জাকারবার্গ, স্যান্ডবার্গকে অপসারণের দাবি সরোসের

  • প্রযুক্তি ডেস্ক, বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
    Published: 2020-02-19 13:07:13 BdST

bdnews24
ছবি- রয়টার্স

মার্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের বছরে ফেইসবুকের রাজনৈতিক বিজ্ঞাপন নীতিমালা বিষয়ে ফেইসবুক প্রধান মার্ক জাকারবার্গ এবং প্রধান পরিচালন কর্মকর্তা শেরিল স্যান্ডবার্গকে অপসারণের দাবি জানিয়েছেন মার্কিন ধনকুবের বিনিয়োগকারী জর্জ সরোস।

ফিনান্সিয়াল টাইমসকে দেওয়া এক চিঠিতে সরোস বলেন, “তাদের উভয়েরই প্রতিষ্ঠান ছাড়ার এটাই সময়।”

“নভেম্বরের নির্বাচন পর্যন্ত রাজনৈতিক বিজ্ঞাপন দেওয়া বন্ধ করতে নীতিমালার জন্য অপেক্ষা করার প্রয়োজন নেই প্রতিষ্ঠানের,”-- বলেছেন সরোস।

ডনাল্ড ট্রাম্পের সঙ্গে ফেইসবুকের পারস্পরিক সহযোগিতারও ইঙ্গিত দিয়েছেন তিনি যা ট্রাম্পকে পুনরায় নির্বাচিত হতে সহায়তা করতে পারে-- খবর আইএএনএস-এর।

বিষয়টি নিয়ে এখন পর্যন্ত কোনো মন্তব্য করেনি ফেইসবুক।

ইতোমধ্যেই পুরোপুরিভাবে রাজনৈতিক বিজ্ঞাপন বন্ধ করেছে মাইক্রোব্লগিং সাইট টুইটার। অন্যদিকে ফেইসবুক বলছে, সামাজিক মাধ্যম এবং ইনস্টাগ্রামে কিছু রাজনৈতিক বিজ্ঞাপন দেখানো হবে এবং এগুলো নিষিদ্ধ করা হবে না।

ফেইসবুকের বিরুদ্ধে সরোসের এমন দাবি এবারই প্রথম নয়।

গত মাসেই সরোস দাবি করেছেন ট্রাম্প এবং সামাজিক মাধ্যমটির মধ্যে একটি বিশেষ সম্পর্ক রয়েছে। সরোসের এমন দাবি অস্বীকার করেছে ফেইসবুক।

ডেভোসে ফেইসবুকের সমালোচনায় সরোস দাবি করেন, ২০২০ মার্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে জয়ী হতে ট্রাম্পকে সহায়তা করছে সামাজিক মাধ্যম জায়ান্ট প্রতিষ্ঠানটি।

ফেইসবুকের এক বিবৃতিতে বলা হয়, “আমরা সরোসের কথা বলার অধিকারকে সম্মান জানালেও, তিনি ভুল বলছেন।”

“কোনো একক বা দলীয় রাজনীতিবিদকে সমর্থন করা আমাদের মূল্যবোধের বিরুদ্ধে। আমাদের প্ল্যাটফর্ম নিরাপদ রাখতে, নির্বাচনে বিদেশি হস্তক্ষেপ ঠেকাতে এবং ভুয়া তথ্য প্রচার বন্ধ করতে আমরা বিনিয়োগ চালিয়ে যাবো।”

নিউ ইয়র্ক টাইমসকে দেওয়া সাক্ষাৎকারেও একই দাবি করেছেন সরোস। তার মতে, “প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পকে পুননির্বাচিত করতে সহায়তা করবে ফেইসবুক এবং এর বদলে নীতিনির্ধারক এবং মিডিয়ার হামলা থেকে ফেইসবুককে রক্ষা করবেন ট্রাম্প”।