করোনাভাইরাসের সংক্রমণ ঠেকাতে দক্ষিণ কোরিয়ায় রোবট

  • প্রযুক্তি ডেস্ক, বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
    Published: 2020-06-01 21:08:33 BdST

bdnews24
ছবি- রয়টার্স

করোনাভাইরাসের সংক্রমণ ঠেকাতে অল্প পরিসরে রোবটের ব্যবহার শুরু করেছে বিশ্বের অনেক দেশ। এবারে এমনই এক রোবটের ব্যবহার শুরু করেছে দক্ষিণ কোরিয়ার সবচেয়ে বড় মোবাইল সেবাদাতা প্রতিষ্ঠান এসকে টেলিকম।

প্রতিষ্ঠানের প্রধান কার্যালয়ের লবিতে এলইডি পর্দাসহ একটি স্বচালিত রোবট ব্যবহার করছে এসকে টেলিকম। লবিতে উপস্থিত ব্যক্তিদের তাপমাত্রা মাপা, হ্যান্ড স্যানিটাইজার দেওয়া এবং মেঝে জীবানুমুক্ত করার কাজ করছে রোবটটি-- খবর বার্তা সংস্থা রয়টার্সের।

পাশাপাশি মানুষকে সতর্কও করছে রোবটটি। নিকট দূরত্বে দাঁড়িয়ে আলাপ চালিয়ে যাওয়া প্রতিষ্ঠানের কিছু কর্মীকে রোবটটি বলছে, “দয়া করে সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখুন।”

উৎপাদন এবং পরিচ্ছন্নতার কাজে অনেক আগেই রোবটের ব্যবহার শুরু করেছে কোরিয়া। কিন্তু করোনাভাইরাস সংকটের মধ্যে মানুষের সংস্পর্শ কমাতে এবার নতুন ভূমিকায় এই প্রযুক্তি ব্যবহার করছে দেশটি।

করোনাভাইরাস মহামারী মোকাবেলায় সফল দেশগুলোর একটি দক্ষিণ কোরিয়া। দেশটিতে আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা ১১ হাজার, মারা গেছেন ২৬৯ জন। এবারে দৈনন্দিন জীবনে সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখার দিকে নজর দিচ্ছে দেশটির সরকার।

সংক্রমণ ঠেকাতে যৌথভাবে রোবটটি বানিয়েছে এসকে টেলিকম এবং অমরন ইলেকট্রনিকস কোরিয়া। ৫জি নেটওয়ার্ক প্রযুক্তির মাধ্যমে রিয়েল টাইমে সার্ভারের সঙ্গে ডেটা আদান-প্রদান করে রোবটটি।

কোনো ব্যক্তির তাপমাত্রা ৯৯.৫ ডিগ্রি ফারেনহাইটের ওপর গেলে অ্যালার্ম বাজাবে রোবট। পাশাপাশি, কেউ মাস্ক না পরলে মাস্ক পরার কথা মনে করিয়ে দেবে এটি।

এসকে টেলিকমের ডেটা বাণিজ্য সহযোগিতা বিভাগের প্রধান এবং ডেভেলপারদের একজন রা কিহং হোয়ান বলেন, “মানুষের সঙ্গে মানুষের সংস্পর্শ কমাতে সহায়তার পাশাপাশি প্রবেশপথে তাপমাত্রা পরিমাপের সময় কমাতে সহায়তা করছে রোবটটি এবং এআই আরও নিখুঁত হয়েছে।”

প্রতিষ্ঠানটির দাবি, একটি আল্ট্রাভায়োলেট বাতি এবং দুইটি জীবানুনাশক স্প্রের মাধ্যমে ৩৫৫ বর্গফুটের লবি ১০ মিনিটে ৯৯ শতাংশ জীবানুমুক্ত করতে পারে রোবটটি।