ভারতে কোভিডে বিপন্ন ২ লাখ শরণার্থী: প্রতিবেদন

  • নিউজ ডেস্ক, বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
    Published: 2021-06-17 11:46:11 BdST

bdnews24
নয়া দিল্লির শরণার্থী শিবিরে আশ্রয় নেওয়া একটি রোহিঙ্গা পরিবার। ছবি: রয়টার্স

কল্যাণমূলক কর্মসূচির অভাবে ও বিনামূল্যে স্বাস্থ্যসেবার সুযোগ না থাকায় কোভিড-১৯ মহামারীতে বিপর্যস্ত ভারতে কমপক্ষে দুই লাখ শরণার্থী মানবেতর জীবন কাটাচ্ছে বলে অধিকার গোষ্ঠীগুলোর একটি আন্তর্জাতিক জোটের প্রতিবেদনে তুলে ধরা হয়েছে।

বুধবার প্রকাশিত ওই প্রতিবেদনকে উদ্ধৃত করে রয়টার্স বলছে, “ভারতে রাষ্ট্রহীনরা সরকারের দেওয়া কোনো অর্থনৈতিক ত্রাণ প্যাকেজ পায়নি ... নাগরিকত্ব প্রমাণ করার জন্য তাদের কোনো ব্যাংক অ্যাকাউন্টও নেই।”

ইউরোপভিত্তিক ইনস্টিটিউট অব স্টেটলেসনেস অ্যান্ড ইনক্লুশনের সংগৃহিত তথ্য-উপাত্তের ভিত্তিতে তৈরি প্রতিবেদনটিতে ভারতসহ ১৩টি দেশে বসবাসরত রাষ্ট্রহীন জনগোষ্ঠীর ওপর মহামারীর প্রভাব পর্যালোচনা করা হয়েছে। কেনিয়া, বাংলাদেশ ও মালয়েশিয়াও রয়েছে এই সমীক্ষায়।

‘একত্রে আমরা পারি: রাষ্ট্রহীন জনতার ওপর কোভিড-১৯ এর প্রভাব এবং পরিবর্তনের একটি পথনকশা’ শীর্ষক প্রতিবেদনে বলা হয়, “কোভিড-১৯ মহামারী ঠেকাতে রাষ্ট্রের যে ব্যবস্থাপনা তা বিশ্বের প্রায় দেড় কোটি রাষ্ট্রহীন মানুষের অধিকার, কল্যাণ ও জীবনযাত্রায় নেতিবাচক প্রভাব ফেলেছে।”

১৯৫১ সালে প্রণীত শরণার্থী সনদে বা ১৯৬৭ সালে এর প্রটোকল স্বাক্ষর করেনি ভারত। দেশটির কোনো জাতীয় শরণার্থী সুরক্ষা কাঠামোও নেই। তবে প্রতিবেশী দেশগুলো থেকে তারা বিপুলসংখ্যক শরণার্থীকে আশ্রয় দিয়ে আসছে। আফগানিস্তান ও মিয়ানমারসহ অন্যান্য জাতীয়তার মানুষদের বিষয়ে ইউএনএইচসিআরের এর নীতির প্রতি তারা শ্রদ্ধাশীল।

ভারতে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ বাড়ায় মহামারী পরিস্থিতির অবনতি ঘটেছে এবং দীর্ঘ লকডাউনের কারণে সেখানে বসবাসরত দরিদ্র জনগোষ্ঠীকে বিশেষ করে স্বাস্থ্যসেবা পেতে এবং জীবিকা নির্বাহের জন্য বড় ধাক্কা সইতে হচ্ছে ।

এ বছরের নভেম্বর পর্যন্ত প্রায় ৮০ কোটি মানুষের জন্য বিনামূল্যে খাদ্য বিতরণের ঘোষণা দিয়েছে কেন্দ্রীয় সরকার। কিন্তু কোনো নথিপত্র না থাকায় শরণার্থীরা সম্ভবত সরকারের এই বিনামূল্যের রেশন বা ওষুধ পাচ্ছে না।

২০১৯ সালে বিতর্কিত নাগরিকপুঞ্জি প্রকাশ করার পর ভারতের আসাম রাজ্যে প্রায় সোয়া লাখ মানুষ ভিনদেশি হয়ে পড়েছে। এছাড়া মিয়ানমার থেকে পালিয়ে আসা ৪০ হাজার রোহিঙ্গাও ভারতে আশ্রয় নিয়ে আছে।