চীনে আমদানি করা স্কুইডের প্যাকেটে করোনাভাইরাস

  • নিউজ ডেস্ক বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
    Published: 2020-09-21 12:42:15 BdST

bdnews24
চীনের সিচুয়ান প্রদেশের চেংদুতে লোকজন রেস্তোরাঁয় বসে খাবার খাচ্ছে। ছবি: রয়টার্স

চীনের উত্তরপূর্বাঞ্চলীয় জিলিন প্রদেশের কর্তৃপক্ষ আমদানি করা স্কুইডের প্যাকেটে নতুন করোনাভাইরাসের অস্তিত্ব পেয়েছে।

রোববার প্রদেশটির ফুয়ু নগরের স্বাস্থ্য কর্তৃপক্ষ এমনটি জানিয়ে এসব প্যাকেট যদি কেউ কিনে থাকেন তবে তাদের নিজেদের স্বাস্থ্য পরীক্ষা করানোর আহ্বান জানিয়েছে।

২৪ থেকে ৩১ অগাস্টের মধ্যে যারা সিফুডের পাইকারি দোকান সানজিয়া দিদা থেকে আমদানি করা স্কুইড কিনে খেয়েছেন তাদের এলাকার কর্তৃপক্ষকে বিষয়টি অবহিত করে কোভিড পরীক্ষা করানোর ব্যবস্থা নিতে বলতে বলেছে নগর স্বাস্থ্য দপ্তর।

ফুয়ু নগরের স্বাস্থ্য দপ্তর নিজেদের দাপ্তরিক উইচ্যাট একাউন্টে বলেছে, চালানগুলোর মধ্যে একটি প্রাদেশিক রাজধানী চাংচুন হয়ে ফুয়ু শহরে এসেছে।  

চাংচুনের কোভিড-১৯ প্রতিরোধ দপ্তর জানিয়েছে, ওয়ানচুয়ান শহরের একটি কোম্পানি স্কুইডগুলো রাশিয়া থেকে আমদানি করে প্রাদেশিক রাজধানীতে নিয়ে এসেছিল।

শুক্রবার চীনের শুল্ক বিভাগ বলেছে, যদি হিমায়িত খাদ্য পণ্যে করোনাভাইরাস পাওয়া যায় তাহলে সংশ্লিষ্ট কোম্পানিগুলো থেকে আমদানি এক সপ্তাহের জন্য আর কোনো সরবরাহকারীর পণ্য পরীক্ষায় তৃতীয়বারের মতো বা তারও বেশিবার ফল পজিটিভ আসে তাহলে আমদানি এক মাসের জন্য স্থগিত রাখবে তারা।

গত বছরের শেষ দিকে চীনের উহান শহর থেকে করোনভাইরাস সংক্রমণ বিশ্বময় ছড়িয়ে প্রাণঘাতী মহামারীর রূপ নিয়েছে। এই ভাইরাসজনিত রোগ কোভিড-১৯ এ বিশ্বজুড়ে সংক্রমণ ৩ কোটি ১০ লাখ ছাড়িয়ে গেছে, মৃত্যু হয়েছে ৯ লাখ ৬০ হাজারেরও বেশি লোকের।

চীন থেকে ছড়ালেও দেশটির মূল ভূখণ্ডে এখন দৈনিক শনাক্ত হওয়া রোগীর সংখ্যা হাতেগোনা। শনিবার সেখানে ১০ জন নতুন রোগী শনাক্ত হয়েছে বলে দেশটির স্বাস্থ্য কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে। সম্প্রতি বিদেশ থেকে ফেরা লোকজনের মধ্যেই রোগটি বেশি শনাক্ত হচ্ছে বলে জানিয়েছে তারা।    

অগাস্টে চীনের দুইটি শহরের স্থানীয় কর্তৃপক্ষ আমদানি করা হিমায়িত পণ্যে ভাইরাসের সন্ধান পাওয়ার কথা জানিয়েছিল। তখন বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডব্লিউএইচও) জানিয়েছিল, কোভিড-১৯ খাবারের মাধ্যমে বা প্যাকেটের মাধ্যমে ছড়ানোর কোনো প্রমাণ পায়নি তারা।