পছন্দের খবর জেনে নিন সঙ্গে সঙ্গে

এবার প্রকাশ্যে এলো কন্টেন্ট মডারেটর - ফেইসবুকের দূরত্ব

  • প্রযুক্তি ডেস্ক বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
    Published: 2021-07-23 18:42:11 BdST

bdnews24
ছবি:  রয়টার্স

গোপনীয়তা চুক্তির বাড়তি কড়াকড়ি আর কাজের পরিবেশ নিয়ে একদমই সন্তুষ্ট নন শীর্ষ সামাজিক মাধ্যম ফেইসবুকের কনটেন্ট মডারেটররা। প্রতিষ্ঠানটিতে ‘ভয়ভীতি প্রদর্শন’ এবং ‘অতিরিক্ত গোপনীয়তার’ সংস্কৃতি আছে বলে অভিযোগ তুলেছেন সোশাল মিডিয়া জায়ান্টের যুক্তরাষ্ট্র ও ইউরোপভিত্তিক কর্মীরা। 

প্রযুক্তিবিষয়ক সাইট দ্য ভার্জ জানিয়েছে, গোপনীয়তা চুক্তির দোহাই দিয়ে কাজের বৈরি পরিবেশ নিয়ে আর চুপ থাকতে রাজি নন ফেইসবুকের চুক্তিভিত্তিক কর্মীরা। সম্প্রতি মার্ক জাকারবার্গ, শেরিল স্যান্ডবার্গ, এবং আউটসোর্সিংয়ের দায়িত্বে থাকা দুই প্রতিষ্ঠান অ্যাক্সেনটিউর ও কোভালেন-এর প্রধান নির্বাহীদের উদ্দেশ্যে লেখা এক চিঠিতে কাজের পরিবেশ এবং ফেইসবুকের আভ্যন্তরীণ সংস্কৃতি নিয়ে নানা অভিযোগ তুলেছেন তারা।

“প্রতিষ্ঠানের পক্ষ থেকে আমাদের চুপ রাখার যতোই চেষ্টা করা হোক না কেন, আমরা এই চিঠির মাধ্যমে ভয়ভীতি ও অতিরিক্ত গোপনীয়তার সংস্কৃতি এখনই বন্ধ করার দাবি জানাচ্ছি। কোনো গোপনীয়তা চুক্তি দিয়ে বৈধভাবে কাজের পরিবেশ নিয়ে কথা বলা থেকে আমাদের বিরত রাখা সম্ভব নয়।”- লিখেছেন ফেইসবুকের কনটেন্ট মডারেটররা।

আয়ারল্যান্ডে চুক্তিভিত্তিক মডারেটরদের সঙ্গে একই বিষয় নিয়ে ফেইসবুকের  বাড়তে থাকা উত্তেজনার মধ্যেই কাজের পরিবেশ নিয়ে সোচ্চার হলেন যুক্তরাষ্ট্র ও ইউরোপের কর্মীরা। গেল মে মাসে আয়ারল্যান্ডে একটি সংসদীয় কমিটির কাছে সাক্ষ্য দেন ফেইসবুকের চুক্তিভিত্তিক মডারেটর ইসাবেলা প্লাঙ্কেট।

“যে কনটেন্ট যাচাই করতে হয়, সেটা ভয়াবহ”, বলেন তিনি। “যে কারও উপর এর নেতিবাচক প্রভাব পড়বে। তারা ওয়েলনেস কোচের ব্যবস্থা করলেও তাদের কেউ চিকিৎসক নন। কোচরা ছবি আঁকার বা কারাওকে-তে যাবার পরামর্শ দেন। কিন্তু কাউকে মার খেয়ে রক্তাত্ত হতে দেখার পর এর কোনোটাই আসলে কাজে আসে না”- যোগ করেন প্লাঙ্কেট।

প্ল্যাঙ্কেটের সাক্ষ্যের সূত্র ধরেই নিয়মিত মনোরোগ বিশেষজ্ঞদের সঙ্গে যোগাযোগের সুযোগ রাখার দাবি তুলেছেন যুক্তরাষ্ট্র ও ইউরোপের কর্মীরা। “ভেবে দেখুন যে, দৈনন্দিন কাজের অংশ হিসেবে ঘন্টার পর ঘন্টা শিশু নির্যাতন বা রক্তারক্তির কনটেন্ট দেখতে হচ্ছে আপনাকে। কেউ এটা থেকে সুস্থ অবস্থায় ফিরতে পারবেন না”, ফেইসবুকের কর্তাব্যক্তিদের উদ্দেশ্যে মডারেটররা এভাবেই লিখেছেন তাদের চিঠিতে। ৬০ জন চুক্তিভিত্তিক মডারেটর স্বাক্ষর করেছেন ওই চিঠিতে। ফেইসবুকের ইন-হাউজ মডারেটরদের সমান বেতন-ভাতার দাবিও তুলেছেন তারা।

এর বিপরীতে এক বিবৃতিতে ফেইসবুকের পক্ষ থেকে বলা হচ্ছে, “আমরা জানি যে কনটেন্ট রিভিউ করা বেশ কঠিন কাজ। এ কারণেই আমরা এমন অংশীদারদের সঙ্গে কাজ করি যারা কর্মীদের প্রশিক্ষণ ও সমর্থন দিয়ে পাশে থাকে। আয়ারল্যান্ডে আমরা সপ্তাহে ৭ দিন ২৪ ঘন্টা প্রশিক্ষিত অনুশীলনকারীদের সেবা ও চাকরির শুরুর দিন থেকে স্বাস্থ্যসেবার ব্যবস্থা নিশ্চিত করে থাকি।”