হ্যাকিংয়ের শিকার মার্কিন প্রতিরক্ষা তথ্য ব্যবস্থা বিভাগ

  • প্রযুক্তি ডেস্ক, বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
    Published: 2020-02-21 15:44:08 BdST

bdnews24
ছবি- রয়টার্স

সাইবার হামলার শিকার হয়েছে মার্কিন প্রতিরক্ষা তথ্য ব্যবস্থা বিভাগ। হোয়াইট হাউজের যোগাযোগ সুরক্ষিত করার দায়িত্ব এই ডিফেন্স ইনফরমেশন সিস্টেমস এজেন্সি’র (ডিআইএসএ)।

হ্যাকিংয়ের বিষয়টি নিশ্চিত করেছে মার্কিন প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়। সাইবার হামলার এ ঘটনায় প্রায় দুই লাখ ব্যক্তির ব্যক্তিগত তথ্য ফাঁস হয়েছে বলে প্রতিবেদনে জানিয়েছে বিবিসি।

প্রেসিডেন্ট ডনাল্ড ট্রাম্পের কলিং ব্যবস্থাসহ সেনাবাহিনীর যোগাযোগ দেখাশোনা করে ডিআইএসএ।

যে তথ্যগুলো ফাঁস হয়েছে তার মধ্যে নাম এবং সামাজিক নিরাপত্তা নাম্বার রয়েছে বলে জানানো হয়েছে।

সেনাবাহিনীর সাইবার নিরাপত্তা ব্যবস্থার দায়িত্বের পাশাপাশি যুদ্ধাঞ্চলে যোগাযোগের নেটওয়ার্ক তৈরির কাজ করে সংস্থাটি।

আট হাজার সেনা এবং সাধারণ কর্মী রয়েছে ডিআইএসএ’র। তবে, অন্যান্য অনেক ব্যক্তির ডেটাও রাখে সংস্থাটি। এ কারণেই এতো বেশি ব্যক্তির ডেটা ফাঁস হয়েছে বলে জানানো হয়েছে।

সাইবার হামলার পেছনে কে বা কার রয়েছে তা জানাননি প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের (ডিওডি) এক মুখপাত্র। তবে, নিয়মিতভাবেই বিভাগটি হুমকির মধ্যে রয়েছে বলে বিবিসিকে জানানো হয়েছে।

“ডিওডি নেটওয়ার্ক প্রতিদিনই হামলার মধ্যে রয়েছে এবং এই হামলা প্রতিহত করতে বিভাগ সব সময় সক্রিয় থাকে,” বলেছেন ওই মুখপাত্র।

সংস্থাটির পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, আক্রান্ত ব্যক্তিদেরকে নোটিফেকশন দেওয়া শুরু হয়েছে এবং তথ্য অপব্যবহারের কোনো প্রমাণ মেলেনি।

২০১৯ সালের গ্রীষ্মে এই তথ্য ফাঁসের ঘটনা ঘটেছে এবং চলতি মাসেই সম্ভাব্য ভুক্তভোগীদেরকে চিঠি দেওয়া শুরু হয়েছে।


ট্যাগ:  সাইবার  হ্যাকিং