পছন্দের খবর জেনে নিন সঙ্গে সঙ্গে

দাবানলে পুড়ছে তুরস্ক, ৩ জনের প্রাণহানি

  • >> রয়টার্স
    Published: 2021-07-29 22:29:12 BdST

bdnews24

দাবানলে পুড়ছে তুরস্কের দক্ষিণাঞ্চল। গরম আবহাওয়া এবং দমকা বাতাসের কারণে মানাওগাত শহর ঘিরে আগুন ছড়িয়ে পড়েছে। শহরটির কাছে এখন পর্যন্ত তিনজনের মৃতদেহ খুঁজে পাওয়া গেছে।

মানাওগাতের কাছে বৃহস্পতিবার দ্বিতীয় দিনের মতো আগুন জ্বলছে বলে জানিয়েছে তুরস্কের দুর্যোগ ও জরুরি ব্যবস্থাপনা সংস্থা এবং কৃষি মন্ত্রণালয়।

শতাধিক মানুষকে এরই মধ্যে নিরাপদ আশ্রয়ে সরানো হয়েছে। অগ্নিনির্বাপণকর্মীরা উদ্ধার অভিযান চালাচ্ছে এবং আগুন নেভানোর চেষ্টা করে যাচ্ছে।

উদ্ধার পাওয়াদের অনেকেই দগ্ধ হয়েছেন এবং তাদের সম্পদেরও ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে। টিভি ফুটেজে দেখা গেছে, বাড়িঘর সব পুড়ছে। মানুষ এলাকা ছেড়ে পালাচ্ছে। অগ্নিনির্বাপণ কর্মীরা হেলিকপ্টারে করে আগুন নেভানোর কাজ করছে।

তুরস্কের কৃষিমন্ত্রী বলেছেন, মানাওগাতের ১৬ কিলোমিটার উত্তরপূর্বের আকসেকি এলাকা থেকে লোকজনকে সরিয়ে নেওয়ার সময় ৮২ বছরের এক বৃদ্ধের মৃতদেহ খুঁজে পাওয়া গেছে। এছাড়া, মানাওগাতের ২০ কিলোমিটার পূর্বের আরেকটি এলাকায় খুঁজে পাওয়া গেছে আরও দুইজনের মৃতদেহ।

আগুন নেভানোর কাজে নিয়োজিত রয়েছে একটি বিমান, একটি ড্রোন, ১৯ টি হেলিকপ্টার, প্রায় ২৫০ টি যান এবং ৯৬০ জন কর্মী।

তুরস্কের দুর্যোগ ও জরুরি ব্যবস্থাপনা সংস্থা জানিয়েছে, যেসব এলাকায় বাড়িঘর আগুনের গ্রাসে চলে যেতে পারে বলে চিহ্নিত করা হয়েছে সেখান থেকে লোকজনকে সরিয়ে নেওয়া হয়েছে। এরই মধ্যে আগুনে পুড়ে ছাই হয়েছে বেশকিছু বাড়িঘর, কার্যালয় ভবন, ফার্ম, কৃষিজমি, গ্রিনহাউজ এবং যানবাহনও।

মানাওগাতের ৭৫ কিলোমিটার পূর্বে আনতলিয়ায় ১৮ টি গ্রাম ও জেলা খালি করেছে কর্তৃপক্ষ। এছাড়া, কাছের আডানা এবং মারসিন প্রদেশের আও ১৬ টি গ্রাম থেকেও মানুষজনকে সরিয়ে নেওয়া হয়েছে। মানাওগাতের একটি হাসপাতালও খালি করা হয়েছে।

তুরস্কের দক্ষিণাঞ্চলে ভূমধ্যসাগরীয় উপকূলে প্রচণ্ড তাপপ্রবাহের কারণে প্রায়ই দাবানল হয়। কর্মকর্তারা বলছেন, এবারে শুরু হওয়া দাবানল এ যাবৎকালের সবচেয়ে ভয়াবহ। উপকূলীয় পর্যটন এলাকার কাছে জ্বলছে দুটি দাবানল।

ভূমধ্যসাগরীয় শহর মানাওগাতের কাছে আগুন ছড়িয়েছে বুধবার। পরের দিন শহরটির ৫০ কিলোমিটার উত্তরে আকসেকি জেলাতেও আগুন ছড়িয়ে পড়েছে।

কৃষিমন্ত্রী জানিয়েছেন, গত মঙ্গলবার থেকে তুরস্কের ৮১ টি প্রদেশের ১৩ টিতে ৪১ টি স্থান দাবানলে পুড়ছে। এর মধ্যে ৩১ টি স্থানে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনা সম্ভব হয়েছে।

ওসমানিয়ে এবং কায়সেরি এলাকা এখনও পুড়ছে দাবানলে। কি থেকে দাবানলের সূত্রপাত হল তা তাৎক্ষণিকভাবে জানা যায়নি।