‘জন্মদিনের পার্টিতে দাওয়াত না পাওয়া’ কলোরাডো হামলার কারণ

  • নিউজডেস্ক, বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
    Published: 2021-05-12 19:24:06 BdST

bdnews24
কলোরাডো স্প্রিংস বিমানবন্দরের নিকটবর্তী এ মোবাইল হোম পার্কটিতে প্রায় ৪৭০টি ট্রেইলারে প্রধানত লাতিনো বাসিন্দারা বসবাস করেন। ছবি: জাকার্তা পোস্ট/টুইটার

জন্মদিনের পার্টিতে নিমন্ত্রণ করা হয়নি; সেই ক্ষোভ ও হাতাশ থেকেই বন্দুক হাতে পার্টিতে ঢুকে নিজের বান্ধবীসহ ছয়জনকে হত্যার পর আত্মহত্যা করেছিলেন যুক্তরাষ্ট্রের কলোরাডোর হামলাকারী।

গত রোববার কলোরাডো স্প্রিংস এলাকার একটি মোবাইল হোম পার্কে এ ঘটনা ঘটে।

পুলিশ জানায়, ২৮ বছরের টেওদোরো মাকিয়াস তার বান্ধবী সান্দ্রা ইবারা-পেরেজ এবং তার আরো পাঁচজন আত্মীয়কে গুলি করে হত্যার পর নিজেও আত্মহত্যা করে।

যে তিনজনের জন্য ওই পার্টির আয়োজন করা হয়েছিল তাদের মধ্যে দুই জন হামলায় নিহত হয়েছেন বলে জানায় বিবিসি।

পুলিশ জানায়, যে পরিবারের সদস্যদের হত্যা করা হয়েছে তাদের সঙ্গে এক সপ্তাহ আগে অন্য একটি পার্টিতে মাকিয়াসের ‘ঝগড়া’ হয়েছিল। নিজের বান্ধবীকে নিয়েও ঈর্ষাকাতর ছিলেন তিনি।

মঙ্গলবার এক সংবাদ সম্মেলনে কলোরাডো স্প্রিংস পুলিশ প্রধান ভিন্স নিস্কি বলেন, ‘‘ভয়ঙ্কর এ ঘটনার কারণ ‍গৃহবিবাদ।

‘‘পারিবারিক পার্টিতে যখন মাকিয়াসকে নিমন্ত্রণ জানানো হলো না তখন তিনি গুলি করে তার জবাব দিলেন।”

মাকিয়াসের অতীত অপরাধের রেকর্ড নেই বলেও জানান তিনি। প্রায় এক বছর ধরে সান্দ্রার সঙ্গে তার সম্পর্ক চলছিল।

নিহত বাকিরা হলেন: মেলভিন পেরেজ (৩০), মেলভিনের মা জোয়ানা ক্রুজ (৫৩), মেলভিনের ভাই হোসে গুতেরেজ ক্রুজ (২১), মেলভিনের স্ত্রী মাইরা পেরেজ (৩২) এবং মাইরার ভাই হোসে ইবারা।

মেলভিনের বোন নুবিয়া মার্কোজ স্থানীয় সাংবাদিকদের বলেন, তিনি, তার ভাই ও মায়ের জন্মদিন একই সপ্তাহের মধ্যে হওয়ায় তারা সবসময় ‘একসঙ্গে জন্মদিনের পার্টি করেন’। স্বামী ফ্রেডি মার্কোজকে নিয়ে তিনি ক্রুজ পরিবারের ট্রেইলার পার্কে জন্মদিন উদযাপন করতে এসেছিলেন। শনিবার রাত ১০টার দিকে তারা পার্টি ছেড়ে চলে যান।

মধ্যরাতের কিছুক্ষণ পর পার্টিতে গুলির ঘটনা ঘটে।