ফেইসবুকের মতো টুইটারও চাইছে ট্র্যাকিংয়ের অনুমতি

  • প্রযুক্তি ডেস্ক, বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
    Published: 2021-05-15 18:32:30 BdST

bdnews24
ছবি: রয়টার্স

আইওএস ১৪.৫ এর কবলে পড়ে এবার টুইটারও ব্যবহারকারীদের কাছে ট্র্যাকিংয়ের জন্য অনুমতি চাইছে। তবে, ফেইসবুকের মতো আক্রমণাত্মক কিছু করছে না প্ল্যাটফর্মটি। বিনীতভাবে অনুমতি নেওয়ার চেষ্টা করছে তারা।

অ্যাপল আইওএস ১৪.৫ এর মাধ্যমে ব্যবহারকারীদের কাছ থেকে বিজ্ঞাপনী ট্র্যাকিংয়ের জন্য অনুমতি নেওয়া বাধ্যতামূলক করে দিয়েছে। ফেইসবুক স্বাভাবিকভাবেই বিষয়টি ভালোভাবে নিতে পারেনি।

রীতিমতো ক্যাম্পেইন করে ফেইসবুক ও ইনস্টাগ্রাম ব্যবহারকারীদের কাছে বিজ্ঞাপনী ট্র্যাকিংয়ের জন্য অনুমতি চাইছে। অনুমতি না পেলে ভবিষ্যতে সেবার জন্য অর্থ নেওয়া হতে পারে বলেও জানানো হচ্ছে।

ম্যাকরিউমারের প্রতিবেদন বলছে, টুইটারের আইওএস অ্যাপ ৮.৬৫–এ আপডেটের পরপরই পপ-আপ নোটিফিকেশনের মাধ্যমে অনুমতি চাওয়া হচ্ছে। “বিজ্ঞাপনকে সংশ্লিষ্ট রাখার” জন্য অনুমতিটি প্রয়োজন বলেও জানাচ্ছে টুইটার।

উল্লেখ্য, ৮.৫৬ সংস্করণে আপডেটের পর মিলছে অডিও চ্যাট অ্যাপ স্পেসেসের জন্য সমর্থন।

টুইটারের ওই পপ-আপের বার্তা বলছে, “আপনার জন্য সংশ্লিষ্ট বিজ্ঞাপন দেখতে টুইটারকে এ ডিভাইসে অন্য প্রতিষ্ঠানের ডেটা ট্র্যাক করতে দিন, যেমন আপনি যে অ্যাপ ব্যবহার করেন এবং ওয়েবসাইট ভিজিট করেন।”

ওই পপ-আপে ‘কন্টিনিউ’ ট্যাপ করলেই ব্যবহারকারীদেরকে মূল অ্যাপ ট্র্যাকিং স্বচ্ছ্বতা সেটিংসে নিয়ে আসছে টুইটার। কেন অনুমতি চাওয়া হচ্ছে, সে বিষয়ে সমর্থন পোস্ট এবং সেখানে বর্তমান অ্যাপ গোপনতা নীতি নিয়ে একটি লিংক দিয়ে রেখেছে টুইটার।

আইওএস ১৪.৫ আসার পর রাতারাতি অনেকটাই বদলে গেছে অ্যাপ ট্র্যাকিংয়ের চিরচেনা সূত্র। মোবাইল অ্যাপ বিশ্লেষক ফ্লারি অ্যানালেটিক্সের তথ্য অনুসারে, যুক্তরাষ্ট্রে দৈনন্দিন আইওএস ব্যবহারকারীর মাত্র পাঁচ শতাংশ অন্য অ্যাপকে ট্র্যাক করার অনুমতি দিয়েছে।


ট্যাগ:  ফেইসবুক  টুইটার