পছন্দের খবর জেনে নিন সঙ্গে সঙ্গে

মাস্কের বক্তব্যে আবারও ঊর্ধ্বমুখী বিটকয়েনের বাজার

  • প্রযুক্তি ডেস্ক, বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
    Published: 2021-07-22 16:14:45 BdST

bdnews24
ছবি: রয়টার্স

আবারও বিটকয়েনের বিনিময়ে গাড়ি বিক্রি শুরু করতে পারে টেসলা। সম্প্রতি এক ক্রিপ্টোকারেন্সি সম্মেলনে এমন ইঙ্গিত দিয়েছেন ইলন মাস্ক। তার ওই বক্তব্যের পর বিটকয়েনের বাজার মূল্য ছাড়িয়েছে ৩০ হাজার ডলার।

বিটকয়েন মাইনিংয়ের পেছনে বিপুল পরিমান বিদ্যুৎ শক্তি খরচ হয়। এই বিদ্যুৎ উৎপাদনে জৈব জ্বালানী ও খনিজ সম্পদের ব্যবহার ও পরিবেশের উপর এর নেতিবাচক প্রভাব নিয়ে পরিবেশবাদীরা সোচ্চার বেশ কিছুদিন ধরে। আর ওই বিতর্কের জেরে মে মাসে বিটকয়েনের বিনিময়ে গাড়ি বিক্রি বন্ধ করে দেন মাস্ক।

তবে বিবিসি জানিয়েছে, সম্প্রতি ওই সিদ্ধান্ত থেকে সরে আসার ইঙ্গিত দিয়েছেন তিনি। “টেসলা হয়তো আবার বিটকয়েন নেওয়া শুরু করবে”, ‘বি ওয়ার্ড ক্রিপ্টোকারেন্সি কনফারেন্স’-এ এই মন্তব্য করেন মাস্ক।

টেসলা আবার ক্রিপ্টোকারেন্সির বিনিমিয়ে গাড়ি বিক্রি করবে কি না, সাংবাদিকদের এমন প্রশ্নের জবাবে মাস্ক জানান, বিটকয়েন মাইনিংয়ে জৈব জ্বালানী ব্যবহারের বিষয়টি খতিয়ে দেখছিলেন তিনি। “আমি এটা নিশ্চিত হতে চাচ্ছিলাম যে চাহিদার অন্তত ৫০ শতাংশ নবায়নযোগ্য খাত থেকে আসছে এবং এই সংখ্যাটা আরও বাড়ানোর চেষ্টাও আছে। তাই যদি হয়, টেসলা হয়তো আবার বিটকয়েন নেয়া শুরু করবে।”

আর্থিক লেনদেনের মাধ্যম হিসেবে বিটকয়েন নেওয়া শুরু করায় চলতি বছরেই টেসলা ও মাস্কের সমালোচনায় মুখর হয়েছিলেন প্রতিষ্ঠানটির বিনিয়োগকারী ও পরিবেশবাদীদের একটা বড় অংশ। পাশাপাশি নিজের খ্যাতি ও অর্থশক্তি কাজে লাগিয়ে মাস্ক ক্রিপ্টোকারেন্সির বাজার প্রভাবিত করছেন-- এমন সমালোচনাও শোনা যাচ্ছিলো তার বিরুদ্ধে।

টেসলা ও স্পেসএক্সের বিটকয়েন ছাড়াও, ব্যক্তিগতভাবে বিটকয়েন, ইথেরিয়াম ও ডোজকয়েন ক্রিপ্টোকারেন্সির মালিক বলে জানিয়েছেন মাস্ক। তবে নিজের খ্যাতির অপব্যবহার করে ক্রিপ্টোকারেন্সির দাম কৃত্রিম উপায়ে বাড়িয়ে আবার সেটা বিক্রি করে নিজের পকেট ফোলানোর মতো অনৈতিক লক্ষ্য নেই বলে জানিয়েছেন তিনি। “দাম বাড়িয়ে বেচে দেওয়ার কৌশলে বিশ্বাস করি না আমি। আমি বিটকয়েনের সাফল্য দেখতে চাই।”

মাস্কের ওই বক্তব্যের পর, বিটকয়েনের বাজারমূল্য ৬ শতাংশ বেড়ে পৌঁছেছে ৩১ হাজার নয়শ’ ৫২ ডলারে। ইথেরিয়ামের দাম বেড়েছে ১০.৬ শতাংশ।