করোনাভাইরাস: যুক্তরাষ্ট্রে একদিনেই ৮৩ হাজারের বেশি রোগী শনাক্ত

  • নিউজ ডেস্ক, বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
    Published: 2020-10-24 15:38:25 BdST

bdnews24

সংক্রমণের নতুন ঢেউ নিয়ে উদ্বিগ্ন যুক্তরাষ্ট্রে একদিনেই ৮৩ হাজারের বেশি কোভিড-১৯ রোগী শনাক্ত হয়েছে।

শুক্রবারের এ রেকর্ড দৈনিক শনাক্ত নিয়ে দেশটিতে সরকারি হিসাবেই করোনাভাইরাসে মোট আক্রান্তের সংখ্যা ৮৫ লাখের কাছাকাছি পৌঁছে গেছে বলে এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে বিবিসি।

রোগীর সংখ্যা বাড়তে থাকায় সামনের দিনগুলোতে যুক্তরাষ্ট্রে হাসপাতালে ভর্তির পরিমাণ বাড়বে বলে সতর্ক করেছেন মার্কিন সার্জন জেনারেল জেরোম অ্যাডামস।

তার ধারণা, হাসপাতালে রোগীর চাপ বাড়লেও এবার মৃত্যুর সংখ্যা আগের তুলনায় অনেক কম হবে। 

সংক্রমণের ঊর্ধ্বগতি নিয়ে উত্তর গোলার্ধের দেশগুলোকে সাবধান করেছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থাও (ডব্লিউএইচও)।

“সামনের কয়েকটি মাস খুবই কঠিন হতে যাচ্ছে, কিছু কিছু দেশ বিপজ্জনক পথে রয়েছে,” সাংবাদিকদের এমনটাই বলেছেন ডব্লিউএইচওর মহাপরিচালক তেদ্রোস আধানম গ্যাব্রিয়েসুস।

শুক্রবার যুক্তরাষ্ট্রের সব রাজ্যের স্বাস্থ্য কর্তৃপক্ষের কাছ থেকে তথ্য নিয়ে কোভিড ট্র্যাকিং প্রজেক্ট ২৪ ঘণ্টায় দেশটিতে নতুন ৮৩ হাজার ১০ জনের শরীরে ভাইরাসের উপস্থিতি শনাক্ত হয়েছে বলে জানিয়েছে।

একই প্রতিষ্ঠানের হিসাবে ১৭ জুলাই যুক্তরাষ্ট্রে ৭৬ হাজার ৮৪২ জনের দেহে করোনাভাইরাস শনাক্ত হয়েছিল। শুক্রবার তার চেয়েও ৬ হাজার বেশি রোগী মিলল।

গত এক সপ্তাহে যুক্তরাষ্ট্রে নতুন ৪ লাখ ৪১ হাজার ৫৪১ জন নতুন কোভিড-১৯ রোগী শনাক্ত হয়েছে। দেশটিতে জুলাইয়ের পর আর কোনো সপ্তাহে এর চেয়ে বেশি রোগী পাওয়া যায়নি বলে জানিয়েছে বিবিসি।

যুক্তরাষ্ট্রের মধ্য পশ্চিমাঞ্চলীয় রাজ্যগুলোতে এখন সংক্রমণের ব্যাপক ঊর্ধ্বগতি লক্ষ্য করা যাচ্ছে। ওহাইও, নর্থ ডাকোটা, মন্টানা ও উইসকনসিনে শনাক্ত রোগীর সংখ্যা হু হু করে বাড়ছে।

দৈনিক শনাক্তে নতুন রেকর্ড কিংবা রেকর্ডের কাছাকাছি রোগী মিলছে ইলিনয়, ইন্ডিয়ানার মতো কয়েকটি রাজ্যেও।

দক্ষিণ পশ্চিমের রাজ্যগুলোর মধ্যে উটাহ একদিনে সবচেয়ে বেশি রোগী শনাক্ত করেছে। রাজ্যটির ২১টি এলাকায় মাস্ক পরা বাধ্যতামূলক করা হয়েছে।

সংক্রমণের এ ঊর্ধ্বগতির মধ্যেও যুক্তরাষ্ট্রজুড়ে ৩ নভেম্বরের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের জোর প্রচার অব্যাহত আছে।

শুক্রবার ফ্লোরিডায় এক সমাবেশে দেশটির প্রেসিডেন্ট ট্রাস্প শিগগিরই মহামারীর সমাপ্তি ঘটবে বলে সমর্থকদের আশ্বস্ত করেছেন।

লোকজনকে ভয় দেখিয়ে নিজের ভোট প্রাপ্তি নিশ্চিত করতে জো বাইডেন ভাইরাসের বিপদ বাড়িয়ে বলছেন বলেও অভিযোগ করেছেন তিনি।

অন্যদিকে ডেলাওয়ারে এক অনুষ্ঠানে দেওয়া বক্তৃতায় ডেমোক্র্যাট প্রেসিডেন্ট প্রার্থী বাইডেন ‘প্রেসিডেন্ট হাল ছেড়ে দিয়েছেন’ বলে মন্তব্য করেছেন।

নির্বাচিত হলে রাজ্যের গভর্নরদেরকে মাস্ক বাধ্যতামূলক করতে অনুরোধ করবেন বলেও জানিয়েছেন সাবেক এ ভাইস প্রেসিডেন্ট। কোভিড-১৯ এর  কোনো ভ্যাকসিন অনুমোদিত হলে তা যুক্তরাষ্ট্রের সবাইকে বিনামূল্যে দেওয়া হবে বলেও বাইডেন প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন।