পছন্দের খবর জেনে নিন সঙ্গে সঙ্গে

নভেম্বরে আসছে ডনাল্ড ট্রাম্পের সামাজিক মাধ্যম ‘ট্রুথ’

  • প্রযুক্তি ডেস্ক, বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
    Published: 2021-10-21 15:20:16 BdST

bdnews24

লাগামহীন বক্তব্য দিয়ে শীর্ষ সামাজিক মাধ্যম ফেইসবুক ও টুইটারে নিষিদ্ধ হয়ে সাবেক মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডনাল্ড ট্রাম্প ঘোষণা দিয়েছিলেন, আলাদা সামাজিক মাধ্যম খুলবেন তিনি নিজে। এবার বুঝি সেই কথা রাখছেন ট্রাম্প, নভেম্বরে বাজারে অভিষেক হচ্ছে তার ‘ট্রুথ’ সামাজিক মাধ্যমের।

নিজস্ব সোশাল মিডিয়া অ্যাপ দিয়ে বাজারে ‘বিগ টেক’ হিসেবে পরিচিত শীর্ষস্থানীয় প্রযুক্তি প্রতিষ্ঠানগুলোর বিপরীতে অবস্থান নেবেন বলে বিবৃতি দিয়েছেন ট্রাম্প।

বার্তাসংস্থা রয়টার্স জানিয়েছে, ট্রাম্পের নতুন সামাজিক মাধ্যম প্রতিষ্ঠানটি গঠিত হচ্ছে ‘ট্রাম্প মিডিয়া অ্যান্ড টেকনোলজি গ্রুপ (টিমটিজি)’ এবং ‘ডিজিটাল ওয়ার্ল্ড অ্যাকুইজিশন কর্পোরেশন’ নামের একটি প্রতিষ্ঠানের একত্রিকরণের মাধ্যমে। একত্রিকরণের চুক্তি নিয়ে সংবাদবিজ্ঞপ্তি প্রচার করছে উভয় প্রতিষ্ঠান।

সংবাদবিজ্ঞপ্তির সঙ্গে ট্রাম্পের ব্যক্তিগত বিবৃতিও পাঠানো হয়েছে বিভিন্ন সংবাদমাধ্যমে। এতে ট্রাম্প বলেছেন, “আমরা এমন একটা পৃথিবীতে বাস করি যেখানে টুইটারে তালিবানের ব্যাপক উপস্থিতি আছে, কিন্তু আপনাদের সবচেয়ে প্রিয় মার্কিন প্রেসিডেন্টকে চুপ করিয়ে দেওয়া হয়েছে। এটা একেবারেই গ্রহণযোগ্য নয়।”

ট্রাম্প আর বলেন “খুব শিগগিরই ট্রুথ সোশালে আমার প্রথম ‘ট্রুথ’ পাঠানো নিয়ে আমি খুবই রোমাঞ্চিত। টিএমটিজি প্রতিষ্ঠা করা হয়েছে সবাইকে (অনলাইনে) কণ্ঠস্বর দেওয়ার লক্ষ্য নিয়ে। ট্রুথ সোশালে আমার চিন্তাগুলো শেয়ার করার জন্য এবং বিগ টেকের বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়ানোর জন্য আমি অধীর আগ্রহে অপেক্ষা করছি।”

রয়টার্স জানিয়েছে, তিন ধাপের কর্মপরিকল্পনা করেছে ট্রাম্পের সামাজিক মাধ্যম প্রতিষ্ঠানটি। প্রথম ধাপে বাজারে এর বেটা সংস্করণের অভিষেক হচ্ছে নভেম্বর মাসে। ২০২২ সালের প্রথম প্রান্তিকে বাজারে আসবে এর পূর্ণ সংষ্করণ। এরপর ‘টিএমটিজি প্লাস’ নামের ভিডিও-অন-ডিমান্ড সেবা চালু করবে প্রতিষ্ঠানটি, এতে থাকবে বিনোদনমূলক কন্টেন্ট, সংবাদ এবং পডকাস্ট।

এই প্রসঙ্গে ট্রাম্প প্রতিনিধিরা সরাসরি কোনো বক্তব্য দিতে রাজি না হলেও তারা টিএমটিজির সংবাদবিজ্ঞপ্তির সত্যতা নিশ্চিত করেছেন রয়টার্সের কাছে। সংবাদবিজ্ঞপ্তিটির একটি কপি টুইট করেছেন ট্রাম্প মুখপাত্র লিজ হ্যারিংটন।

অন্যদিকে ডনাল্ড ট্রাম্প জুনিয়র ফক্স নিউজকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে বলেছেন, “অনেক দিন ধরেই রক্ষণশীল কণ্ঠ চাপা দিয়ে রেখেছে বিগ টেক। আজ রাতে আমার বাবা একটি একত্রিকরণ চুক্তিতে স্বাক্ষর করেছেন যা শেষ পর্যন্ত ট্রাম্প মিডিয়া অ্যান্ড টেকনোলজি গ্রুপ এবং ট্রুথ সোশালে পরিণত হবে। এটি এমন একটি প্ল্যাটফর্ম হবে যেখানে সবাই নিজেদের অনুভূতি প্রকাশ করতে পারবেন।”

চলতি বছরের ৬ জানুয়ারি যুক্তরাষ্ট্রের ক্যাপিটল হিলে ট্রাম্প সমর্থকদের সহিংসতার পরিপ্রেক্ষিতে টুইটার ও ফেইসবুকসহ অন্যান্য সামাজিক মাধ্যম প্রতিষ্ঠানগুলো নিজস্ব প্ল্যাটফর্মে ডনাল্ড ট্রাম্পকে নিষিদ্ধ করা শুরু করে।

মতান্তরে ক্যাপিটল হিলে সহিংসতার অনুঘটক হিসেবে বিবেচনা করা হয় ওই দিন ট্রাম্পের দেওয়া ভাষণকে। ভাষণে যুক্তরাষ্ট্রের ২০২০ সালের নভেম্বরে অনুষ্ঠিত প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে বড় পরিসরে ভোট জালিয়াতির অভিযোগ তুলেছিলেন ট্রাম্প। পরবর্তীতে ট্রাম্পের ওই অভিযোগ প্রত্যাখান করেছে যুক্তরাষ্ট্রের একাধিক আদালত এবং নির্বাচনের দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্মকর্তারা।

রয়টার্স জানিয়েছে, নতুন সামাজিত মাধ্যম প্রতিষ্ঠানের জন্য ট্রাম্প যে একত্রিকরণ চুক্তি করেছেন তার পরিপ্রেক্ষিতে যুক্তরাষ্ট্রের নাসডাক শেয়ার বাজারে নিবন্ধিত হবে টিএমটিজি। একত্রিকরণ চুক্তির অংশ হিসেবে ডিজিটাল ওয়ার্ল্ড অ্যাকুইজিশন কর্পোরেশনের কাছ থেকে ২৯ কোটি ৩০ লাখ ডলারের নগদ তহবিল পেতে পারে টিএমটিজি।

রয়টার্স জানিয়েছে, ডিজিটাল ওয়ার্ল্ড অ্যাকুইজিশন কর্পের নেতৃত্ব দিচ্ছেন সাবেক বিনিয়োগ ব্যাংকার প্যাট্রিক অরল্যান্ডো। এ পর্যন্ত চারটি ‘স্পেশাল অ্যাকুইজিশন কোম্পানি (স্প্যাক)’ শুরু করেছেন অরল্যান্ডো, পরিকল্পনা আছে আরও দুটির। এখন পর্যন্ত একত্রিকরণ চুক্তি সম্পাদন করতে পারেনি ওই চার প্রতিষ্ঠানের একটিও।