পছন্দের খবর জেনে নিন সঙ্গে সঙ্গে

টেনসেন্টকে নতুন অ্যাপ আনতে নিষেধ করেছে চীন

  • প্রযুক্তি ডেস্ক, বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
    Published: 2021-11-26 17:10:26 BdST

bdnews24
ছবি: রয়টার্স

চীনের শীর্ষস্থানীয় প্রযুক্তি প্রতিষ্ঠান টেনসেন্টকে নতুন কোনো অ্যাপ উন্মুক্ত করতে নিষেধ করেছে দেশটির সরকার। বাজারে থাকা অ্যাপগুলোর জন্য সফটওয়্যার আপডেট উন্মুক্ত করা থেকেও টেনসেন্টকে বিরত থাকতে বলেছে চীনের শিল্প ও তথ্যপ্রযুক্তি মন্ত্রণালয়।

টেনসেন্টের উপর চীন সরকারের হঠাৎ নিষেধাজ্ঞার খবর নিশ্চিত করেছে বার্তাসংস্থা বিবিসি। নভেম্বর মাসেই নতুন গোপনতা নীতিমালা এনেছে চীনের বাজার নিয়ন্ত্রক কর্তৃপক্ষ। বিবিসি'র প্রতিবেদন বলছে, প্রযুক্তি প্রতিষ্ঠানগুলোর কর্মকাণ্ড নতুন নীতিমালার সঙ্গে সামঞ্জস্যপূর্ণ কী না, সেই বিষয়টি খতিয়ে দেখছেন নীতি নির্ধারকরা।

তবে, বাজারে প্রচলিত টেনসেন্ট অ্যাপগুলো ডাউনলোডের উপর কোনো নিষেধাজ্ঞা দেয়নি কর্তৃপক্ষ। তবে, নতুন অ্যাপ ও আপডেট বাজারজাতকরণের উপর অস্থায়ী নিষেধাজ্ঞা চলতি বছরের শেষ পর্যন্ত জারি থাকতে পারে।

এ প্রসঙ্গে এক বিবৃতিতে টেনসেন্ট বলেছে, “আমাদের অ্যাপের মধ্যে নিরাপত্তা ফিচার উন্নয়নে আমরা কাজ চালিয়ে যাচ্ছি। নীতিমালা অনুবর্তিতা নিশ্চিত করতে যথাযথ সরকারি সংস্থাকেও নিয়মিত সহযোগিতা করছি আমরা। আমাদের অ্যাপগুলো কার্যকর আছে এবং ডাউনলোড করা যাচ্ছে।” 

নভেম্বরের শুরু থেকেই নতুন ‘তথ্য সুরক্ষা আইন’ কার্যকর করেছে চীন সরকার। বিবিসি বলছে, প্রযুক্তি প্রতিষ্ঠানগুলোর লাগাম আরও শক্তহাতে টেনে ধরার লক্ষ্যেই নতুন আইন প্রণয়ন করেছে দেশটি।

চীনের সরকারি সংবাদসংস্থা সিসিটিভি জানিয়েছে, ২৪ নভেম্বর থেকে বছরের শেষ পর্যন্ত সব নতুন অ্যাপ ও আপডেট রিভিউ করে দেখা হবে বলে জানিয়েছে মন্ত্রণালয়।

সাম্প্রতিক মাসগুলোতে চীনের বাজারে বিভিন্ন দিক থেকে চাপের মুখে পড়েছে স্থানীয় ও আন্তর্জাতিক প্রযুক্তি প্রতিষ্ঠানগুলো। কড়াকড়ি আরোপ করা হয়েছে ইকমার্স প্রতিষ্ঠান, অনলাইন আর্থিক সেবা, সামাজিক মাধ্যম, গেইম নির্মাতা, ক্লাউড কম্পিউটিং সেবাদাতা এবং ক্রিপ্টোকারেন্সি লেনদেন কেন্দ্রিক প্রতিষ্ঠানগুলোর উপর।

মতান্তরে, ভিডিও গেইমে বিশ্বের সবচেয়ে বড় বিক্রেতা টেনসেন্ট। উইচ্যাট সুপার অ্যাপ এবং কিউকিউ মেসেজিং প্ল্যাটফর্মও রয়েছে প্রতিষ্ঠানটির মালিকানায়।