বিলিয়নেয়ার ক্লাবে অ্যাপল প্রধান টিম কুক

  • প্রযুক্তি ডেস্ক, বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
    Published: 2020-08-11 12:43:04 BdST

bdnews24

শতকোটিপতি ক্লাবে নাম লিখিয়েছেন অ্যাপল প্রধান টিম কুক। প্রতিষ্ঠানটির শেয়ার মূল্য বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে টিম কুকের সম্পদের পরিমাণও বেড়েছে।

কুক সরাসরি আট লাখ ৪৭ হাজার ৯৬৯টি শেয়ারের মালিক বলে উঠে এসেছে বিবিসি’র প্রতিবেদনে। আর গত বছর বেতন এবং বোনাস থেকে কুক পকেটে পুরেছেন ১২ কোটি ৫০ লাখ ডলারেরও বেশি।

করোনাভাইরাস মহামারীর সময়টিতে মানুষ অনলাইনে বেশি সময় কাটাচ্ছেন। ফলে আয়ের দিক থেকে ভালো অবস্থানে রয়েছে প্রধান প্রধান প্রযুক্তি প্রতিষ্ঠানগুলো। বিবিসি বলছে, মুনাফা বেড়েছে অ্যাপল, ফেইসবুক ও গুগলের।

উল্লেখ্য, গত সপ্তাহে ফেইসবুক প্রতিষ্ঠাতা মার্ক জাকারবার্গ নাম লিখিয়েছেন ১০০ বিলিয়নের ঘরে।

শুধু কুক নন, এগিয়েছে মূল প্রতিষ্ঠান অ্যাপল-ও। বিশ্বের প্রথম দুই লাখ কোটি ডলার বা দুই ট্রিলিয়ন ডলারের প্রতিষ্ঠান হওয়ার দৌড়ে অনেকটাই এগিয়ে রয়েছে প্রতিষ্ঠানটি। দুই বছর আগে এক ট্রিলিয়ন বা এক লাখ ডলার মূল্যমানের প্রতিষ্ঠান হিসেবেও সবার আগে নাম লিখিয়েছিল অ্যাপল।

নয় বছর আগে অ্যাপল সহ-প্রতিষ্ঠাতা স্টিভ জবসের কাছ থেকে প্রতিষ্ঠানটির দায়িত্ব বুঝে নেন টিম কুক। কুকের শতকোটিপতি খেতাব নির্ভর করে তার মালিকানাধীন অ্যাপল শেয়ার এবং অ্যাপল থেকে পদের জন্য পাওয়া আর্থিক সুবিধার উপর - হিসেবটি করেছে ‘ব্লুমবার্গ বিলিয়নেয়ার ইনডেক্সেস’।

নিজ সম্পদের ব্যাপারে অবশ্য আগে থেকেই এক পরিকল্পনা জানিয়ে রেখেছেন টিম কুক। ২০১৫ সালে তিনি জানান, নিজ সম্পদের অধিকাংশই দান করে দিতে চান তিনি। কুক এরই মধ্যে লাখো ডলার মূল্যের অ্যাপল শেয়ার দানও করেছেন।    

ফেইসবুক প্রধান জাকারবার্গও অনেকটা একই রকম পরিকল্পনার ব্যাপারে জানিয়েছেন, অধিকাংশ শেয়ার দান করে দিতে চান তিনিও।

অ্যামাজন প্রধান জেফ বেজোস এবং টেসলা প্রধান ইলন মাস্কের মতো ফেইসবুক প্রধান মার্ক জাকারবার্গেরও সম্পদ এসেছে নিজ প্রতিষ্ঠানের শেয়ার থেকে, এবং বেজোস, মাস্ক ও জাকারবার্গের প্রত্যেকেই নিজ নিজ প্রতিষ্ঠানের শেয়ারের বড় একটি অংশের মালিক।

কিন্তু সে হিসেবে টিম কুক অল্প কিছু শেয়ারের মালিক। তার মালিকানাধীন শেয়ার অ্যাপলের মোট শেয়ারের ০.০২ শতাংশ।  

যুক্তরাষ্ট্রের ক্যালিফোর্নিয়ার ‘ইউএস ফেডারেল অ্যান্ড স্টেট ট্যাক্সেস’ বলছে, শীর্ষ উপার্জকদের দলভুক্ত হওয়ায় কুকের করের হার ৫০ শতাংশের কিছুটা বেশি হবে।

আইফোনের পর যুগান্তকারী আর কোনো পণ্য না নিয়ে এলেও কুকের অধীনে বেশ ভালোই চলছে অ্যাপল। আইফোন ১০ ও অ্যাপল ওয়াচের মতো ডিভাইস এবং অ্যাপল মিউজিকের মতো সেবার উন্নয়ন তার নেতৃত্বেই হয়েছে।


ট্যাগ:  টিম কুক  অ্যাপল