ জানুয়ারি দেওয়া ওই বিবৃতিতে আরও বলা হয়, দুই কর্মীর একজনের বেতন সামনের ১২ মাসের মধ্যে আর বাড়ানো হবে না।

প্রতিষ্ঠানটির অভ্যন্তরীণ ওই বিবৃতিতে আরও বলা হয়, সামাজিক মাধ্যমবিষয়ক সংস্থা স্যাপিয়েন্ট তাদের পিসি ব্যবহার করে শুভেচ্ছা পাঠানোর সময় ‘ভিপিএন সমস্যায়’ পড়ার পর এই ঘটনা ঘটে। ভিপিএন-এর মাধ্যমে চীনের ভেতরে টুইটার ব্যবহারের সুযোগ পাওয়া যায়। ওই শুভেচ্ছা বার্তার টুইট পাঠাতে একটি বিদেশি সিমযুক্ত আইফোন ব্যবহার করা হয়।

টুইটারে এ নিয়ে দেওয়া মূল টুইটটি নিয়ে মাইক্রোব্লগিং সাইটটিতে হাস্যরসের শুরু হয়। ৯টু৫ম্যাক-এর মতো প্রযুক্তিবিষয়ক প্রকাশনাগুলোও এ নিয়ে সমালোচনায় মেতেছে বলে উল্লেখ করা হয় প্রযুক্তি সাইট ভার্জ-এর প্রতিবেদনে। পরে এই টুইট মুছে ফেলা হয়। টুইটার মিডিয়া স্টুডিও থেকে দেওয়া নতুন টুইটেও শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত ২৮৯টি জবাব এসেছে। যার মধ্যে অধিকাংশ জবাবেই মূল টুইটের কথা উল্লেখ করা হয়।