২৫ মার্চ ২০১৯, ১১ চৈত্র ১৪২৫

পাকিস্তানি পণ্যে ২০০ শতাংশ শুল্ক আরোপ ভারতের

  • নিউজ ডেস্ক বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
    Published: 2019-02-17 10:16:55 BdST

bdnews24
সমুদ্র বন্দরে নোঙ্গর করা পণ্যবাহী জাহাজ। ছবি: এনডিটিভি

কাশ্মীরে ভারতীয় নিরাপত্তা বাহিনীর ওপর ভয়াবহ আত্মঘাতী হামলার ঘটনার প্রতিক্রিয়ায় প্রতিবেশী দেশ পাকিস্তানের সব ধরনের পণ্যের আমদানি শুল্ক বাড়িয়ে ২০০ শতাংশ করেছে ভারত।

শনিবার সন্ধ্যায় এক টুইটে এ সিদ্ধান্তের কথা জানান ভারতের অর্থমন্ত্রী অরুণ জেটলি, খবর এনডিটিভির।

টুইটে তিনি বলেন, “পুলওয়ামা ঘটনার পর পাকিস্তানকে দেওয়া ‘সবচেয়ে সুবিধাপ্রাপ্ত দেশ’র (এমএফএন) মর্যাদা প্রত্যাহার করেছে ভারত। প্রত্যাহারের পর পাকিস্তান থেকে ভারতে আমদানি করা সব ধরনের পণ্যের শুল্ক ২০০ শতাংশে উন্নীত করা হয়েছে।”

দুই দেশের মধ্যে বৈষম্যহীন বাণিজ্যের জন্য বাণিজ্য অংশীদারদের এমএফএন সুবিধা দেওয়া হয়। ১৯৯৬ সালে পাকিস্তানকে এই মর্যাদা দিয়েছিল ভারত।

পাকিস্তানের অর্থনৈতিক সংকট চলার সময় এই সুবিধা প্রত্যাহার করে নেওয়ায় দেশটি ক্ষতিগ্রস্ত হবে বলে দাবি করেছে ভারতীয় সরকার। কিন্তু এনডিটিভি বলছে, দুই দেশের দ্বিপাক্ষিক বার্ষিক বাণিজ্যের পরিমাণ মাত্র দুইশ কোটি ডলারের কাছাকাছি হওয়ায় এই পদক্ষেপ অনেকটা প্রতীকি।

ভারত পাকিস্তান থেকে প্রধানত ফল, সিমেন্ট, চামড়া, রাসায়নিক ও মসলা আমদানি করে এবং দেশটিতে সূতিবস্ত্র, রঙ, রাসায়নিক, সব্জি, লোহা ও ইস্পাত রপ্তানি করে থাকে।

বৃহস্পতিবার জম্মু ও কাশ্মীর রাজ্যের জম্মু-শ্রীনগর মহাসড়কে ভারতীয় আধাসামরিক বাহিনীর গাড়িবহরে আত্মঘাতী হামলা চালায় জঙ্গিগোষ্ঠী জইশ-ই-মোহাম্মদ। এ হামলার ভারতীয় নিরাপত্তা বাহিনীর ৪০ জন সদস্য নিহত হন।

এই হামলার জন্য পাকিস্তানকে দায় দিয়ে দেশটিকে দেওয়া এমএফএন সুবিধা প্রত্যাহার করে নেয় ভারত। পাশাপাশি আন্তর্জাতিকভাবে পাকিস্তানকে ‘একঘরে’ করতে কূটনৈতিক উদ্যোগ নেওয়ার কথা ঘোষণা করে তারা।