আরব দেশগুলোকে ‘ফরাসি পণ্য বর্জন’ রোধ করার অনুরোধ ফ্রান্সের

  • নিউজ ডেস্ক, বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
    Published: 2020-10-26 10:59:42 BdST

bdnews24
কুয়েতের একটি দোকানের তাক থেকে ফ্রান্সের তৈরি পণ্য সরিয়ে নেওয়া হয়েছে। ছবি: রয়টার্স

মহানবী মুহাম্মদের (সা.) কার্টুন দেখানোর পক্ষে প্রেসিডেন্ট ইমানুয়েল ম্যাক্রোঁর অবস্থানের প্রতিবাদে ফরাসি পণ্য বর্জনের ডাক রোধ করার জন্য মধ্যপ্রাচ্যের দেশগুলোর প্রতি অনুরোধ জানিয়েছে ফ্রান্স।

ফ্রান্সের পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেছেন, পণ্য বর্জনের ‘ভিত্তিহীন’ এই ডাক দিয়েছে ‘উগ্র সংখ্যালঘুরা’।

বিবিসি জানিয়েছে, কুয়েত, জর্ডান ও কাতারের কিছু দোকান থেকে ফরাসি পণ্য সরিয়ে ফেলা হয়েছ। ইতোমধ্যে লিবিয়া, সিরিয়া ও গাজা ভূখণ্ডে প্রতিবাদ হয়েছে।

ফ্রান্সে ইতিহাসের এক শিক্ষক ক্লাসে মহানবী মুহাম্মদ (সা.)-এর কার্টুন দেখানোর কারণে হত্যাকাণ্ডের শিকার হওয়ার ঘটনায় দেশজুড়ে ক্ষুব্ধ প্রতিক্রিয়ার পর ম্যাক্রোঁ মৌলবাদী ইসলামের বিপরীতে দেশের ধর্মনিরপেক্ষ মূল্যবোধ সমুন্নত রাখা নিয়ে দৃঢ়কণ্ঠে কথা বলেন। ‘ফ্রান্স ব্যঙ্গচিত্র দেখানো বন্ধ করবে না’ বলেও জানান তিনি।

তার এসব মন্তব্যে বিশ্বজুড়ে মুসলিমদের মধ্যে নেতিবাচক প্রতিক্রিয়া দেখা দেয়। ইসলামিক ঐতিহ্যে মহানবী (সাঃ) ও আল্লাহর কোনো ছবি প্রদর্শন স্পষ্টভাবে নিষিদ্ধ। এ ধরনের কোনো কিছু মারাত্মক অপরাধ বলে গণ্য হয়।

অপরদিকে ধর্মীয় প্রতিষ্ঠানগুলো থেকে রাষ্ট্রকে পৃথক রাখার রীতি বা ধর্মনিরপেক্ষতা, ফ্রান্সের জাতীয় পরিচয়ের কেন্দ্রবিন্দু। ফ্রান্স বলছে, কোনো একটি ধর্মীয় সম্প্রদায়ের অনুভূতিকে সুরক্ষা দিতে মত প্রকাশের স্বাধীনতাকে দমন করা হলে তাতে তাদের জাতীয় ঐক্য ক্ষতিগ্রস্ত হয়। 

রোববার ফরাসি এই মূল্যবোধের পক্ষে ফের টুইট করে ম্যাক্রোঁ বলেছেন, “আমরা কখনোই হস্তক্ষেপ করবো না।”

অপরদিকে ‘বিশ্বাসের স্বাধীনতার’ প্রতি শ্রদ্ধা প্রদর্শন না করার জন্য ও ফ্রান্সের লাখ লাখ মুসলিমকে অবজ্ঞা করার জন্য ম্যাক্রোঁর তীব্র সমালোচনা করেছেন তুরস্ক প্রেসিডেন্ট রিজেপ তায়িপ এরদোয়ান ও পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান।

রোববার জর্ডান, কাতার ও কুয়েতের কিছু সুপারমার্কেটের ডিসপ্লে থেকে ফ্রান্সের তৈরি সৌন্দর্য চর্চার উপকরণসহ বিভিন্ন ফরাসি পণ্য সরিয়ে নেওয়া হয়।

কুয়েতে খুচরা পণ্য বিক্রেতাদের একটি প্রধান সমিতি ফরাসি পণ্য বর্জনের আদেশও দিয়েছে।

এক বিবৃতিতে ফ্রান্সের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় এসব প্রতিক্রিয়ার কথা স্বীকার করে বলেছে, “পণ্য বর্জনের এসব ডাক ভিত্তিহীন এবং তাৎক্ষণিকভাবে বন্ধ হওয়া উচিত, পাশাপাশি আমাদের দেশের বিরুদ্ধে আক্রমণও- একটি উগ্র সংখ্যালঘুরা যার ইন্ধন দিচ্ছে- বন্ধ হওয়া উচিত।”

আরও পড়ুন:

এবার ফ্রান্সের প্রেসিডেন্ট ম্যাক্রোঁর কঠোর সমালোচনায় ইমরান খান  

ম্যাক্রোঁর মানসিক স্বাস্থ্য নিয়ে তুরস্কের মন্তব্যে ক্ষুব্ধ ফ্রান্স, রাষ্ট্রদূত প্রত্যাহার  

শিক্ষক খুন: মসজিদ বন্ধ করল ফ্রান্স  

প্যারিসে শিক্ষককে গলা কেটে হত্যা ‘সন্ত্রাসী হামলা’, আটক ৯  

ফ্রান্সে শিক্ষকের সমর্থনে, রক্তপাতের প্রতিবাদে বিশাল সমাবেশ  

ফ্রান্সে ছুরি হামলা, পুলিশের গুলিতে হামলাকারী নিহত