ইন্টারনেটের প্রথম কোডের এনএফটি নিলামে তুললেন স্যার টিম

  • প্রযুক্তি ডেস্ক, বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
    Published: 2021-06-16 00:42:12 BdST

এনএফটি বা ননফাঞ্জিবল টোকেন আকারে বিক্রি হয়েছে বাঙ্কসির শিল্পকর্ম। এবার ওয়ার্ল্ড ওয়াইড ওয়েবের জনক নিলামের তালিকায় তুললেন ইন্টারনেটের যাত্রা শুরু হয়েছিল যে লাইনগুলোর মাধ্যমে সেই কোড।

স্যার টিম বার্নার্স-লি এনএফটি হিসেবে আধুনিক ইন্টারনেট তৈরিতে ব্যবহৃত তার মূল কোডটি বিক্রি করবেন বলে জানিয়েছে বিবিসি।

এনএফটি হচ্ছে সাধারণত ডিজিটাল পণ্যের জন্য অনন্য মালিকানার একটি ফর্ম এবং যার ওপর  সাধারণত কপিরাইট নিয়ন্ত্রণ থাকে না।

তবে, স্যার টিমের এই উদ্যোগ “অর্থ কামাইয়ের প্রকল্প” এবং পরিবেশবান্ধব নয় বলেও সমালোচিত হয়েছে ব্যাপকভাবে। অসম্ভব গুরুত্বপূর্ণ এই আবিষ্কারের পেটেন্ট না করার সাড়াজাগানো ঘটনায়ও বিস্ময় প্রকাশ করেছেন অনেকে।

নিলাম ঘর সোথবি বলেছে, এই নিলাম থেকে যে অর্থ আসবে তা স্যার টিম এবং তার স্ত্রীর পছন্দসই কোনো সৎউদ্দেশ্যে খরচের জন্য থাকবে।

টিম বার্নার্স লি ১৯৮৯ সালে ওয়ার্ল্ড ওয়াইড ওয়েব উদ্ভাবন করেন - এর ফলেই আমরা এখন ইন্টারনেট ব্যবহার করি। তিনি হাইপারলিঙ্কের মাধ্যমে প্রাথমিক ইন্টারনেটে সঞ্চিত তথ্যের বিভিন্ন অংশ একত্রিত করার একটি পদ্ধতি প্রস্তাব করেন এবং প্রথম ওয়েব ব্রাউজার এবং ওয়েব সার্ভার তৈরি করেন।

টিম বার্নর্স লি যখন সার্ন-এ কাজ করেন। ছবি: সার্ন

টিম বার্নর্স লি যখন সার্ন-এ কাজ করেন। ছবি: সার্ন

প্রথম ওয়েব পাতায় এই ধারণার বর্ণনা দেওয়া হয়েছিল: “ফাইলের বিশাল মহাবিশ্বে বৈশ্বিক প্রবেশাধিকার দেওয়ার উদ্দেশ্যে।”

‘স্বাক্ষরিত অনুলিপি’

সোথবি একটি একক ডিজিটাল এনএফটি হিসাবে চারটি ভিন্ন আইটেমের সংগ্রহ নিলাম করছে। এর মধ্যে রয়েছে প্রকল্পের জন্য লেখা সোর্স কোডের “মূল টাইম-স্ট্যাম্পড ফাইল”, সেই কোডের “একটি অ্যানিমেটেড ভিজ্যুয়ালাইজেশন”, প্রক্রিয়া সম্পর্কে স্যার টিমের একটি চিঠি এবং তার তৈরি কোডের একটি “ডিজিটাল পোস্টার”।

সব মিলিয়ে, ফাইলগুলিতে রয়েছে লিখিত কোডের প্রায় ১০ হাজার লাইন।

স্যার টিম কখনও তার সৃষ্টি থেকে সরাসরি অর্থ উপার্জন করতে চাননি, এবং ওয়েব একটি ‘ওপেন স্ট্যান্ডার্ড’ বা উন্মুক্ত মান হিসেবেই রয়ে গেছে। গবেষণা প্রতিষ্ঠান সার্ন-এ টিম সেই সময় কাজ করছিলেন, এই প্রযুক্তির মালিকানার অধিকার ছেড়ে দিয়ে ১৯৯৩ সালে একে উন্মুক্ত ডোমেইনে রেখেছিলেন। যার মানে হচ্ছে এই প্রযুক্তি বিনা খরচে যে কেউ ব্যবহার করতে পারে।

সোথবি এই সংগ্রহের বিজ্ঞাপন দিচ্ছে “অস্তিত্বে থাকা প্রথম ওয়েব ব্রাউজারের জন্য কোডের একমাত্র স্বাক্ষরিত অনুলিপি”, একজন বিখ্যাত ব্যক্তিত্বের হাতে লেখা জার্নাল যেভাবে বিক্রি করা যেতে পারে, এটি ঠিক তা-ই।

‘এটাই ঠিক’

“কেন এনএফটি? আপনি যখন কম্পিউটার বিজ্ঞানী হবেন আর অনেক বছর ধরে কোড লিখবেন তখন এটি একেবারেই স্বাভাবিক বিষয়”- সোথবি'র প্রকাশিত প্রচারপত্রে স্যার টিম বলেছেন।

“সম্পূর্ণ ডিজিটাল শিল্পকর্মে আমার অটোগ্রাফ ডিজিটালভাবে স্বাক্ষর করাই আমার কাছে সঠিক বলে মনে হয়।”

“এইটিই ওয়েবের উৎস প্যাকেটবন্দী করার আদর্শ উপায়।” - স্যার টিম বলেন।

সোথবি বলছে এই এনএফটি'র কার্বন ফুটপ্রিন্ট নগণ্য, কারণ, এটি বিক্রয়ের পুরো প্রক্রিয়া এবং লেনদেনের ব্যয় মেটানোর প্রক্রিয়ায় যে কার্বন ফুটপ্রিন্ট তৈরি হবে, তার খরচ দেবে। অবশ্য, ব্লকচেইন যার উপর লেনদেনের রেকর্ড থাকে তার প্রতিদিনের খরচ রয়েছে।

সোথবি বলেছে, এই নিলাম ২৩ থেকে ৩০ জুন পর্যন্ত চলবে। যার উদ্বোধনী দর হবে এক হাজার ডলার।