হ্যাকিংয়ে অচল জোহানেসবার্গের প্রশাসনিক সেবা

  • প্রযুক্তি ডেস্ক, বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
    Published: 2019-10-28 13:04:50 BdST

bdnews24
ছবি: রয়টার্স

পৌরসভার অভ্যন্তরীণ ব্যবস্থায় সাইবার হামলার পর নগরের ওয়েবসাইট ও বিলিং ব্যবস্থা বন্ধ রেখেছে দক্ষিণ আফ্রিকার জোহানেসবার্গ। আক্রান্তের তালিকায় রয়েছে বাণিজ্যিক ব্যাংকও।

পৌরসভার ওয়েবসাইটে হামলা চালিয়েছে ‘শ্যাডো কিল হ্যাকারস’ নামের একটি দল। টুইটার পেইজে দলটি দাবি করেছে জোহানেসবার্গের “সব কিছুর নিয়ন্ত্রণ রয়েছে” তাদের হাতে।-- বলা হয়েছে ভারতীয় সংবাদমাধ্যম আইএএনএস-এর প্রতিবেদনে।

“আপনাদের সব সার্ভার এবং ডেটা দখল করা হয়েছে। শহরের সিস্টেমে কয়েক ডজন ব্যাকডোরের খোঁজ রয়েছে আমাদের কাছে। আপনার শহরের সব কিছুর নিয়ন্ত্রণ রয়েছে আমাদের হাতে। আমরা সব পাসওয়ার্ড এবং আর্থিক ও ব্যক্তিগত তথ্যের মতো সংবেদনশীল তথ্যও দখল করেছি।”

অন্য আরেকটি হ্যাকার দলের পক্ষ থেকে হুমকি দেওয়া হচ্ছে যে, সোমবারের মধ্যে চার বিটকয়েনের মাধ্যমে অর্থ দেওয়া না হলে জোহানেসবার্গের গ্রাহকের তথ্য ফাঁস করা হবে। দলটি ‘ডিস্ট্রিবিউটেড ডিনায়াল অফ সার্ভিস’ (ডিডিওএস) হামলা চালানোরও হুমকি দিয়েছে।

ইতোমধ্যেই দক্ষিণ আফ্রিকার বেশ কয়েকটি ব্যাংকেও সাইবার হামলা চালানো হয়েছে এবং এই ব্যাংকগুলোর সেবা বন্ধ রাখা হয়েছে। যে পাঁচটি ব্যাংকে সাইবার হামলা চালানো হয়েছে তার মধ্যে রয়েছে স্ট্যান্ডার্ড ব্যাংক এবং আবসা ব্যাংক। এই দুটি ব্যাংকে ডিস্ট্রিবিউটেড ডিনায়াল অফ সার্ভিসেস আক্রমণ চালানো হয়েছে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হয়েছিল সবগুলো সাইবার হামলা একই দল করেছে। তবে শ্যাডো কিল হ্যাকারস বলছে তারা এই বিচ্ছিন্ন হামলাগুলোর পেছনে নেই।

ঘটনাগুলো তদন্ত করছে নিরাপত্তা বিশেষজ্ঞরা। হামলার প্রভাব সীমিত করতে হিমশিম খাচ্ছেন তারা।

সিটি অফ জোহানেসবার্গের এক মুখপাত্র বলেন, কিছু গ্রাহক সেবা কেন্দ্র এখন চালু করা হয়েছে এবং বাকি সেবাগুলো সপ্তাহান্তের শেষ দিকে চালু হবে।


ট্যাগ:  হ্যাকিং  জোহানেসবার্গ