পছন্দের খবর জেনে নিন সঙ্গে সঙ্গে

রাশিয়ায় দমনপীড়নের নির্বাচনে পুতিনপন্থি দলের জয়

  • নিউজ ডেস্ক, বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
    Published: 2021-09-20 20:07:43 BdST

bdnews24
রাশিয়ার পার্লামেন্ট নির্বাচনে ভোট দিচ্ছেন এক ব্যক্তি। ছবি: রয়টার্স

রাশিয়ায় পার্লামেন্ট নির্বাচনে পুতিনপন্থি ক্ষমতাসীন ইউনাইটেড রাশিয়া পার্টি সংখ্যাগরিষ্ঠতা ধরে রেখেছে।

বিরোধীদলীয় নেতা-কর্মীদের ওপর ব্যাপক দমনপীড়নের মধ্য দিয়ে তিন দিনব্যাপী এ নির্বাচনের ভোট গ্রহণ শুরু হয়েছিল গত শুক্রবার। রোববার তা শেষ হয়।

প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনের কড়া সমালোচকদের রাখা হয়েছিল নির্বাচনের বাইরে। তাছাড়া, বিরোধী ও সমালোচকদেরও ভোটদানে বাধা দেওয়া হয়।

বাক্সে ব্যালট ভর্তি করা এবং জোর করে ভোট দেওয়ানোর অনেক অভিযোগও এসেছে। তবে নির্বাচন কমিশন সব অভিযোগ উড়িয়ে দিয়েছে।

সোমবার নির্বাচন কমিশন ৯৮ শতাংশ ভোট গণনার ফল জানিয়ে বলেছে, এর মধ্যে ইউনাইটেড রাশিয়া পার্টি শতকরা প্রায় ৫০ ভাগ ভোট পেয়েছে। আর প্রায় ২০ শতাংশ ভোট নিয়ে এরপরই রয়েছে কমিউনিস্ট পার্টি।

নির্বাচনের এই আংশিক ফলে ইউনাইটেড রাশিয়া পার্টির বড় ধরনের জয় দেখা গেলেও তাদের জনসমর্থন আগের চেয়ে কমেছে। ২০১৬ সালের নির্বাচনে দলটির সমর্থন ছিল শতকরা ৫৪ ভাগ।

অন্যদিকে, এ নির্বাচনে কমিউনিস্ট পার্টির জনসমর্থন আগের তুলনায় বেড়েছে। জীবনমান নিয়ে জনগণের উদ্বেগ এবং পুতিনের কড়া সমালোচক অ্যালেক্সি নাভালনির জেল ক্ষমতাসীন দলের জনসমর্থন কমিয়ে দিয়েছে বলে মনে করা হচ্ছে।

তবে এরপরও ক্ষমতাসীন ইউনাইটেড রাশিয়া পার্টি পার্লামেন্টে সংখ্যাগরিষ্ঠতা ধরে রাখতে চলেছে বলে গতকালই গণমাধ্যমের প্রতিবেদনে আভাস দেওয়া হয়েছিল।

নির্বাচনে ইউনাইটেড রাশিয়া ছাড়াও প্রায় এক ডজন দল অংশ নিলেও পুতিনের প্রধান প্রতিপক্ষ হিসেবে পরিচিত বিরোধীদলীয় নেতা অ্যালেক্সি নাভালনি বা তার কোনও সমর্থককে নির্বাচনে অংশ নিতে দেওয়া হয়নি।

নাভালনি বর্তমানে জেলবন্দি। নির্বাচনে ভোট গ্রহণের শুরুতেই নাভালনির ‘স্মার্ট ভোটিং’ অ্যাপ গুগল প্লে স্টোর ও অ্যাপল স্টোর থেকে সরিয়ে নেওয়া হয়েছিল, যা নিয়ে সমালোচনাও হয়েছে।

সমালোচকরা বলছেন, ম্যারাথন এ নির্বাচনে স্বচ্ছতা ছিল না। নিয়ম লঙ্ঘিত হয়েছে। দেশের বিভিন্ন স্থান থেকে ভোটে অনিয়মের অভিযোগ আসলেও নির্বাচন কমিশনের প্রধান এগুলো পাত্তা দেননি। তিনি এসব অভিযোগ পরিকল্পিত, বানোয়াট বলে উড়িয়ে দিয়েছেন।

ওদিকে, নির্বাচনে জয় স্পষ্ট হতেই ইউনাইটেড রাশিয়া পার্টি তাদের সদর দপ্তরে বিজয় সমাবেশ করেছে। রাষ্ট্রীয় সম্প্রচার মাধ্যমে সেই সমাবেশ সম্প্রচার করা হয়।