অশীতিপর হয়েও হামাকো মোরি গেইম খেলেন ইউটিউবে

  • প্রযুক্তি ডেস্ক, বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
    Published: 2020-05-19 19:26:12 BdST

bdnews24
ছবি: গিনেজ ওয়ার্ল্ড রেকর্ডস

বিশ্বের সর্বজ্যেষ্ঠ ইউটিউব গেইমারের খেতাব পেয়েছেন ৯০ বছর বয়সী এক জাপানি নারী। গেইম খেলে ইউটিউবে পোস্ট করেন হামাকো মোরি নামের ওই নারী। ভিডিও শেয়ারিং সাইটটিতে আড়াই লাখ অনুসারীও রয়েছে তার।

‘গেইমার গ্র্যান্ডমা’ খ্যাত হামাকো মোরি গেইম খেলা শুরু করেছেন ৩৯ বছর আগে। আর নিজের ইউটিউব চ্যানেলটি শুরু করেছেন ২০১৫ সালে। মাসে সর্বোচ্চ চারটি ভিডিও পোস্ট করে থাকেন মোরি। ইউটিউব ভিডিওতে নতুন নতুন কনসোল ‘উন্মোচন’ করা থেকে শুরু করে নানা ধরনের গেইমিং দক্ষতা দেখিয়ে থাকেন বর্ষীয়ান এই গেইমার। সম্প্রতি তাকে বিশ্বের সর্বজ্যেষ্ঠ ইউটিউব গেইমারের খেতাব দিয়েছে গিনেজ ওয়ার্ল্ড রেকর্ডস। -- খবর মার্কিন সংবাদমাধ্যম সিএনএন-এর।

মোরির প্রিয় গেইমগুলোর মধ্যে অন্যতম ‘গ্র্যান্ড থেফট অটো’ সিরিজ। “এতো দীর্ঘসময় বাঁচার পর মনে হচ্ছে এতোটা দিন গেইম খেলে সঠিক কাজ করেছি। আমি আসলেই আমার জীবনকে উপভোগ করেছি, আলোকিত সময় কাটিয়েছি”। - গিনেজ ওয়ার্ল্ড রেকর্ডস মেরিকে উদ্ধৃত করেছে তাদের বিজ্ঞপ্তিতে।

ইউটিউবে শুধু গেইমের ভিডিও না, নিজ জীবনের খণ্ডচিত্রও প্রকাশ করেন মোরি। হাস্যরসের মাধ্যমে সেগুলো তুলে ধরেন সবার কাছে। এরকমই একটি ভিডিও-এর টাইটেলের বাংলা করলে দাঁড়ায়, “৯০ বছরের বুড়ো দাদু খেলেছে ডন্টলেস”। ওই ভিডিওতে দেখা গেছে, জন্মদিনের কেকের মোমবাতি নিভিয়ে রাক্ষস বধে নেমেছেন মোরি।

অনেক সময় রাত ২টা পর্যন্তও গেইম খেলে সময় পার করে দেন মোরি, সংগ্রহে অসংখ্য কনসোলও রয়েছে তার।  কয়েক দশক ধরেই কনসোল সংগ্রহ করছেন তিনি। ‘ক্যাসেট ভিশন’ নামে প্রথম যে কনসোলটি কিনেছিলেন সেটি জাপানের বাজারে এসেছিল ১৯৮১ সালের ৩০ জুলাই।

“দেখে কত মজার মনে হয়েছিল! আর আমি ভেবে দেখলাম শুধু শিশুরাই গেইম খেলবে এই বিষয়টা ঠিক হবে না।” - বলেছেন মোরি।