দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের পর সবচেয়ে বড় পরীক্ষা: জাতিসংঘ প্রধান

  • নিউজ ডেস্ক বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
    Published: 2020-04-01 10:42:23 BdST

bdnews24
শিল্পোন্নত দেশগুলোর প্রতি স্বল্পোন্নত দেশগুলোকে সাহায্য করার আর্জি জানিয়েছেন জাতিসংঘ মহাসচিব। ছবি: রয়টার্স

নভেল করোনাভাইরাসের চলতি প্রাদুর্ভাব দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের পর থেকে বিশ্বের জন্য সবচেয়ে বড় পরীক্ষা বলে সতর্ক করেছেন জাতিসংঘ মহাসচিব আন্তনিও গুতেরেস।

এই সঙ্কট মন্দা নিয়ে আসতে পারে ‘সম্ভবত যার সমান্তরাল নজির সাম্প্রতিক ইতিহাসে নেই’ বলে মন্তব্য করেছেন তিনি। 

মঙ্গলবার নিউ ইয়র্কে জাতিসংঘের সদরদপ্তরে করোনাভাইরাস প্রাদুর্ভাবের সম্ভাব্য আর্থসামাজিক প্রভাব নিয়ে জাতিসংঘের প্রতিবেদন প্রকাশকালে তিনি এসব কথা বলেন, জানিয়েছে বিবিসি।

“নতুন করোনাভাইরাস রোগ সমাজগুলোর মর্মমূলে আঘাত হানছে, মানুষের জীবন ও জীবিকা কেড়ে নিচ্ছে।

“জাতিসংঘ গঠিত হওয়ার পর থেকে কোভিড-১৯ আমাদের সবচেয়ে বড় পরীক্ষার মুখে ফেলেছে,” বলেছেন তিনি।   

“সংক্রমণ রোধ করতে ও মহামারীর ইতি ঘটাতে আশু সমন্বিত স্বাস্থ্য উদ্যোগ নেয়ার” আহ্বানও জানিয়েছেন জাতিসংঘ মহাসচিব।

শিল্পোন্নত দেশগুলোর প্রতি স্বল্পোন্নত দেশগুলোকে সাহায্য করার আর্জি জানিয়েছেন, না হলে ‘দাবানলের মতো ছড়িয়ে পড়া রোগটির দুঃস্বপ্নের মুখোমুখি হতে হবে’ বলে সতর্ক করেছেন।

জাতিসংঘের প্রতিবেদনে করোনাভাইরাস প্রাদুর্ভাবের কারণে বিশ্বজুড়ে আড়াই কোটি কর্মসংস্থান নষ্ট হতে পারে বলে হিসাব করা হয়েছে। এই প্রাদুর্ভাবের কারণে বিশ্বব্যাপী বিদেশি বিনিয়োগের ধারায় ৪০ শতাংশ ‘অবনমন’ হতে পারে বলে আশঙ্কা প্রকাশ করা হয়েছে।     

জনস হপকিন্স বিশ্ববিদ্যালয় কোভিড-১৯ রোগের বিশ্ব পরিস্থিতি নিয়ে বুধবার সকালে যে হাল নাগাদ তথ্য দিয়েছে, তাতে বিশ্বজুড়ে আক্রান্তের সংখ্যা এখন আট লাখ ৬০ হাজারের কাছাকাছি আছে এবং মৃত্যুর সংখ্যা ৪২ হাজার ছাড়িয়ে গেছে।

গত বছরের ডিসেম্বরের শেষ দিকে চীনে প্রাদুর্ভাবটি শুরু হলেও ইতালি, স্পেনের পর এখন যুক্তরাষ্ট্র, ফ্রান্সও মৃতের সংখ্যায় চীনকে ছাড়িয়ে গেছে।

এক লাখ ৮৯ হাজার ৫১০ জন নিয়ে আক্রান্তের সংখ্যায় শীর্ষে থাকা যুক্তরাষ্ট্রে মৃত্যুর সংখ্যা চার হাজার ছাড়িয়ে গেছে। ৫২ হাজার ৮৩৬ জন আক্রান্ত নিয়ে ফ্রান্স চীনের পেছনে থাকালেও মৃতের সংখ্যায় (৩৫৩২) এগিয়ে গেছে।

চীনে এখন আক্রান্ত ৮২ হাজার ২৯০ জন এবং মৃতের সংখ্যা ৩৩১০ জন।