মিস ইউনিভার্সের আসরে মিয়ানমারের প্রতিযোগীর আর্জি

  • >> রয়টার্স
    Published: 2021-05-17 22:56:12 BdST

bdnews24

“আমাদের দেশে প্রতিদিন মানুষ মরছে। গুলিতে ঝাঁঝরা হচ্ছে। মিয়ানমারের জন্য আওয়াজ তুলুন,” সামরিক জান্তা শাসনের বিরুদ্ধে মুখ খুলে মিস ইউনিভার্সের আসরে রোববার এভাবেই বিশ্ববাসীর কাছে আর্জি জানিয়েছেন মিয়ানমারের প্রতিযোগী তুজা উই লিন।

যুক্তরাষ্ট্রের ফ্লোরিডায় মিস ইউনিভার্স প্রতিযোগিতার চূড়ান্ত পর্বে হলিউডের সেমিনোলে হার্ড রক হোটেল অ্যান্ড ক্যাসিনোয় জমকালো আয়োজনে অংশ নেওয়া শীর্ষ প্রতিযোগীদের মধ্যে ছিলেন তুজা।

প্রতিযোগিতার জন্য নির্মিত এক ভিডিও বার্তায় তিনি বলেন, “সেনাদের গুলিতে ঝাঁঝরা হয়ে প্রতিদিনই আমাদের দেশে মানুষ মরছে। আমি প্রত্যেককেই মিয়ানমারের জন্য আওয়াজ তোলার আহ্বান জানাচ্ছি। মিস ইউনিভার্স মিয়ানমার হিসেবে আমাদের দেশে সেনা অভ্যুত্থানের পর থেকে আমার পক্ষে যতটা প্রতিবাদ করা সম্ভব, আমি করছি।”

মানবাধিকার সংগঠন ‘অ্যাসিস্ট্যান্স অ্যাসোসিয়েশন ফর পলিটিক্যাল প্রিজনার্স’ এর হিসাবমতে, মিয়ানমারে ১ ফেব্রুয়ারির সেনা অভ্যুত্থানের পর থেকে চলে আসা আন্দোলন- বিক্ষোভে নিরাপত্তা বাহিনীর গুলিতে কমপক্ষে ৭৯০ জন নিহত হয়েছে। গ্রেপ্তার হয়েছে ৫ হাজারের বেশি বিক্ষোভকারী। এদের মধ্যে আছেন কয়েকজন তারকাও। মাত্র হাজারখানেক মানুষ ছাড়া পেলেও বাকিরা এখনও আছেন কারাগারে।

মিয়ানমারে অং সান সু চির নির্বাচিত সরকারকে ক্ষমতাচ্যুত করে ক্ষমতায় বসা সেনাবাহিনীর বিরুদ্ধে দেশটির তারকা, অভিনয়শিল্পী, খেলোয়াড়রাসহ আরও যারা প্রতিবাদ জানাচ্ছেন, তুজা উই লিন তাদের অন্যতম।

তবে বিশ্বসুন্দরী প্রতিযোগিতার মঞ্চে তুজার প্রতিবাদের বিরুদ্ধে মিয়ানমারের সেনাবাহিনী তাৎক্ষণিক কোনও প্রতিক্রিয়া জানায়নি।

তুজা উই লিন মিস ইউনিভার্স প্রতিযোগিতার চূড়ান্ত পর্বে মুকুট জিততে না পারলেও সেরা জাতীয় পোশাক ক্যাটাগরিতে পুরস্কৃত হয়েছেন। মিয়ানমারের উত্তর-পশ্চিমাঞ্চলীয় চিন জাতিগোষ্ঠীর মেয়ে তুজা নিজস্ব ঐতিহ্যবাহী পোশাক পরে মঞ্চে পা রেখেছিলেন। সে সময় ‘প্রে ফর মিয়ানমার’ লেখা একটি প্ল্যাকার্ডও তুলে ধরেন তিনি।